শুক্রবার, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৩০ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
২৪ ডিসেম্বর মাঠে নামছে সেনাবাহিনী, থাকবেন ম্যাজিস্ট্রেটও  » «   ইন্টারনেটে ধীর গতি ও মোবাইল ব্যাংকিং বন্ধ চায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনী  » «   প্রার্থিতা নিয়ে শুনানি: আদালতের প্রতি খালেদা জিয়ার আইনজীবীদের অনাস্থা  » «   আওয়ামী লীগ ১৬৮ থেকে ২২০ আসনে জিতবে: জয়  » «   সিলেট-২ আসনে বিএনপির প্রার্থী তাহসিনা রুশদীর লুনার মনোনয়ন স্থগিত করেছেন হাইকোর্ট  » «   আম্বানি কন্যার বিয়েতে নাচলেন হিলারি ক্লিনটন [ভিডিও ]  » «   সিলেট-১ আসনে ধানের শীষের প্রচারণার একসঙ্গে মুক্তাদির-আরিফ  » «   সহিংসতার ঘটনা খতিয়ে দেখতে সিইসির নির্দেশ  » «   ‘ইডিয়ট’ লিখে গুগলে সার্চ দিলে কেনো আসে ট্রাম্পের ছবি?  » «   বিশ্ব ভ্রমণ করবে বাংলাদেশের প্রথম বিদ্যুৎচালিত গাড়ি  » «   খাশোগি হত্যাকাণ্ডে সৌদি আরব ছাড়পত্র পাবে না: নিক্কি হ্যালি  » «   গুগলে সবচেয়ে বেশি খোঁজ খালেদা ও হিরো আলম  » «   আস্থা ভোট, নেতৃত্বের পরীক্ষায় উতরে গেলেন তেরেসা মে  » «   ফোনালাপ ফাঁস: খন্দকার মোশাররফের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহিতার অভিযোগ  » «   নির্বাচনে এজেন্ট পাওয়া নিয়ে চিন্তায় বিএনপি  » «  

বিএনপির যেসব প্রার্থী মনোনয়ন ফিরে পেলেন



নিউজ ডেস্ক:: আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্ব‍াচনে বিএনপির মনোনীত যেসব প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র অবৈধ হয়েছিল, নির্বাচন কমিশনের আপিল শুনানিতে এখন পর্যন্ত ৫ জনের মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণা করা হয়েছে।

মনোনয়ন বৈধ হওয়া প্রার্থীরা হলেন, বগুড়া-৭ আসনে মোর্শেদ মিল্টন, ঢাকা-২০ আসনে তমিজ উদ্দিন, পটুয়াখালী-৩ গোলাম মাওলা রনি, কিশোরগঞ্জ-২ মেজর (অব.) মো. আখতারুজ্জামান, ঢাকা-১ আসনে খন্দকার আবু আশফাক। খাগড়াছড়ির বিএনপি প্রার্থী আবদুল ওয়াদুদ ভুঁইয়ার সিদ্ধান্ত অপেক্ষমান আছে।

এর ফলে ঢাকা-১ ও বগুড়া-৭ আসনে বিএনপি তাদের প্রার্থী ফিরে পেলো।ঢাকা-১ আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী ব্যবসায়ী সালমান এফ রহমান ও স্বতন্ত্র প্রার্থী ঐ আসনের বর্তমান এমপি সালমা ইসলাম। বিএনপির প্রার্থী খন্দকার আবু আশফাক ঢাকা জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক।

এদিকে মনোনয়ন বাতিল হওয়া গোলাম মাওলা রনিও তার তার প্রার্থীতা ফিরে পেয়েছেন। নির্বাচন কমিশনে আপিল করলে কমিশন শুনানি শেষে তার প্রার্থী বৈধ বলে রায় দেয়। ঐ আসনে আওয়ামী লীগের নৌকার প্রার্থী সিইসি কে এম নুরুল হুদার ভাগিনা এস এম শাহজাদা সাজু। অন্যদিকে খাগড়াছড়িতে বিএনপির একক প্রার্থী জেলা বিএনপির সভাপতি ও সাবেক এমপি আব্দুল ওয়াদুদ।

বৃহস্পতিবার সকালে নির্বাচন কমিশনের এজলাস কক্ষে শুনানি শেষে তাদের এ রায় জানিয়ে দেয়া হয়েছে। এর আগে গত রোববার তাদের মনোনয়নপত্র বাতিল ঘোষণা করেন রিটার্নিং কর্মকর্তা।

শুনানিতে প্রধান নির্বাচন কমিশনারসহ (সিইসি) অন্যান্য কমিশনার, ইসির সচিব ও অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেটরা উপস্থিত আছেন।সূত্র জানায়, বৃহস্পতিবার প্রথম দিন ১ থেকে ১৬০, দ্বিতীয় দিন শুক্রবার ১৬১ থেকে ৩১০ এবং তৃতীয় দিন শনিবার ৩১১ থেকে ৫৪৩ পর্যন্ত শুনানি অনুষ্ঠিত হবে।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নিতে মোট ৩ হাজার ৬৫টি মনোনয়নপত্র জমা পড়েছিল।গত ২ ডিসেম্বর যাচাই-বাছাইয়ের পর নানা কারণে ৭৮৬টি বাতিল ঘোষণা করেন রিটার্নিং কর্মকর্তারা। এদের মধ্যে অনেকেই প্রার্থিতা ফিরে পেতে নির্বাচন কমিশনে আপিল আবেদন করেছেন।

উল্লেখ্য, আগামী ৯ ডিসেম্বর মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ দিন এবং ১০ ডিসেম্বর প্রতীক বরাদ্দ দেয়া হবে। আর ভোট গ্রহণ ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হবে।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: