শনিবার, ১৮ জানুয়ারী ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ মাঘ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
লন্ডনে দ্বিতীয় জনপ্রিয় ভাষা বাংলা  » «   ঘুষের টাকাসহ হাতেনাতে সাব-রেজিস্ট্রার আটক  » «   আর কোনো হায়েনার দল বাংলার বুকে চেপে বসতে পারবে না  » «   সিলেটে মুক্তিযুদ্ধের পাণ্ডুলিপি সংগ্রহ করলেন প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী  » «   ফের জাতীয় পার্টির ঢাকা জেলা শাখার সভাপতি সালমা ইসলাম এমপি  » «   বিয়ানীবাজারে ৯৯০ পিস ইয়াবাসহ পেশাদার মাদক ব্যবসায়ী আটক  » «   আয়কর দিবস উপলক্ষে সিলেটে বর্ণাঢ্য র‌্যালি  » «   এবার শ্রীমঙ্গলে ট্রেনের ইঞ্জিনে আগুন  » «   বেলজিয়ামে মসজিদে তালা দেওয়ায় বাংলাদেশিদের প্রতিবাদ  » «   পায়রা উড়িয়ে জাতীয় পার্টির ঢাকা জেলা শাখার সম্মেলন উদ্বোধন  » «   ভারতের অর্থনীতির দুরবস্থা, জিডিপি কমে সাড়ে ৪ শতাংশ  » «   পায়রা উড়িয়ে সম্মেলন উদ্বোধন করলেন শেখ হাসিনা  » «   লন্ডন ব্রিজে আবারও সন্ত্রাসী হামলা, নিহত ২  » «   চীন থেকে মা-বাবার জন্য পেঁয়াজ নিয়ে এলেন মেয়ে  » «   রক্তে ভাসছে ইরাক, নিহত ৮২  » «  

বন্দুক দেখিয়ে নাচতে বাধ্য করল পুলিশ!



policeআন্তর্জাতিক ডেস্ক:: কয়েক মাস আগেই দুই বোনকে গণধর্ষণ করে খুনের ঘটনায় দোষীদের তালিকা ‘অলঙ্কৃত’ করেছিল ভারতের উত্তরপ্রদেশ পুলিশের কয়েক কনস্টেবল। এহেন উত্তরপ্রদেশ পুলিশের এক কর্মীর এ বারের কীর্তি প্রশ্ন তুলে দিল, মূখ্যমন্ত্রী অখিলেশ সরকারের প্রশাসনিক স্বচ্ছতা নিয়েই। বার নর্তকীকে বন্দুক ঠেকিয়ে নাচতে বাধ্য করল উত্তরপ্রদেশ পুলিশের এক কনস্টেবল। বুধবার প্রকাশিত ওই ভিডিওটি নিয়ে রীতিমতো চাঞ্চল্য শুরু হয়ে গিয়েছে।
কী হয়েছে?
উত্তরপ্রদেশের শাহরানপুরের ঘটনা। এতে দেখা যায়, শাহরানপুর জেলা পুলিশের এক কনস্টেবল হঠাৎ একটি ড্যান্স বারে ঢুকল। বার-টি তখন সবে বন্ধ হয়েছে। সম্পূর্ণ মদ্যপ অবস্থায় ওই পুলিশকর্মী এক নর্তকীকে হুকুম করে, তার সামনে নাচতে হবে। নর্তকী জানান, বার বন্ধ হয়ে গিয়েছে। তিনি খুব ক্লান্ত। আর নাচতে পারছেন না।
এরপরই রূদ্রমূর্তি ধরে পুলিশকর্মীটি। খাপ থেকে সার্ভিস রিভলবার বের করে নর্তকীর কপালে ঠেকিয়ে বলে, না নাচলে, ট্রিগার টিপে দেব। প্রাণের ভয়ে এরপর কনস্টেবলকে নাচ দেখাতে শুরু করেন ওই নর্তকী। এই ভাবে প্রায় এক ঘণ্টা ওই যুবতীকে নাচতে বাধ্য করে ওই পুলিশ।
উত্তরপ্রদেশ পুলিশ সূত্রের খবর, অভিযুক্ত কনস্টেবলকে সাসপেন্ড করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে তদন্তও শুরু হয়েছে। যদিও বিষয়টি নিয়ে মুখ খুলতে নারাজ রাজ্য পুলিশ।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: