শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৬ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
রোহিঙ্গাদের পাশে দাঁড়িয়ে দুই পুরস্কার পাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী  » «   ডিজিটাল পাঠ্যবই শিক্ষার্থী ও শিক্ষক উভয়ের জন্য সহায়ক হবে: শিক্ষামন্ত্রী  » «   কাল পবিত্র আশুরা, তাজিয়া মিছিলে ছুরি-তলোয়ার নিষিদ্ধ  » «   জেল থেকে বাসায় ফিরলেন নওয়াজ-মরিয়ম  » «   রোহিঙ্গাদের জন্য বিশ্বব্যাংকের ৫ কোটি ডলার সহায়তা  » «   রান্নাঘরের গ্রিল কেটে শাবির ছাত্রী হলে চুরি,নিরাপত্তাহীনতায় ছাত্রীরা  » «   এখনও জঙ্গি হামলার ঝুঁকিতে বাংলাদেশ : যুক্তরাষ্ট্র  » «   মোদিকে ইমরানের চিঠি: পুনরায় শান্তি আলোচনা শুরুর তাগিদ  » «   খালেদা জিয়ার অনুপস্থিতেই বিচার চলবে: আদালত  » «   ফুটপাতের খাবার বিক্রেতা থেকে সিঙ্গাপুরের রাষ্ট্রপতি!  » «   বিএনপি নেতাদের ওপর ক্ষুব্ধ তারেক রহমান!  » «   পায়রা বন্দরের নিরাপত্তায় পুলিশের বিশেষ আয়োজন  » «   সরকারের চাপের মুখে দেশত্যাগ করতে হয়েছে: এসকে সিনহা  » «   পুতিন আমাকে হত্যার চেষ্টা করেছে : রাশিয়ান মডেল  » «   বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপ: ৩ নম্বর সতর্ক সংকেত  » «  

বিমান বিধ্বস্ত, খোঁজ মেলেনি নিহত পাইলটদের



নিউজ ডেস্ক::যশোরে বিমান বাহিনীর প্রশিক্ষণ বিমান বিধ্বস্তের ঘটনায় নিহত দুই পাইলটের মরদেহ এখনও উদ্ধার করা যায়নি। নিহত পাইলটেদের উদ্ধারে এখনও অভিযান চলছে।

সোমবার (২ জুলাই) ভোররাত ৪টায় অভিযান স্থগিত করা হয়। পরে সকাল ৯টা ২৫ মিনিটে ফের উদ্ধার অভিযান শুরু হয়েছে। নৌবাহিনী ও ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল উদ্ধার কাজে অংশ নিয়েছে।

দুঘর্টনাস্থলের ২শ গজের মধ্যে সাধারণের প্রবেশ নিষিদ্ধ করা হয়েছে। বিমান, সেনা ও পুলিশ সদস্যরা ঘটনাস্থল ঘিরে রেখেছেন।

এদিকে সকালে দুর্ঘটনাস্থল যশোর সদর উপজেলার দেয়াড়া ইউনিয়নের আরিচপুর গ্রাম সংলগ্ন বুকভরা বাওড়ের ধারে গিয়ে দেখা যায় হাজারো উৎসুক জনতা ভিড় করেছে। দুর্ঘটনার শিকার বিমান ও দুই পাইলট উদ্ধার দেখতে এসেছেন তারা। সাধারণ মানুষ বলছে, তারা জীবনে কখনো, এমন ঘটনা তারা দেখেননি।

প্রত্যক্ষদর্শী স্থানীয় মঠবাড়িয়া গ্রামের বাসিন্দা আশুতোষ সরকার বলেন, রোববার রাত ৯টার দিকে বাওড়ে মাছ ধরতে এসেছিলাম। বাওড়ের ধারেই ছিলাম। হঠাৎ দেখি দক্ষিণ আকাশে বিকট শব্দে একটি বিমান ব্লাস্ট (বিস্ফোরণ) হয়। এরপর আগুনের গোল্লা বাওড়ের জলে পড়ে। কিছুক্ষণ পর এলাকাবাসী বাওড়ের ধারে ভিড় করে।

যশোরে বিমান বাহিনীর প্রশিক্ষণ বিমান বিধ্বস্তের ঘটনায় দুই পাইলটই নিহত হয়েছে বলে জানিয়েছে আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তর (আইএসপিআর)। নিহতরা হলেন- স্কোয়াড্রন লিডার মো. সিরাজুল ইসলাম এবং স্কোয়াড্রন লিডার এনায়েত কবির পলাশ। বিমানটি চালাচ্ছিলেন তারা দুইজন।

আইএসপিআর জানায়, রোববার রাতে বাংলাদেশ বিমান বাহিনীর কে-৮ ডব্লিও নামের একটি বিমান যশোর সদর উপজেলার বুকভরা বাওড়ের মধ্যে বিধ্বস্ত হয়। বিমানটি যশোরের মতিউর রহমান বিমান ঘাঁটি থেকে রাত্রীকালীন প্রশিক্ষণের উদ্দেশে উড্ডয়ন করে বলে জানায় তারা। এখনো উদ্ধারকার্য চালানো হচ্ছে বলে জানিয়েছে আইএসপিআর। সেইসাথে এ ঘটনায় একটি উচ্চতর তদন্ত কমিটিও গঠন করা হয়েছে জানায় তারা।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: