শনিবার, ২৫ নভেম্বর ২০১৭ খ্রীষ্টাব্দ | ১১ অগ্রহায়ণ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
‘অন্তরঙ্গ দৃশ্য প্রয়োজন ছিল তাই করেছি’  » «   মিশরে জুমার নামাজে হামলা, নিহত ৫৪  » «   কুবিতে বিজ্ঞাপনের গেইট, শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের ক্ষোভ  » «   কুমিল্লায় যুবককে হত্যা, সাবেক ছাত্রলীগ নেতাসহ আটক ২  » «   ট্রাকের সঙ্গে সংঘর্ষে ট্রেনচালক নিহত  » «   ভুল চিকিৎসায় মা ও নবজাতকের মৃত্যু, ডাক্তার পলাতক  » «   বারী সিদ্দিকীর মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক  » «   আজ থেকে বিপিএল উৎসব চট্টগ্রামে  » «   সম্ভাব্য মেয়র প্রার্থী বদরুজ্জামান সেলিমের সমর্থনে যুক্তরাজ্যে মতবিনিময়  » «   রুশ বিপ্লবের শতবর্ষে ওয়ার্কার্স পার্টির লাল পতাকা মিছিল  » «   গাছ ভর্তি ট্রাক জব্দ  » «   গোপালগঞ্জে প্রতিপক্ষের হামলায় কৃষকের মৃত্যু  » «   কমলগঞ্জে বর্ণাঢ্য আয়োজনে খাসি (খাসিয়া) বর্ষ বিদায় উৎসব পালন  » «   জেনে নিন মিস ওয়ার্ল্ড মানুসীর ডায়েট প্লান!  » «   ধর্ষণের শিকার হয়ে পাঁচ শিক্ষার্থীর পড়াশোনা বন্ধ!  » «  

প্রেসক্লা‌বে মোশাররফ‘আওয়ামী লী‌গের সময় শেষ’



নিউজ ডেস্ক::আওয়ামী লী‌গের সময় শেষ হ‌য়ে গে‌ছে, তা‌দের‌কে দে‌শের জনগণ আর ক্ষমতায় দেখ‌তে চায় না বলে মন্তব্য করেছেন বিএন‌পির স্থায়ী ক‌মি‌টির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হো‌সেন।

তিনি বলেন, সমা‌বেশ থে‌কে বার্তা দেওয়া হ‌য়ে‌ছে যে, এই সরকা‌রের দিন শেষ।

মঙ্গলবার (১৪ নভেম্বর) জাতীয় প্রেসক্লা‌বের আয়োজিত এক আলোচনা সভায় তি‌নি এসব কথা বলেন। “জাতীয় বিপ্লর ও সংহ‌তি দিবস” উপল‌ক্ষে এ আলোচনা সভার আ‌য়োজন ক‌রে বাংলা‌দেশ জাতীয়তাবাদী কৃষক দল।

খন্দকার মোশাররফ হোসেন ব‌লেন, ‘সমা‌বে‌শের অনুম‌তি আপনারা এত‌দিন দেন নাই, আপনারা স্বৈরাচারী আচরণ ক‌রে‌ছেন। তবুও যারা আসার, তারা পা‌য়ে‌ হেঁটে চ‌লে এসে‌ছে। সমা‌বেশ থে‌কে বার্তা দেয়া হ‌য়ে‌ছে যে, এই সরকা‌রের দিন শেষ! আওয়ামী লী‌গের সময় শেষ হ‌য়ে গে‌ছে। তা‌দের‌কে দে‌শের জনগণ আর ক্ষমতায় দেখ‌তে চায় না।

তিনি ব‌লেন, ‘৭ই ন‌ভেম্ব‌রের যে ঘটনা, সে ঘটনা‌কে বিকৃত ক‌রে এক‌টি‌ মহল সু‌বিধা নি‌চ্ছে। আমা‌দের জা‌তিস্বত্তার প‌রিচয় আমরা বাংলা‌দেশী, ভার‌তের একটা অং‌শে অনেকেই বাঙালি, আমা‌দের স‌ঠিক প‌রিচয় তু‌লে ধ‌রে‌ছেন জিয়াউর রহমান।ধর্মনিরপেক্ষতার না‌মে যে ধর্মহীনতা তা জিয়াউর রহমান দূরীভূত করার পদ‌ক্ষেপ নেন।’

বিএনপির এই সিনিয়র নেতা ব‌লেন, ”একজন মন্ত্রী ব‌লে‌ছেন” ‘তি‌নি না‌কি জিয়াউর রহমা‌নের নামই জা‌নেন না”। ২৬ শে মা‌র্চের আগে জিয়াউর রহমা‌নের নাম কেউ জান‌তো না, তার মা‌নে কি? জিয়াউর রহমা‌নের ভূ‌মিকার কারণেই তাঁ‌কে সবাই চিনে। গণতন্ত্র‌কে পুনরুদ্ধার ক‌রে‌ছিল কে? জিয়াউর রহমান, তাহ‌লে বাকশাল হত্যা ক‌রে‌ছিল কে? এজন্যই আওয়ামী লীগ নেতা ক্ষেপা।’

একই আলোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্যে বিএন‌পির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু ব‌লে‌ন, আওয়ামী লী‌গের অপশাস‌নেই ৭ই ন‌ভেম্বরের সৃ‌ষ্টি, য‌দি জিয়াউর রহমান য‌দি সে‌দিন ঘোষণা‌ দি‌তেন, আরো ভয়াবহ অবস্থার সৃ‌ষ্টি। গুম খুন অপহরণ য‌দি বন্ধ কর‌তে হয়, তাহ‌লে বেগম খা‌লেদা জিয়াকে প্রধানমন্ত্রী কর‌তে হ‌বে। কেমনভা‌বে কর‌বো? বর্তমান নিয়‌মে না হ‌লে, ৯১, ৯৬, ২০০১ চাই‌লে ২০০৮ এর ম‌তো কর‌বো। তবুও আওয়ামী লী‌গের অধী‌নে হ‌বে না। তা‌দের অধী‌নে নির্বাচ‌নে যা‌বো ঠেকা পর‌ছে না‌কি? আমরা এবার আন্দোলন কত প্রকার কি কি দে‌খি‌য়ে দে‌বো।

এ সময় আলো উপ‌স্থিত ছি‌লেন, ‌বিএন‌পি চেয়ারপারস‌নের উপ‌দেষ্টা আতাউর রহমান ঢালী, যুগ্ম মহাস‌চিব সৈয়দ মোয়া‌জ্জেম হো‌সেন আলাল, দেশ বাঁচাও মানুষ বাঁচাও আন্দোলনের সভাপতি কে এম রকিবুল ইসলাম রিপন প্রমুখ।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: