মঙ্গলবার, ২৬ মার্চ ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ১২ চৈত্র ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
বিরোধী দলীয় উপনেতা হলেন রওশন এরশাদ  » «   সিলেট যাত্রীদের দাবি মেনে নেওয়ার আশ্বাস বিমানের  » «   ১ এপ্রিল থেকে সব কোচিং সেন্টার বন্ধ  » «   সুবর্ণচরে গণধর্ষণ: আইনজীবীর বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার আবেদন  » «   ‘১১ বছর বয়সে বাবা আমাকে নিষিদ্ধপল্লীতে বিক্রি করে দেন’  » «   আকস্মিক ঢাকার কূটনৈতিক পাড়ায় ২৪ ঘন্টার রেড অ্যালার্ট জারি  » «   নির্বাচনে রাশিয়া-ট্রাম্প আঁতাতের প্রমাণ মেলেনি মুলারের তদন্তে  » «   ১২ ব্যক্তি ও এক প্রতিষ্ঠানকে স্বাধীনতা পদক দিলেন প্রধানমন্ত্রী  » «   এবার ক্যালিফোর্নিয়ায় মসজিদে আগুন, চিরকুট উদ্ধার  » «   ফাঁকা বাসে ভয়ঙ্কর ফাঁদ, টার্গেট কম বয়সী নারী যাত্রী  » «   রিমান্ডে বিমানবালা: যেভাবে হয় সৌদি আরব থেকে স্বর্ণ আনার চুক্তি  » «   আজ ভয়াল ২৫ মার্চ, গণহত্যার স্বীকৃতি চায় বাংলাদেশ  » «   সিলেটের আতিয়া মহলে অভিযান: দুই বছরেও আসেনি চার্জশিট  » «   বাড়ছে দূতাবাস, গুরুত্ব পাচ্ছে অর্থনৈতিক কূটনীতি  » «   একাত্তরের গণহত্যা আন্তর্জাতিক ফোরামগুলোতে তুলবে জাতিসংঘ  » «  

বাসরঘরে বউকে রেখে যুদ্ধে গেলেন যে যুবক!



ইসলাম ডেস্ক::উহুদের যুদ্ধে ৭০ জন সাহাবী শহীদ হয়েছেন। একেক জনের লাশ মোবারক এনে এক জায়গায় রাখা হচ্ছে। রাসুলুল্লাহ স্বাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম গুনে দেখলেন ৬৮ টি লাশ মোবারক। ২ টি নেই, একজন তাঁর চাচা হামজা (রাঃ) আরেকজন হানজালা (রাঃ)। অস্থির হয়ে পড়েছেন নবীজি। সকল সাহাবিদেরকে পাঠালেন লাশ মোবারক খোজার জন্য।

হঠাৎ বোরখা পড়া এক মহিলা এসে দাঁড়ালেন নবীজির সামনে। মহিলা আরয করলেন; ইয়া রাসুলাল্লাহ স্বাল্লাল্লাহু য়ালাইহি ওয়াসাল্লাম আজ আপনি একটা বিয়ে পড়িয়েছেন? রাসুলাল্লাহ স্বাল্লাল্লাহু য়ালাইহি ওয়াসাল্লাম বলেন; হা আমি তো হানজালা রাঃ বিয়ে পড়িয়েছি। যার বিয়ের খুশিতে আমি খুরমা খেজুর ছিটিয়ে ছিলাম। মহিলা বললেন; ইয়া রাসুলাল্লাহ স্বাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম আমার হাতের মেহেদী এখনও শুকায় নি।

কাল বিকেলে বিয়ে হয়েছে আর রাতে উহুদের যুদ্ধের জন্য বের হয়ে গেছেন হাঞ্জালা রাঃ। বাসর রাতে তার সাথে আমার ভালোভাবে পরিচয়ই হয়নি। যাওয়ার আগে শুধু বলে গেছেন “যদি দেখা হয় তাহলে দেখা হবে দুনিয়ায়, আর যদি শহীদ হয়ে যাই তাহলে দেখা হবে জান্নাতে”। আল্লাহু আকবার

মহিলা বললেন ইয়া রাসুলাল্লাহ স্বাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম যাওয়ার আগে লজ্জায় আমি তাঁকে বলতেও পারিনি যে আপনার জন্য গোসল ফরজ। পেয়ারা নবি উম্মতের কান্ডারী স্বাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম কাদতে লাগলেন।

একজন সাহাবি দৌড়ে এসে বললেন ইয়া রাসুলাল্লাহ স্বাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম হানজালা রাঃ কে পাওয়া গেছে। রাসুলুল্লাহ স্বাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম সেখানে যাওয়ার সময় দুই হাত দিয়ে ভীড় ঠেলে (যদিও পুরা জায়গাই ফাকা ছিলো, সাহাবারা প্রশ্ন করলে নবিজী বলেন যে হানযালা রাঃ কে গোসল দিতে আকাশ থেকে ফেরেশতারা এসেছেন) লাশ মোবারকের কাছে গিয়ে দেখলেন লাশ মোবারকের মাথায় পানি। নবীজি মাথা হাত বুলিয়ে দিলেন।

জিবরাঈল আঃ এসে বললেন ইয়া রাসুলাল্লাহ স্বাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম হানজালার রাঃ কোরবানিতে আল্লাহ্ এতটাই খুশি হয়েছেন যে তিনি ফেরেশতাদের আদেশ করলেন জমজমের পানি দিয়ে গোসল করাতে এবং তাঁর শরীরে যে সুগন্ধ দেখছেন এটি বিশেষ খুসবু মিশক আম্বর আতর যা কাফনের কাপড়ে ঢোকানো হয়েছে। সুবহানআল্লাহ।

আল্লাহু আকবার। হানযালা রাঃ এর কদমে লক্ষ সালাম। কতইনা ভালোবাসতেন তারা আল্লাহ ও তার রাসুল স্বাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামকে। রাসুলের স্বাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম ডাকে বাসর রাতে নিজের নতুন স্ত্রীকে ফেলে দিয়ে যুদ্ধে চলে গেলেন। আল্লাহ তার ভালোবাসার কিছু অংশ আমাদের দান করুন। আমিন।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: