শনিবার, ২৬ মে ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
মিয়ানমারের ওপর অবরোধ আরোপের সুপারিশ কানাডিয়ান দূতের  » «   সালমান খানের সঙ্গে শাকিব খানের তুলনা করলেন পায়েল  » «   বিশ্বকাপ মিশনে নামার আগে মক্কায় পগবা  » «   সিটি নির্বাচনের প্রচারে এমপিরা কি অংশ নিতে পারবেন?  » «   তালিকা অনুযায়ী সবাইকে ধরা হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী  » «   আমজাদ হোসেনের জার্মানি পতাকা এবার সাড়ে পাঁচ কিলোমিটার  » «   ভক্তদের প্রশ্নের জবাব দিয়ে কক্সবাজার ছাড়লেন প্রিয়াঙ্কা  » «   জাপানে বন্ধুর ক্লাবই নতুন ঠিকানা ইনিয়েস্তার  » «   মুক্তামনির মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক  » «   ‘ভারত থেকে এক বালতি পানিও আনতে পারেননি প্রধানমন্ত্রী’-রিজভী  » «   চৌদ্দগ্রামে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মাদক বিক্রেতা নিহত  » «   জবিতে কোটা সংস্কার আন্দোলন নেতার ওপর হামলা  » «   নারীর মন-শরীর নিয়ন্ত্রণ করে পুরুষ আধিপত্য চায়: বিদ্যা  » «   আখাউড়ায় হচ্ছে ইন্টিগ্রেটেড চেকপোস্ট  » «   ২১ ঘণ্টা রোজা রাখছেন ৪ দেশের ধর্মপ্রাণ মুসলমান!  » «  

বরিশালে নিহত গৃহকর্মীর শরীরে আঘাতের চিহ্ন নেই



barishall20161213220635বরিশালের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট (এডিএম) মো. জাকির হোসেনের বাসায় রহস্যজনক মৃত্যুর শিকার শিশু গৃহকর্মী রাজিয়া খাতুনের (১৩) শরীরে আঘাতের কোনো চিহ্ন পাওয়া যায়নি। মঙ্গলবার বিকেলে বরিশাল শেরে-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে ময়নাতদন্ত শেষে ভিসেরা পরীক্ষার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয় মরদেহের কিছু আলামত।

ওই রিপোর্ট পেলে তার মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যাবে বলে জানিয়েছেন শেরে-ই বাংলা মেডিকেলে কলেজের ফরেনসিক মেডিসিন বিভাগের প্রভাষক ডা. সাগর রায় ।

তিনি জানান, রাজিয়ার গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যার চিহ্ন রয়েছে। এছাড়া তার শরীরের কোথাও কোনো আঘাত কিংবা নির্যাতনের চিহ্ন পাওয়া যায়নি। তারপরও কিছু মরদেহের কিছু আলামত ভিসেরা পরীক্ষার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়েছে।

এদিকে দুপুরে মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে মেয়ের মৃরদেহ নিতে এসে জেলার হিজলা উপজেলার খুন্না গোবিন্দপুর গ্রামের নূর ইসলাম জানান, মেয়ে রাজিয়ার মৃত্যুর ঘটনায় কারো বিরুদ্ধে তার কোনো অভিযোগ নেই। মামলাও করবেন না তিনি।

তবে শিশু রাজিয়ার অস্বাভাবিক মৃত্যুর ঘটনায় মঙ্গলবার সকালে কোতয়ালী মডেল থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা দায়ের করা হয়েছে।

গতকাল সোমবার রাত ১০টার দিকে বরিশালে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট (এডিএম) জাকির হোসেনের নগরীর জর্ডনরোডের ভাড়া বাসায় শিশু গৃহকর্মী রাজিয়ার অস্বাভাবিক মৃত্যু হয়। প্রেমের কারণে সে আত্মহত্যা করেছে বলে দাবি করেন এডিএম। প্রায় সাত বছর ধরে রাজিয়া তার বাসায় গৃহকর্মীর কাজ করে আসছিল। সম্প্রতি ওই এলাকার আরেক বাসার এক গৃহপরিচারক মিলনের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে রাজিয়া। এডিএম’র স্ত্রী রাজিয়ার বাবাকে বিষয়টি জানান এবং দুর্ঘটনা এড়াতে রাজিয়াকে ফিরিয়ে দিতে চান। তখন রাজিয়ার বাবা রাজিয়াকে বাকাঝকা করেন। এরপর ভয়ে রাজিয়া আত্মহত্যা করতে পারে বলে দাবি করেন এডিএম জাকির হোসেন।

 

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: