শনিবার, ২৩ জুন ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৯ আষাঢ় ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
যমুনা নদীতে বিলীন হচ্ছে বসত বাড়ি, দেখার কেউ নেই!  » «   নতুন চলচ্চিত্রের জন্য ইরানে অনন্ত  » «   নেইমারের জার্সি গায়ে অপু ও জয়  » «   সিসিক নির্বাচন: আ.লীগ মেয়র প্রার্থী হলেন কামরান  » «   বাসায় ঢুকে অভিনেত্রীকে শ্লীলতাহানি!  » «   আর্জেন্টিনার হার, বেরিয়ে এলো বিস্ফোরক তথ্য!  » «   দুর্ঘটনা সড়কে মৃত্যুর মিছিল, নিহত ৩০, আহত ৪৭  » «   ‘নির্বাচনে জয়ী হতে গিয়ে যেন দলের বদনাম না হয়’  » «   হাসপাতালে পরীমনি  » «   আর্জেন্টিনার হার, ‘সুইসাইড নোট’ লিখে নিখোঁজ মেসি ভক্ত  » «   সাপাহারে ট্রাক ও ভ্যানের মুখো-মুখি সংঘর্ষে নিহত-২  » «   দুর্ঘটনার দিন ঢাকাতেই ছিলাম না’  » «   ভক্তদের হতাশ করেনি ব্রাজিল : অতিরিক্ত সময়ই বিশ্বকাপে টিকিয়ে রাখল নেইমারদের  » «   হাসপাতালের এক্সরে রুমে রোগীর মাকে ধর্ষণের চেষ্টা!  » «   গজারী বনে যুবতীর অর্ধগলিত লাশ  » «  

বিদ্যালয়ের ছাদের প্লাস্টার খঁসে শিক্ষিকা আহত



শেরপুরের ঝিনাইগাতী উপজেলার প্রাণ কেন্দ্রে অবস্থিত একমাত্র নারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হাজী অছি আমরুন্নেছা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের অফিস কক্ষের ছাদের প্লাস্টার ভেঙ্গে পড়ে সহকারী শিক্ষিকা চাঁদ সুলতানা আহত হয়েছেন। তাড়াহুড়ো করে বের হতে গিয়েও কয়েক শিক্ষকও আঘাতপ্রাপ্ত হন। ২ এপ্রিল রবিবার বিকালে এ ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, ১৯৮৪ সালে নিম্নমানের মালামাল দিয়ে নির্মিত ৮০ ফুট দৈর্ঘ্য এবং ২০ ফুট প্রস্থ অফিস ভবনের ছাদের প্লাস্টার খঁসে লোহার রড় দেখা যাচ্ছে। প্রতিদিনের মত ররিবার দুপুরের বিরতির পর প্রধান শিক্ষিকা উম্মে কুলছুম সহ অন্যান্য সহকারী শিক্ষকগণ অফিস মিলনায়তনে বসে আছেন। এমন সময় কোন কিছু বুঝে উঠার আগেই ছাদের প্লাস্টার খঁসে পড়ে সহকারী শিক্ষিকা চাঁদ সুলতানার উপর। এতে তিনি মাথায় আঘাত পেয়ে মাটিতে পড়ে যান।

এসময় অন্যান্য শিক্ষকরা দ্রুত বের হতে গিয়েও কয়েকজন শিক্ষক আঘাত পান। পরে সহকারী শিক্ষিকা চাঁদ সুলতানাকে উদ্ধার করে প্রাথমিক চিকিৎসার ব্যবস্থা করেন। উপজেলা নির্বাহী অফিসার এ.জেড.এম. শরীফ হোসেনের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি ঝুঁকিপূর্ণ ভবনে অফিস কক্ষ হিসেবে ব্যবহার না করার জন্য প্রধান শিক্ষিকাকে পরামর্শ দেন।

এ ব্যাপারে প্রধান শিক্ষিকা উম্মে কুলছুম বলেন, অফিস কক্ষ হিসেবে ব্যবহারের মতো আর কোন কক্ষ খালি নেই। এখন আমার অফিসিয়াল নথিপত্রই রাখব কোথায় এবং অন্যান্য শিক্ষকদের বসার ব্যবস্থা কিভাবে করবো বুঝতে পারছিনা। এ সমস্যা সমাধানের জন্য প্রধান শিক্ষিকা উম্মে কুলছুম সংশ্লিষ্ট উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করছেন।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: