শুক্রবার, ১৮ জানুয়ারী ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ মাঘ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
জিয়াউর রহমানের জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে কর্মসূচি ঘোষণা  » «   সীমান্তের খালে মিয়ানমারের সেতু, বন্যার আশঙ্কা বাংলাদেশে  » «   দ্বিতীয় কৃত্রিম উপগ্রহ পাঠাবে বাংলাদেশ: শাবিতে পরিকল্পনামন্ত্রী  » «   আতিয়া মহল মামলা: ৫ দিনের রিমান্ডে ৩ আসামি  » «   শেখ হাসিনা হত্যাচেষ্টা মামলা: হাইকোর্টে আপিল শুনানি শুরু  » «   টিআইবির রিপোর্টে সরকার ও ইসির আঁতে ঘা লেগেছে: বিএনপি  » «   মাফিয়াদের স্বর্গরাজ্যে দশ বাংলাদেশির অনন্য সাহসিকতার নজির  » «   ১৪ দলের শরিকদের বিরোধী দলে থাকাই ভালো: ওবায়দুল কাদের  » «   সন্ত্রাস-মাদক-জঙ্গিবাদের মতো দুর্নীতির বিরুদ্ধেও ‘জিরো টলারেন্স’ : প্রধানমন্ত্রী  » «   সংসদ সদস্যদের শপথের বৈধতা নিয়ে রিট খারিজ  » «   কৃত্রিম কিডনি তৈরি করলেন বাঙালি বিজ্ঞানী  » «   ব্রেক্সিট ইস্যু: অনাস্থা ভোটে টিকে গেলেন তেরেসা মে  » «   টিআইবির প্রতিবেদন গ্রহণযোগ্য নয়, পুরোপুরি প্রত্যাখ্যান করি: সিইসি  » «   জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে অফিস করছেন শেখ হাসিনা  » «   সংসদ কার্যকর রাখতেই বিরোধী দলে জাপা : জিএম কাদের  » «  

বাসরঘরে বউকে রেখে যুদ্ধে গেলেন যে যুবক!



ইসলাম ডেস্ক::উহুদের যুদ্ধে ৭০ জন সাহাবী শহীদ হয়েছেন। একেক জনের লাশ মোবারক এনে এক জায়গায় রাখা হচ্ছে। রাসুলুল্লাহ স্বাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম গুনে দেখলেন ৬৮ টি লাশ মোবারক। ২ টি নেই, একজন তাঁর চাচা হামজা (রাঃ) আরেকজন হানজালা (রাঃ)। অস্থির হয়ে পড়েছেন নবীজি। সকল সাহাবিদেরকে পাঠালেন লাশ মোবারক খোজার জন্য।

হঠাৎ বোরখা পড়া এক মহিলা এসে দাঁড়ালেন নবীজির সামনে। মহিলা আরয করলেন; ইয়া রাসুলাল্লাহ স্বাল্লাল্লাহু য়ালাইহি ওয়াসাল্লাম আজ আপনি একটা বিয়ে পড়িয়েছেন? রাসুলাল্লাহ স্বাল্লাল্লাহু য়ালাইহি ওয়াসাল্লাম বলেন; হা আমি তো হানজালা রাঃ বিয়ে পড়িয়েছি। যার বিয়ের খুশিতে আমি খুরমা খেজুর ছিটিয়ে ছিলাম। মহিলা বললেন; ইয়া রাসুলাল্লাহ স্বাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম আমার হাতের মেহেদী এখনও শুকায় নি।

কাল বিকেলে বিয়ে হয়েছে আর রাতে উহুদের যুদ্ধের জন্য বের হয়ে গেছেন হাঞ্জালা রাঃ। বাসর রাতে তার সাথে আমার ভালোভাবে পরিচয়ই হয়নি। যাওয়ার আগে শুধু বলে গেছেন “যদি দেখা হয় তাহলে দেখা হবে দুনিয়ায়, আর যদি শহীদ হয়ে যাই তাহলে দেখা হবে জান্নাতে”। আল্লাহু আকবার

মহিলা বললেন ইয়া রাসুলাল্লাহ স্বাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম যাওয়ার আগে লজ্জায় আমি তাঁকে বলতেও পারিনি যে আপনার জন্য গোসল ফরজ। পেয়ারা নবি উম্মতের কান্ডারী স্বাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম কাদতে লাগলেন।

একজন সাহাবি দৌড়ে এসে বললেন ইয়া রাসুলাল্লাহ স্বাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম হানজালা রাঃ কে পাওয়া গেছে। রাসুলুল্লাহ স্বাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম সেখানে যাওয়ার সময় দুই হাত দিয়ে ভীড় ঠেলে (যদিও পুরা জায়গাই ফাকা ছিলো, সাহাবারা প্রশ্ন করলে নবিজী বলেন যে হানযালা রাঃ কে গোসল দিতে আকাশ থেকে ফেরেশতারা এসেছেন) লাশ মোবারকের কাছে গিয়ে দেখলেন লাশ মোবারকের মাথায় পানি। নবীজি মাথা হাত বুলিয়ে দিলেন।

জিবরাঈল আঃ এসে বললেন ইয়া রাসুলাল্লাহ স্বাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম হানজালার রাঃ কোরবানিতে আল্লাহ্ এতটাই খুশি হয়েছেন যে তিনি ফেরেশতাদের আদেশ করলেন জমজমের পানি দিয়ে গোসল করাতে এবং তাঁর শরীরে যে সুগন্ধ দেখছেন এটি বিশেষ খুসবু মিশক আম্বর আতর যা কাফনের কাপড়ে ঢোকানো হয়েছে। সুবহানআল্লাহ।

আল্লাহু আকবার। হানযালা রাঃ এর কদমে লক্ষ সালাম। কতইনা ভালোবাসতেন তারা আল্লাহ ও তার রাসুল স্বাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামকে। রাসুলের স্বাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম ডাকে বাসর রাতে নিজের নতুন স্ত্রীকে ফেলে দিয়ে যুদ্ধে চলে গেলেন। আল্লাহ তার ভালোবাসার কিছু অংশ আমাদের দান করুন। আমিন।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: