মঙ্গলবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৩ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
বুধবার সিলেটে সংস্কারকৃত শিশু আদালতের উদ্বোধন  » «   আজ হবিগঞ্জের লাখাই কৃষ্ণপুর গণহত্যা দিবস  » «   বুধবার মৌলভীবাজারে অর্ধদিবস হরতালের ডাক, প্রতিহতের ঘোষণা আ. লীগের  » «   গোলাপগঞ্জ পৌরসভা মেয়র উপ-নির্বাচন: প্রতীক বরাদ্দ আজ  » «   কারগারে মালির কাজ করছেন রাগীব আলী, ডিভিশনের আবেদন  » «   ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার রায় ১০ অক্টোবর  » «   কোটা ইস্যুতে আন্দোলনকারী ও ছাত্রলীগের পাল্টাপাল্টি মিছিল  » «   আশুরা উপলক্ষে সুনির্দিষ্ট হুমকি নেই: ডিএমপি কমিশনার  » «   একনেকে অনুমোদন পেলো ইভিএম কেনা প্রকল্প  » «   জাতীয় নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা বন্ধের নির্দেশনা চেয়ে রিট  » «   ৫৬৮ কেজির লাড্ডু দিয়ে পালিত হল মোদির জন্মদিন  » «   দেশের সব নাগরিককে অধিকার রক্ষায় সক্রিয় হতে হবে-ড. কামাল  » «   ঐতিহাসিক পিয়ংইয়ং সফরে সস্ত্রীক প্রেসিডেন্ট মুন  » «   ২০১৭-১৮ অর্থবছরে জিডিপির প্রবৃদ্ধি ৭.৮৬%  » «   মাদরাসা শিক্ষকের স্ত্রী ও ছাত্রকে গলাকেটে হত্যা  » «  

‘প্লেনের বাম সাইডটি আছড়ে পড়ে প্রথমে’



প্লেনের বাম দিকে যারা ছিল তারাই বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। কারণ প্লেনটির বাম দিক প্রথমে মাটির ওপর আছড়ে পড়ে। আমি ছিলাম ডান দিকের তিন নম্বর সারিতে।’ কথাগুলো বলছিলেন নেপালের ত্রিভুবন বিমানবন্দরে বিধ্বস্ত প্লেন থেকে বেঁচে ফেরা অাশিস রণজিৎ।

রণজিৎ বর্তমানে নেপালের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। স্থানীয় একটি সংবাদমাধ্যমকে দেয়া সাক্ষাৎকারে তিনি এসব কথা জানান।

প্লেন আছড়ে পড়ার ভয়ঙ্কর ঘটনা বর্ণনা করতে গিয়ে তিনি বলেন, ‘আমি অনেক সৌভাগ্যবান। এই ঘটনার আগে প্লেনটি ভয়ানকভাবে কাঁপছিল। আমি ভয় পেয়েছিলাম আর বিমানবালাকে ডাকছিলাম। এ সময় একজন বিমানবালা তার সিট থেকে ইশারায় আমাকে জানাল ভয়ের কিছু নেই। এ সময় হঠাৎ প্লেনের গতি বেড়ে যায়। হঠাৎ বিকট আওয়াজ। যখন আমার জ্ঞান ফেরে তখন দেখি প্লেনে আগুন ধরে গিয়েছে। এ সময় অনেকে অজ্ঞান হয়ে পড়েছিল আবার অনেকে চিৎকার করছিল। তাৎক্ষণিক আমি আমার সিটবেল্ট খুলে ফেলি এবং আমার যে বন্ধুর জ্ঞান ছিল সে আর আমি প্লেন থেকে লাফ দেই। আমরা বেঁচে যাই।’

এদিকে হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, এই দুর্ঘটনায় রণজিৎ তার হাতে ব্যথা পেয়েছেন; এ ছাড়া তার বড় ধরনের কোনো ক্ষতি হয়নি।

উল্লেখ্য, গত ১২ মার্চ সোমবার ৭১ জন আরোহী নিয়ে ঢাকা থেকে রওনা হয়ে কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন বিমানবন্দরে অবতরণের সময় দুপুরে বিধ্বস্ত হয় ইউএস-বাংলার যাত্রীবাহী প্লেন। এতে প্রাণ হারান ৫১ জন। যাত্রীদের মধ্যে ৩৩ জন নেপালি, ৩২ জন বাংলাদেশি, মালদ্বীপের দুজন ও চীনের একজন নাগরিক ছিলেন।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: