সোমবার, ১১ নভেম্বর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ২৭ কার্তিক ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
বাবরি মসজিদের রায় দিল যৌন কেলেঙ্কারিতে অভিযুক্ত বিচারপতি!  » «   মিয়ানমারের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক আদালতে মামলা  » «   ভারতে বাংলাদেশের নতুন হাইকমিশনার মুহম্মদ ইমরান  » «   সুলতান মনসুর বেইমান মুনাফিক : মিসবাহ সিরাজ  » «   স্ত্রীকে ভাগিয়ে নিয়ে গেলেন মেয়র, ভয়ে চুপ স্বামী  » «   বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনায় প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন করেছে জেলা যুবলীগ  » «   পাকিস্তানের জাদুঘরে অভিনন্দনের মূর্তি, সোশ্যাল মিডিয়ায় ঝড়  » «   ঘূর্ণিঝড় বুলবুলে তছনছ সাকিবের কাঁকড়ার খামার  » «   টিউলিপের প্রচারণায় লন্ডনের দুয়ারে দুয়ারে সিলেটিরা  » «   বসন্তের কোকিলদের দলে ভেড়াবেন না: ওবায়দুল কাদের  » «   ১৫ বছর পর পাকিস্তান থেকে পেঁয়াজ আনছে বাংলাদেশ  » «   দেশকে এবারও বাঁচিয়ে দিলো সুন্দরবন  » «   ঘূর্ণিঝড়ে ৫ হাজার ঘরবাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত, নিহত ২ : ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী  » «   রিফাত শরিফ হত্যাকাণ্ড: বেরিয়ে এসেছে নতুন তথ্য  » «   ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের তাণ্ডবে লন্ডভন্ড খুলনা, নিহত ১  » «  

‘বাধা দিলে গণধর্ষণ করাতেন স্বামীজি’



আন্তর্জাতিক ডেস্ক::আবারো স্বঘোষিত ধর্মগুরুর বিরুদ্ধে ধর্ষণ ও যৌন নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে ভারতে। উত্তর প্রদেশের বস্তি জেলার সন্ত কুটির আশ্রমের একাধিক সাধুর বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ এনেছেন ওই আশ্রমেরই ৪ সাধ্বী।

জানা গেছে, ওই সাধ্বীরা আশ্রম থেকে কোনক্রমে পালিয়ে জেলা পুলিশ সুপারের দ্বারস্থ হন। সেখানে তারা কীভাবে শিষ্যাদের যৌন নির্যাতন করা হয়, তার অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযুক্তদের মধ্যে, স্বামী সচ্চিদানন্দ সহ-চার সাধুর বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়। অভিযুক্তদের মধ্যে ২ শিষ্যাও রয়েছে। অভিযোগ, অন্য শিষ্যাদের যৌন নির্যাতনে অভিযুক্ত সাধুদের সাহায্য করত তারা।

এ ব্যাপারে নির্যাতিতারা পুলিশকে জানিয়েছেন, বিভিন্ন ভাবে লোভ দেখিয়ে কিশোরী ও যুবতীদের আশ্রমে নিয়ে আসত ওই ২ সাধ্বী। আশ্রমে প্রবেশের পর থেকেই শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন চলত। প্রায় প্রতি রাতেই ধর্ষণ ও যৌন নির্যাতনের শিকার হতে হয় অন্য শিষ্যাদের। বাধা দিলে গণধর্ষণও করা হয়েছে বলে অভিযোগ।

পুলিশ সুপার জানিয়েছেন, ‘সাধ্বীদের শরীরে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তাদের মেডিক্যাল পরীক্ষা করানো হচ্ছে। অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্তে নেমেছে পুলিশ।’

উল্লেখ্য, চলতি বছরেই ২ শিষ্যাকে ধর্ষণের অভিযোগে হাজতবাস হয়েছে স্বঘোষিত ধর্মগুরু গুরমিত সিং।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: