শুক্রবার, ২৪ নভেম্বর ২০১৭ খ্রীষ্টাব্দ | ১০ অগ্রহায়ণ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
অবশেষে বিপিএলে মাঠে নামছেন মোস্তাফিজ!  » «   ‘গণতন্ত্র অব্যাহত রাখায় অবদান রাখবে সেনাবাহিনী’  » «   সৌদিতে লিফট ছিঁড়ে আহত যুবকের মৃত্যু  » «   নায়করাজই আমাকে তার জীবনী লিখতে বলেছিলেন : ছটকু আহমেদ  » «   জীবনের শেষ চিঠিতে যা লিখে গেলেন এই তরুণী!  » «   ঝরে পড়ার হার অনেক কমেছে: শিক্ষামন্ত্রী  » «   বাংলাদেশ-বার্মা সমঝোতা ২ মাসের মধ্যে বাড়ি ফিরতে শুরু করবে রোহিঙ্গারা  » «   অল্প সময়ের মধ্যেই প্রধান বিচারপতি নিয়োগ দেবেন রাষ্ট্রপতি  » «   আ’লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে আহত ১০  » «   বৃহস্পতিবার সারা দেশে হরতাল  » «   মাদকদ্রব্য বহনকারী প্রাইভেটকার চাপায় নিহত ১  » «   স্কুলজীবনে দেখতে যেমন ছিলেন মিস ওয়ার্ল্ড মানুসী  » «   ইভটিজিং এর প্রতিবাদ করায় হাসপাতালে বাবা ও চাচা  » «   হেলিকপ্টারে উড়ে চট্টগ্রামে মাশরাফি  » «   মাইক্রোবাসের ধাক্কায় প্রাণ গেল তিন মোটরসাইকেল আরোহীর  » «  

ফের সময় পেল রাষ্ট্রপক্ষ‘সরকার এবং প্রধান বিচারপতির মধ্যে ব্রিজ অ্যাটর্নি জেনারেল’



নিউজ ডেস্ক::নিম্ন আদালতের বিচারকদের চাকরির শৃঙ্খলাসংক্রান্ত বিধিমালা গেজেট আকারে প্রকাশ করতে সরকারকে আরো এক সপ্তাহ সময় দিয়েছেন আপিল বিভাগ। সকালে গেজেট প্রকাশে রাষ্ট্রপক্ষের সময় আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার নেতৃত্বাধীন ছয় বিচারপতির আপিল বেঞ্চ এই আদেশ দেন। রাষ্ট্রপক্ষে সময় আবেদন করেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম।

অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলমকে উদ্দেশ্য করে প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা বলেন, ‘সব সময় মনে রাখবেন সরকার এবং প্রধান বিচারপতির মধ্যে ব্রিজ হল অ্যাটর্নি জেনারেল।’ এ সময় অ্যাটর্নি জেনারেল গেজেট প্রকাশে দুই সপ্তাহের সময় আবেদন করলে প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বাধীন ছয় বিচারপতির আপিল বেঞ্চ এক সপ্তাহ সময় মঞ্জুর করেন।

গতকাল প্রধান বিচারপতির সঙ্গে বৈঠক শেষে আইনমন্ত্রী বলেছেন, ‘আগামী বৃহস্পতিবারে নিম্ন আদালতের বিচারকদের চাকরির শৃঙ্খলাসংক্রান্ত বিধিমালা গেজেট চূড়ান্ত হবে।’

এর আগেও গেজেট প্রকাশে কয়েক দফা সময় নেয় সরকার। নিম্ন আদালতের বিচারকদের চাকরির শৃঙ্খলাসংক্রান্ত বিধিমালা প্রণয়ন না করায় আইন মন্ত্রণালয়ের দুই সচিবকে ১২ ডিসেম্বর তলবও করেন আপিল বিভাগ।

গত বছরের ৭ নভেম্বর বিচারকদের চাকরির শৃঙ্খলাসংক্রান্ত বিধিমালা ২৪ নভেম্বরের মধ্যে গেজেট আকারে প্রণয়ন করতে সরকারকে নির্দেশ দিয়েছিলেন আপিল বিভাগ। ১৯৯৯ সালের ২ ডিসেম্বর মাসদার হোসেন মামলায় ১২ দফা নির্দেশনা দিয়ে রায় দেওয়া হয়। ওই রায়ের আলোকে নিন্ম আদালতের বিচারকদের চাকরির শৃঙ্খলাসংক্রান্ত বিধিমালা প্রণয়নের নির্দেশনা ছিল

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: