রবিবার, ২১ জুলাই ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৬ শ্রাবণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
চরমভাবে অবহেলিত প্রাথমিক শিক্ষা ও শিক্ষকরা  » «   এমপিও শিক্ষকদের বেতন দিচ্ছে না ব্যাংক!  » «   ইসরাইলের মরুভূমিতে ১২০০ বছরের পুরোনো মসজিদের খোঁজ  » «   জনসমাগম দেখলেই আতঙ্কে ভোগে আ’লীগ সরকার: ফখরুল  » «   ছেলেধরা সন্দেহে গণপিটুনিতে ঢাকা-নারায়ণগঞ্জে নিহত ২  » «   দুর্নীতি শব্দটি কীভাবে আসলো আই হ্যাভ নো আইডিয়া: ইকবাল মাহমুদ  » «   সেই প্রিয়া সাহাকে নিয়ে মিললো চাঞ্চল্যকর তথ্য  » «   লবণ সংকটে কোরবানির চামড়া নিয়ে উদ্বেগ  » «   দেশদ্রোহী হিসেবে প্রিয়ার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে: সেতুমন্ত্রী  » «   মিন্নিকে আইনি সহায়তা দিতে ঢাকা থেকে ৪০ আইনজীবী যাচ্ছেন বরগুনায়!  » «   আলো-পানি ছাড়াই রাত কাটল আটক প্রিয়াঙ্কার  » «   মক্কা-মদিনায় ফ্রি ইন্টারনেট ও সিম পাচ্ছেন হাজিরা!  » «   পানিতে সাপের কামড়ে মৃত্যু ,পানিতেই জানাজা-দাফন  » «   নেত্রকোনায় শিশুর কাটা মাথা কাণ্ডে যা জানলো পুলিশ  » «   লন্ডনে পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী, আজ দূত সম্মেলন  » «  

প্রেমের টানে স্বামী-সংসার ফেলে খুলনায় জার্মান নারী



নিউজ ডেস্ক:: এবার বাংলাদেশি যুবকের প্রেমের টানে খুলনায় ছুটে এসেছেন জার্মান নারী। অ্যাসটিট ক্রিস্টিয়াল কাসুমী সিউর খুলনার ছেলে আসাদ মোড়লের প্রেমে পড়ে স্বামী-সংসার ফেলে কাসুমী বাংলাদেশে পাড়ি জমিয়েছেন। আসাদের সঙ্গে জার্মান নাগরিকের এমন খবরে এলাকাবাসীর মধ্যে কৌতূহল ছড়িয়ে পড়েছে।

খুলনা মহানগরীর খানজাহান আলী থানার যোগিপোলের যুবক আসাদ মোড়লের কাছে আসার আগে তিনি তার জার্মান স্বামীকে ডিভোর্স দিয়েছেন। খুলনায় এসেই ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করে আসাদ মোড়লকে বিয়ে করেছেন।

জানা গেছে, মহানগরীর যোগিপোল ৭নং ওয়ার্ডের ইব্রাহিম মোড়লের ছেলে এমডি আসাদ মোড়লের সঙ্গে দুই বছর আগে ফেসবুকে পরিচয় হয় জার্মানির ক্রিস্টিয়ালের। পেশায় তিনি একজন সার্ভেয়ার। বন্ধুত্ব থেকে একপর্যায়ে দুজনের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। ক্রিস্টিয়াল এই সম্পর্ককে বাস্তবে রূপ দিতে জার্মানির স্বামীকে ডিভোর্স দিয়ে গত ১০ জুন ঢাকায় আসেন। ১১ জুন তিনি আসাদের খোঁজে খুলনায় আসেন এবং একটি হোটেলে ওঠেন। ওই হোটেলেই দুজনের প্রথমবারের মতো সরাসরি দেখা হয়। ১২ জুন ক্রিস্টিয়াল খুলনা নোটারি পাবলিকের মাধ্যমে খ্রিস্টান ধর্ম ত্যাগ করেন এবং ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেন। ১৩ জুন কোর্টের মাধ্যমে দুজনের বিয়ে হয়।

স্ত্রী ক্রিস্টিয়াল বলেন, ‘আসাদের সঙ্গে দীর্ঘদিনের সম্পর্ক বাস্তবে রূপ দিতেই আমি বাংলাদেশে আসি। সরাসরি তাকে দেখে বুঝে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করি এবং বিয়ে করেছি। এখন আমরা সুখী।’

এ বিষয়ে আসাদের বাবা ইব্রাহিম মোড়ল বলেন, ছেলে যাকে নিয়ে সুখী হবে তাতে আমাদের কোনো আপত্তি নাই। তবে কখন ভাবিনি সে কোনো বিদেশিনীকে বিয়ে করবে।

আসাদ বলেন, ‘তার জীবনসঙ্গী হতে পেরে আমিও খুবই খুশি।’ ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা সম্পর্কে আসাদ জানান, ক্রিস্টিয়াল এ মাসেই জার্মানি ফিরে যাবেন। তিনি আসাদকেও জার্মানি নেওয়ার চেষ্টা করবেন।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: