সোমবার, ১৪ অক্টোবর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ২৯ আশ্বিন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
আবরার হত্যায় এবার মুজাহিদের স্বীকারোক্তি  » «   তিন সপ্তাহ ধরে কার্যালয়ে যান না যুবলীগ চেয়ারম্যান  » «   নোবেল পুরস্কার র‌্যাব-পুলিশের হাতে নয় : রিজভী  » «   বুরকিনা ফাসোতে মসজিদে ঢুকে ১৬ মুসল্লিকে গুলি করে হত্যা  » «   হবিগঞ্জে পাচারকালে ১২শ’ কেজি রসুন জব্দ  » «   সৌদি-ইরান উত্তেজনা মধ্যস্ততায় তেহরানের পথে ইমরান খান  » «   ঢাবি ‘খ’ ইউনিটের ফল প্রকাশ, ৭৬ শতাংশ ফেল  » «   সরকার ছাত্র রাজনীতি বন্ধের পক্ষে নয়: ওবায়দুল কাদের  » «   ৮ দিন পর ফিরলেন আমিরাতের প্রথম মহাকাশচারী  » «   শ্রীমঙ্গলে র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ডাকাত দলের সদস্য নিহত  » «   ছাত্র-শিক্ষক রাজনীতি নিষিদ্ধ চেয়ে হাইকোর্টে রিট  » «   টাইফুনে লন্ডভন্ড জাপান, নিহত বেড়ে ১৯  » «   আবরারের খুনিকে কারাগারে গণপিটুনি  » «   রাজীবের মৃত্যু: ১০ লাখ টাকা দেওয়ার নির্দেশ স্বজন পরিবহনকে  » «   আমি বহু ইস্যুতেই নোবেল পাই, ওরা দেয় না: ট্রাম্প  » «  

বাড়িভাড়া দেয়ার সামর্থ্য নেই সর্বকনিষ্ঠ মার্কিন কংগ্রেস সদস্যের



আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: ওয়াশিংটন ডিসিতে একটি ভালো বাড়ির ভাড়া দেয়ার সামর্থ্য নেই মার্কিন কংগ্রেসের সবচেয়ে কনিষ্ঠ সদস্য আলেক্সান্দ্রিয়া ওকাসিয়ো-কর্টেজের। নিউ ইয়র্ক টাইমসের বরাত দিয়ে এ খবর দিয়েছে বিবিসি।

নিউ ইয়র্ক টাইমসকে কর্টেজ বলেন, জানুয়ারিতে কংগ্রেসওমেন হিসেবে তার প্রথম মাসের বেতন পাওয়ার আগ পর্যন্ত তাকে ওয়াশিংটনে নতুন বাড়ি ভাড়া করার জন্য অপেক্ষা করতে হবে।তবে স্থানীয় সময় শুক্রবার ফক্স নিউজের উপস্থাপক এড হ্যারি বলেন, ২৯ বছর বয়সী কর্টেজ তার অর্থাভাব নিয়ে সত্য কথা বলছেন না। কেননা একটি ম্যাগাজিনে দেখা যায় যে, কর্টেজ কয়েক হাজার ডলারের কাপড় পরে আছেন।

হ্যারির মন্তব্যের জবাবে কর্টেজ টুইটারে লিখেন, ছবি তোলার জন্য কাপড়টি তিনি ধার নিয়েছিলেন।টুইটারে নিজের অর্থ সংকট নিয়ে তিনি লিখেন, আমি কোনোরকমে চলে যাচ্ছি।এভাবে জানুয়ারি পর্যন্ত চলার আশায় আছি।

কর্টেজের জন্ম পুয়ের্তো রিকোর ব্রন্ক্স শহরে। নিজেকে তিনি শ্রমজীবী হিসেবে বর্ণনা করেন। কংগ্রেসে নির্বাচিত হওয়ার আগে, চলতি বছরের শুরু পর্যন্ত তিনি রেস্তোরাঁয় কাজ করতেন।

প্রসঙ্গত কর্টেজ ৬ নভেম্বরের মধ্যবর্তী নির্বাচনে নিউ ইয়র্কের ১৪তম কংগ্রেশনাল আসনে জয়ী হয়েছেন। তার নির্বাচনী প্রচারণার অংশ ছিল, দারিদ্রতা, অর্থ বৈষম্য ও অভিবাসন।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: