শুক্রবার, ১৫ ফেব্রুয়ারী ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৩ ফাল্গুন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
ভালোবাসা দিবসে সিলেটে ‘জুটির মেলা’  » «   ছেলেকে নকল দিতে গিয়ে বাবা আটক  » «   সড়কের বিপজ্জনক খুঁটি সরাতে হবে ৬০ দিনের মধ্যে  » «   মুক্তি ভবন: যে হোটেলে শুধু মরার জন্য যায় মানুষ  » «   ইজতেমায় দায়িত্বশীলদের ব্যর্থতা বরদাশত করা হবে না: র‍্যাব ডিজি  » «   সিরিয়া ইস্যুতে বৈঠকে বসছে রাশিয়া, তুরস্ক ও ইরান  » «   হাসপাতালে গিয়ে সিরিয়ালের জন্য অপেক্ষা করলেন অর্থমন্ত্রী লোটাস কামাল!  » «   তুরাগ তীরে আগামীকাল ইজতেমা শুরু, প্রস্তুত লাখো মুসল্লি  » «   বাংলাদেশের প্রতি সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে: জাপানের রাষ্ট্রদূত  » «   আবারো মিয়ানমারের মানচিত্রে সেন্ট মার্টিন্স, রাষ্ট্রদূতকে তলব  » «   ১৪ ফেব্রুয়ারি ‘স্বৈরাচার প্রতিরোধ দিবস’, কী ঘটেছিল সেদিন ঢাকায়?  » «   সৌদি নারীদের নিয়ন্ত্রণে অ্যাপ, তদন্ত করবে অ্যাপল  » «   কোনো আপস করার প্রয়োজন নেই, রিটার্নিং কর্মকর্তাদের সিইসি  » «   জার্মানির উদ্দেশে ঢাকা ছেড়েছেন প্রধানমন্ত্রী  » «   আজ থেকে শুরু হজের নিবন্ধন, চলবে ১০ মার্চ পর্যন্ত  » «  

বনে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে সংঘর্ষে ১১ সিংহের মৃত্যু



আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: এলাকার আধিপত্য নিয়ে মানুষের মধ্যে সংঘর্ষ ও প্রাণহানীর ঘটনা এখন নিত্যদিনের ব্যাপার। কিন্তু এ হানাহানীর ঊর্ধ্বে নয় পশুরাও। সম্প্রতি গুজরাটের ‘গির’ নামক একটি বনে নিজেদের মধ্যেকার দ্বন্দ্ব ও এলাকা দখলে নিতে দু’দল সিংহের সংঘর্ষে মাত্র ৮ দিনে ১১ সিংহের মৃত্যু হয়েছে।ডালখানিয়া ও যশধর ফরেস্ট রেঞ্জ কর্তৃপক্ষ গত ১২ থেকে ১৯ সেপ্টেম্ব পর্যন্ত এটি লক্ষ্য করেন। এ পর্যন্ত ওই বনে ২টি সিংহ, ৩টি সিংহী, ৬টি সিংহ শাবকের দেহ মিলেছে।

গত শুক্রবার গুজরাট সরকার এটি নিয়ে তদন্তে নামে। প্রথমে এটা চোরাশিকারের কাণ্ড বলে মনে করা হলেও তদন্তের রিপোর্টে দেখা যায়, নিজেদের মধ্যে দ্বন্দ্ব ও এলাকা দখলের লড়াই করতে গিয়েই ওই বনে এতগুলো সিংহ ও শাবক মারা গেছে।রিপোর্ট অনুযায়ী, চোরাশিকার বা কোনো ধরনের ভাইরাসের সংক্রমণে নয় বরং নিজেদের মধ্যে এলাকা দখলের লড়াই করতে গিয়েই এতগুলো সিংহ মারা গেছে। তবে এটা একেবারে অস্বাভাবিক নয় বলে রিপোর্টে উল্লেখ করেছেন বন বিভাগের কর্মকর্তা জিকে সিনহা।

জানা গেছে, ডালখানিয়ে রেঞ্জে একসময় ৩৭টি সিংহ ছিল। তারমধ্যে এতগুলো সিংহ মারা গেছে। এদের মধ্যে ৮টি সিংহের দেহ ময়নাতদন্ত করা হয়েছে। বাকি তিনটি দেহ ছিন্নভিন্ন অবস্থায় উদ্ধার হয়েছে। দুটি সিংহের গোষ্ঠীর মধ্যে লড়াইয়ে এই ঘটনা ঘটেছে বলে জানা গেছে।প্রসঙ্গত, ২০১৫ সালের সুমারি অনুযায়ী গির নামক ওই বনে ৫২০টি সিংহ ছিল।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: