শনিবার, ২৬ মে ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
মিয়ানমারের ওপর অবরোধ আরোপের সুপারিশ কানাডিয়ান দূতের  » «   সালমান খানের সঙ্গে শাকিব খানের তুলনা করলেন পায়েল  » «   বিশ্বকাপ মিশনে নামার আগে মক্কায় পগবা  » «   সিটি নির্বাচনের প্রচারে এমপিরা কি অংশ নিতে পারবেন?  » «   তালিকা অনুযায়ী সবাইকে ধরা হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী  » «   আমজাদ হোসেনের জার্মানি পতাকা এবার সাড়ে পাঁচ কিলোমিটার  » «   ভক্তদের প্রশ্নের জবাব দিয়ে কক্সবাজার ছাড়লেন প্রিয়াঙ্কা  » «   জাপানে বন্ধুর ক্লাবই নতুন ঠিকানা ইনিয়েস্তার  » «   মুক্তামনির মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক  » «   ‘ভারত থেকে এক বালতি পানিও আনতে পারেননি প্রধানমন্ত্রী’-রিজভী  » «   চৌদ্দগ্রামে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মাদক বিক্রেতা নিহত  » «   জবিতে কোটা সংস্কার আন্দোলন নেতার ওপর হামলা  » «   নারীর মন-শরীর নিয়ন্ত্রণ করে পুরুষ আধিপত্য চায়: বিদ্যা  » «   আখাউড়ায় হচ্ছে ইন্টিগ্রেটেড চেকপোস্ট  » «   ২১ ঘণ্টা রোজা রাখছেন ৪ দেশের ধর্মপ্রাণ মুসলমান!  » «  

বাবা করলেন ধর্ষণ, মা জিজ্ঞাস করলেন কেমন লাগলো!



আন্তর্জাতিক ডেস্ক::পরিবারকে ‘অশুভ শক্তি’ থেকে রক্ষা করতেই নিজ মেয়ে (১৫) ও তার দুই বান্ধবীকে ধর্ষণ করেছেন বলে আদালতে স্বীকারোক্তি দিয়েছেন স্পেনের বার্সেলোনা শহরের এক ব্যক্তি। ধর্ষণের জন্য ‘ওডিন’ (পৌরাণিক দেবতা) তাকে নির্দেশনা দিয়েছেন বলে জেভিয়ার জি ডি নামের ওই ব্যক্তি জানান।

গতকাল সোমবার ডেইলি মেইলের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ধর্ষণের সময় ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিলেন জেভিয়ারের স্ত্রীও। মেয়ের ওপর যৌন নির্যাতনে বিরুদ্ধে সে সময় কোনো পদক্ষেপ নেননি তিনি। এমনকি মেয়ে ও তার বান্ধুবীর কাছে কেমন লেগেছে বলে অনুভূতিও জানতে চান ওই নারী।

আদালতে জেভিয়ার জানান, যদি তিনি এই কাজটি না করতেন তবে পরিবারের সদস্যরা অভিশপ্ত হতেন। এদিকে নিজের বাড়িতেও কয়েক দফা কিশোরীদের ধর্ষণ করেছেন বলে প্রতিবেদনে বলা হয়।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, বৃহস্পতিবার আইনজীবীরা জেভিয়ারের ৪৫ বছরের কারাদণ্ডের দাবি করে। এ সময় তার স্ত্রীর নয় বছরের জেলের দাবিও জানান তারা।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: