মঙ্গলবার, ২০ অগাস্ট ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ ভাদ্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
এমপি না হয়েও ল্যান্ড ক্রুজারে শুল্কমুক্ত সুবিধা পেলেন মুহিত  » «   খালেদা জিয়ার জামিনের মেয়াদ বাড়ল এক বছর  » «   নবজাতককে মুখে নিয়ে কুকুরের টানাটনি, উদ্ধার করলেন এসআই  » «   নতুন শ্রমবাজার অনুসন্ধানে উদ্যোগী হতে হবে: প্রবাসীকল্যাণমন্ত্রী  » «   জনগণের সংকট উত্তরণে নতুন নির্বাচনের বিকল্প নেই: ফখরুল  » «   পানি বণ্টনের নতুন ফর্মুলা খুঁজছে বাংলাদেশ-ভারত: জয়শঙ্কর  » «   শেখ হাসিনার ছাত্রলীগে জামায়াতি আঁচড়!  » «   অবশেষে ক্ষমা চাইলেন জাকির নায়েক  » «   অপরাধীদের শাস্তি দ্রুত নিশ্চিত না করায় ধর্ষণ বাড়ছে: হাইকোর্ট  » «   সিলেট-ঢাকা মহাসড়কে ‘স্পিড গান’  » «   কমলাপুর রেলওভার ব্রিজের ত্রুটির চিত্র তুলে ধরলেন ব্যারিস্টার সুমন  » «   জিন্দাবাজারে মিললো ২টি গোখরাসহ ৬ বিষধর সাপ  » «   কাশ্মীর ইস্যুতে আলোচনায় বসছেন ট্রাম্প- মোদী!  » «   মাত্র ১০০ মিটার দূরেই শত্রু  » «   অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্থদের পাশে থাকবে সরকার: কাদের  » «  

বাংলাদেশের পতাকার আদলে অন্তর্বাস বিক্রি করছে অ্যামাজন



নিউজ ডেস্ক:: বাংলাদেশের পতাকার আদলে তৈরি বিকিনি, হাফপ্যান্ট, জাঙ্গিয়া বিক্রি করছে যুক্তরাষ্ট্রের ই-কমার্স সাইট অ্যামাজন। যেখানে আইন্যান্স, লিঙমেই, সেটফ্ল্যাগসহ বেশ কয়েকটি প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশের পতাকার আদলে তৈরি অন্তর্বাস ও হাফপ্যান্ট বিক্রির বিজ্ঞাপন দিয়েছে।

সাইটটিতে প্রবেশ করে সার্চ অপশনে ইংরেজিতে ‘বাংলাদেশ ফ্ল্যাগ’ লিখে সার্চ দিলে এসব পণ্যের ছবি দেখা যাচ্ছে। ১৪ থেকে ২৭ ডলারে বিক্রি হচ্ছে এসব অর্ন্তবাস ও হাফপ্যান্ট। অন্তর্বাস সবোর্চ্চ ২৭ দশমিক ৯৯ ডলার ও পুরুষের হাফপ্যান্ট সবোর্চ্চ ২১ দশমিক ৯৯ ডলার মূল্যে বিক্রি হচ্ছে।

এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সমালোচনার ঝড় উঠেছে। বাংলাদেশিরা এর তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছেন নিজেদের ফেসবুকে। বাংলাদেশের জাতীয় পতাকা বিধিমালা-১৯৭২ (সংশোধিত ২০১০)- এ বলা হয়েছে, জাতীয় পতাকাকে পোশাক হিসেবে ব্যবহার করা যাবে না, এমনকি গায়েও জড়িয়ে রাখা যাবে না।

২০১০ সালের সংশোধিত পতাকা বিধিমালায় বলা হয়, জাতীয় পতাকার ব্যবহার বিধি ভঙ্গ করলে সর্বোচ্চ ১ বছরের কারাদণ্ড বা ৫ হাজার টাকা জরিমানা কিংবা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত হবে। এ ক্ষেত্রে বাংলাদেশের পতাকা ও তার নকশা ব্যবহার করে পোশাক তৈরি ও বিপণন দেশের আইনের লঙ্ঘন। ফলে আমাজনের কিংবা ওই প্রতিষ্ঠানগুলোর এ ধরনের কাজ বাংলাদেশের জাতীয় পতাকার অবমাননার পর্যায়ে পড়ে।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: