সোমবার, ১১ নভেম্বর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ২৭ কার্তিক ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
বাবরি মসজিদের রায় দিল যৌন কেলেঙ্কারিতে অভিযুক্ত বিচারপতি!  » «   মিয়ানমারের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক আদালতে মামলা  » «   ভারতে বাংলাদেশের নতুন হাইকমিশনার মুহম্মদ ইমরান  » «   সুলতান মনসুর বেইমান মুনাফিক : মিসবাহ সিরাজ  » «   স্ত্রীকে ভাগিয়ে নিয়ে গেলেন মেয়র, ভয়ে চুপ স্বামী  » «   বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনায় প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন করেছে জেলা যুবলীগ  » «   পাকিস্তানের জাদুঘরে অভিনন্দনের মূর্তি, সোশ্যাল মিডিয়ায় ঝড়  » «   ঘূর্ণিঝড় বুলবুলে তছনছ সাকিবের কাঁকড়ার খামার  » «   টিউলিপের প্রচারণায় লন্ডনের দুয়ারে দুয়ারে সিলেটিরা  » «   বসন্তের কোকিলদের দলে ভেড়াবেন না: ওবায়দুল কাদের  » «   ১৫ বছর পর পাকিস্তান থেকে পেঁয়াজ আনছে বাংলাদেশ  » «   দেশকে এবারও বাঁচিয়ে দিলো সুন্দরবন  » «   ঘূর্ণিঝড়ে ৫ হাজার ঘরবাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত, নিহত ২ : ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী  » «   রিফাত শরিফ হত্যাকাণ্ড: বেরিয়ে এসেছে নতুন তথ্য  » «   ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের তাণ্ডবে লন্ডভন্ড খুলনা, নিহত ১  » «  

বন্ধুর কথায় চাকরীর জন্য অফিসে এসে ধর্ষণের শিকার তরুণী, নির্যাতনের ভিডিও ভাইরাল



আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: বন্ধুর অফিসে ডেকে ছিলেন চাকরি দেয়ার জন্য। কিন্তু সেখানে গিয়ে চাকরি তো হয়নি, বরং নির্মম নির্যাতনের শিকার হতে হয়েছে। নির্মম ওই নির্যাতনের ভিডিও সামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে।খবরে বলা হযেছে, দিল্লির এক পুলিশ কর্মকর্তার ছেলে রোহিত সিংহ তোমর ওই তরুণীকে নিজের এক বন্ধুর অফিসে ডেকে ছিলেন। কিন্তু সেখানে যাওয়ার পর তাকে ধর্ষণ করা হয়।

ধর্ষণের ঘটনা পুলিশকে জানানোর হুমকি দিলে ওই তরুণীর ওপর নির্মম নির্যাতন চালায় রোহিত। চুলের মুঠি ধরে ওই তরুণীকে টেনে নিয়ে গিয়ে তাকে কিল, চড় মারা হয়। তার পেটে লাথিও মারা হয়।করা হয় গালিগালাজ।পরে পুলিশের কাছে লিখিত অভিযোগে ওই তরুণী জানিয়েছেন, রোহিত তাকে ওর বন্ধুর ওই বিপিওতে কাজের জন্য ডেকে পাঠায়। সেখানে গেলে তাকে ধর্ষণ করা হয়। ওই ঘটনার কথা তরুণী পুলিশে জানাবে বলে হুমকি দিলেই রোহিত তাকে মারধর করতে শুরু করে।

পুলিশ জানিয়েছে, ঘটনাটি ঘটে গত ২ সেপ্টেম্বর। ওই দিন বিকালে দিল্লির উত্তম নগর এলাকার একটি বিপিওতে ওই ঘটনা ঘটে। বিপিওটি চালান রোহিতের বন্ধু আলি হাসান। ২১ বছর বয়সী ওই তরুণী ওই বিপিওতে গিয়েছিলেন চাকরির খোঁজে।রোহিতের বাবা দিল্লি পুলিশের (মধ্য) নারকোটিক্স বিভাগের অ্যাসিস্ট্যান্ট সাব-ইন্সপেক্টর অশোক সিংহ তোমর।রোহিতেরই এক বন্ধু গোটা ঘটনার ভিডিও তুলে রাখেন।

সামাজিকমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ওই ভিডিওতে শোনা যাচ্ছে, রোহিতের বন্ধু বলছেন; থামো, থামো, আর মেরো না।ভিডিওটি সামাজিকমাধ্যমে ভাইরাল হয়ে যাওয়ায় বিব্রতকর পরিস্থিতিতে পড়েন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং।তার নির্দেশে শুক্রবার রোহিতকে গ্রেফতার করা হয়। ভারতীয় দণ্ডবিধির ৫০৬ এবং ৩৫৪ নম্বর ধারায় রোহিতের বিরুদ্ধে মামলা রুজু করেছে পুলিশ।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: