সোমবার, ২৬ অগাস্ট ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ১১ ভাদ্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
দালালদের দেখানো ‘সোনার হরিণ’ থেকে সতর্ক থাকতে হবে: প্রধানমন্ত্রী  » «   পানি ছেড়ে ভারতকে ডোবাচ্ছে পাকিস্তান  » «   শুধু ডিসি নয় ওই নারীকেও আইনের আওতায় আনা হবে: জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী  » «   রোহিঙ্গা ইস্যুতে মিয়ানমারের ওপর চাপ সহ্য করবে না চীন  » «   ছাতকে ছুরিকাঘাতে তৃতীয় শ্রেণির ছাত্র নিহত, আটক ১  » «   সৌদিতে আরো এক হাজির মৃত্যু, মৃতের সংখ্যা ১০০ ছাড়াল  » «   মহানবীর নামে ইউরোপে সবচেয়ে বড় মসজিদ উদ্বোধন  » «   সিন্ডিকেটে লোপাট হচ্ছে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কোটি কোটি টাকা  » «   খাসদবিরে আবাসিক হোটেল থেকে মাদ্রাসা শিক্ষকের লাশ উদ্ধার  » «   হঠাৎ রুমিন ফারহানাকে নিয়ে বিএনপিতে সমালোচনার ঝড়  » «   সৌদিতে সড়কে ঝরলো ৪ বাংলাদেশির প্রাণ  » «   অ্যামাজন বন পুড়ছে কেন! নেপথ্যে যে রহস্য  » «   দেশে বঙ্গবন্ধুর আদর্শের উল্টো কাজ হচ্ছে: ড. কামাল  » «   ভারতের সাবেক অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি আর নেই  » «   লাইভে এসে প্রবাসীদের পা ছুঁয়ে সালাম করতে চাইলেন ব্যারিস্টার সুমন  » «  

প্রেমের স্বীকৃতি পেতে প্রেমিকের বাসাতে প্রেমিকার আত্মহত্যা



1. attohttaনিউজ ডেস্ক::
পাবনার চাটমোহরে প্রেমের স্বীকৃতি পেতে লিজা (২২) নামের এক যুবতী মেয়ে তার প্রেমিকের বাসায় আত্মহত্যা করেছে। রোববার সকাল ১০ টার দিকে চাটমোহর পৌর সদরের কাজীপাড়া এলাকা থেকে যুবতীর লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। নিহত লিজা নাটোর জেলার লালপুর গেরিলাবাড়ি গ্রামের নিজাম উদ্দিনের মেয়ে।

এ ঘটনায় লিজার প্রেমিক পৌর এলাকার আজাহার আলীর ছেলে সুজন (২৪) কে আটক করেছে পুলিশ। তবে তার বাবা মা পলাতক রয়েছে বলে স্থানীয়রা জানান। চাটমোহর থানা সূত্রে জানা গেছে, নাটোরের লালপুর থানার গেরিলাবাড়ি গ্রামের নিজাম উদ্দিনের মেয়ে লিজার সাথে মোবাইল ফোনে সুজনের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে।

শনিবার প্রেমের টানে লিজা চাটমোহরে চলে আসলে সারা দিন তার সাথে ঘুরে ফিরে বিকেলে তাকে বাড়িতে চলে যাবার জন্য সুজন তাকে জানায়। লিজা আর বাড়ি যাবেনা বলে সুজনকে জানিয়ে দেয়। চাটমোহর বাসষ্ট্যান্ড এলাকা থেকে সে আবার ফিরে আসে। বাধ্য হয়ে সুজন তাকে বাড়িতে নিয়ে যায়।

প্রেমিক সুজন লিজার সাথে সম্পর্কের কথা স্বীকার করে জানান, রাতে ঘুমের বড়ি সেবন করে এবং সবার অগোচরে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে সে আত্মহত্যা করেছে।

এলাকাবাসী জানান, মেয়েটিকে গত ২ দিন যাবত কাজীপাড়া ও বাসষ্ট্যান্ড এলাকায় দেখা গেছে। অনেকের ধারণা সুজন মেয়েটিকে ২ দিন যাবত তার হেফাজতে রেখেছিল। রবিবার সকালে লিজার মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পরলে এলাকাবাসী সুজনকে আটক করে পুলিশে দেয়। বর্তমানে সুজনের বাবা মা পলাতক রয়েছে। এটি পরিকল্পিত হত্যাকান্ড হতে পারে বলে স্থানীয়রা জানান।

এ ব্যাপারে চাটমোহর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সুব্রত কুমার সরকার বলেন, আপাতত এটিকে আত্মহত্যা বলে মনে হচ্ছে। লাশ পোষ্ট মার্টেমের জন্য পাবনা মেডিকেলে পাঠানো হয়েছে। রিপোর্ট পেলে বিস্তারিত জানা যাবে। এব্যাপারে থানায় একটি ইউডি মামলা হয়েছে।-বিডি২৪

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: