সোমবার, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৩ পৌষ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
সিলেটে বিএনপি নেতাকর্মীদের মারধর ও ধরপাকড়ের অভিযোগ  » «   আটকে রেখে তিন সাংবাদিককে পেটালো বুয়েট ছাত্রলীগ  » «   সিরিয়ায় মসজিদ ধ্বংস করল মার্কিন জোট  » «   বাবার স্বপ্ন পূরণে বড় চাকরি ছেড়ে আপনাদের সেবায় এসেছি: রেজা কিবরিয়া  » «     » «   নির্বাচনে ‘সংঘাত’ একেবারে উড়িয়ে দেওয়া যায় না: সিইসি  » «   জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের ২৫ সদস্যের সমন্বয়ক কমিটি  » «   আফগানিস্তানে মার্কিন বিমান হামলায় ১২ শিশুসহ নিহত ২০  » «   মহান বিজয় দিবসে জাতীয় স্মৃতিসৌধে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা  » «   চমক থাকছে আওয়ামী লীগের নির্বাচনী ইশতেহারে  » «   দুই-তিন দিনের মধ্যে ইসিতে যাবে বিএনপি  » «   কাদের সিদ্দিকী রাজাকার, বদমাইশ : মির্জা আজম  » «   নির্বাচনের ৭ দিন আগে ব্যালট পৌঁছে যাবে: ইসি সচিব  » «   রাষ্ট্রপতির সঙ্গে দেখা করতে চান ড. কামাল  » «   যুক্তরাষ্ট্র-অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ড কানাডায় বোমা হামলার হুমকি  » «  

বইমেলায় আমিরাত প্রবাসী লুৎফুর রহমানের লাল সবুজের ছড়া



বইমেলায় আমিরাত প্রবাসী লুৎফুর রহমানের লাল সবুজের ছড়া

সংযুক্ত আরব আমিরাত প্রবাসী লেখক ও সাংবাদিক লুৎফুর রহমানের সিলেট বিভাগের গণহত্যা নিয়ে রচিত ‘লাল সবুজের ছড়া’ অমর একুশে বইমেলা ২০১৭-তে পাওয়া যাচ্ছে। বইটি মেলায় লিটলম্যাগ চত্বরে এবং ৫৪৮ নং স্টলে পাওয়া যাচ্ছে। এছাড়া সিলেটে জসিম বুক হাউস এবং অনলাইনে রকমারি ডটকম থেকেও পাওয়া যাবে।

বইটি সম্পর্কে ছড়াকার লুৎফুর রহমান জানান, আমি মুক্তিযুদ্ধ দেখিনি, তবে আমি বাঙালির শ্রেষ্ঠ সন্তান মুক্তিযোদ্ধাদের দেখেছি। কিন্তু আমার পরবর্তী প্রজন্ম জীবিত মুক্তিযোদ্ধাও দেখবে না। অনেকে জানবে না তাদের পাশের বাড়ির বীর মুক্তিযোদ্ধার শহীদ হওয়ার ঘটনা কিংবা জানবে না এলাকার কোন কুখ্যাত রাজাকারের সহযোগিতায় গণহত্যার নির্মম ইতিহাস রচনা হয়েছিল।

বইটি প্রকাশ করেছেন সমছুল-করিমা ফাউন্ডেশনের নির্বাহী, বিলেতবাসী কবি- সাংবাদিক আনোয়ারুল ইসলাম অভি। প্রচ্ছদ করেছেন ধ্রুব এষ। ভূমিকা লিখেছেন লুৎফর রহমান রিটন। বইটির শেষাংশে সিলেট বিভাগের মুক্তিযুদ্ধের তৃণমূল স্মৃতি চিহ্ন প্রকাশ করা হয়েছে।

ছড়াকার লুৎফুর রহমান আরো জানান, নতুন প্রজন্মকে এই ইতিহাসগুলো সহজে ঠোঁটস্থ আর মুখস্থ রাখার জন্য ছড়ামাধ্যমকে ব্যবহার করেছি। মূল ঘটনা ঠিক রাখতে অনেক জায়গায় ছড়া দুর্বল হলেও স্পষ্টতায় ঘটনাকে প্রাধান্য দিতে চেষ্টা করেছি।

আমার বিশ্বাস- বইটি আজকের প্রজন্মকে একদিন মুক্তিযুদ্ধ ও মুক্তিযোদ্ধার ইতিহাসের সন্ধানে সাহায্য করবে। আমার জানামতে কোন বৃহৎ অঞ্চলের গণহত্যার ইতিহাস ছড়ায় ছড়ায় এটি প্রথম বই।

বইটি উৎসর্গ করা হয়েছে একাত্তরের কিশোর মাহমুদ আলী এবং একাত্তরের কিশোরী দিলারা বেগমকে, স্বত্ব দেয়া হয়েছে বর্ণমালা-কে।

 

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: