বুধবার, ১৯ ডিসেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ পৌষ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
হিরো আলম পর্যন্ত ইসিকে হাইকোর্ট দেখায়, বোঝেন অবস্থা: ইসি সচিব  » «   কূটনীতিকদের সঙ্গে রুদ্ধদ্বার বৈঠকে ঐক্যফ্রন্ট  » «   নির্বাচনের সময় ব্যাংক বন্ধ থাকবে ৪ দিন  » «   একজন নির্বাচন কমিশনার কী বললেন দেখার বিষয় নয় : কাদের  » «   সিইসির বক্তব্যের প্রতিবাদ জানালেন মাহবুব তালুকদার  » «   সাহস থাকলে আমাকে গ্রেপ্তার করুন: ড. কামাল  » «   ভোটের দিন নেটের গতি কমানোর কথা ভাবছে ইসি  » «   আমরণ অনশন: হাসপাতালে লতিফ সিদ্দিকী  » «   লুনার প্রার্থিতা স্থগিতে ভাগ্য খুলেছে মুনতাসির-মুকাব্বিরের  » «   সু চির পুরস্কার ফিরিয়ে নিচ্ছে দক্ষিণ কোরীয় ফাউন্ডেশন  » «   তরুণ ও যুবকদের জন্য যে চমক আ. লীগ-বিএনপির ইশতেহারে  » «   নারায়ণগঞ্জে গ্যাসের আগুনে একই পরিবারের ৯ জন দগ্ধ  » «   আমার কিছু হলে দায়ী আপনারা মামা-ভাগ্নে: সিইসিকে গোলাম মাওলা রনি  » «   ভুলভ্রান্তি হলে ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন: শেখ হাসিনা  » «   মাহবুব তালুকদারের বক্তব্য অসত্য: সিইসি  » «  

ফের ৭৪১ জনকে হত্যা করেছে আইএস



আর্ন্তজাতিক ডেস্ক ::
ইরাকের দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর মসুল মুক্তির চূড়ান্ত লড়াইয়ের সময় ৭৪১ জন বেসামরিক ব্যক্তিকে গলা কেটে কিংবা গুলি করে হত্যা করেছে উগ্র সন্ত্রাসী গোষ্ঠী দায়েশ। জাতিসংঘ মানবাধিকার কার্যালয় থেকে বৃহস্পতিবার প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

ওই প্রতিবেদনে আরো বলা হয়েছে, মসুল শহরে মোট দু হাজার ৫২১ জন বেসামরিক নাগরিক মারা গেছে যাদের বেশিরভাগই দায়েশের হামলায় নিহত হয়েছে। মসুলে এসব সন্ত্রাসী আন্তর্জাতিক অপরাধ করেছে বলেও মন্তব্য করেছে জাতিসংঘ।

জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক হাইকমিশনার জেইদ রাদ আল-হোসেইন বলেন, “এ ধরনের ঘৃণ্য অপরাধের সঙ্গে জড়িতদেরকে অবশ্যই জবাবদিহি করতে হবে।” গত ১০ জুলাই ইরাকের প্রধানমন্ত্রী হায়দার আল-এবাদি আনুষ্ঠানিকভাবে মুসল শহরে উগ্র দায়েশ সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে সরকারি বাহিনীর বিজয় ঘোষণা করেন। পরাজয়ের আগ পর্যন্ত ইরাকে মসুল ছিল দায়েশের প্রধান ঘাঁটি।

জাতিসংঘ তার প্রতিবেদনে আরো বলেছে, মসুল লড়াইয়ের সময় সন্ত্রাসীরা গণভাবে বেসামরিক লোকজনকে অপহরণ করে মানবঢাল হিসেবে ব্যবহার করেছে। এর পাশাপাশি যেসব মানুষ শহর থেকে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেছে তাদের ওপর নির্বিচারে গোলাবর্ষণ করেছে। মসুল শহর উদ্ধার অভিযানের সময় আট লাখ মানুষ উদ্বাস্তু হয়েছে বলেও জাতিসংঘ মানবাধিকার কমিশন জানিয়েছে।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: