শনিবার, ১৮ অগাস্ট ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৩ ভাদ্র ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
মুক্তিযোদ্ধা ছাড়া সব কোটা বাতিল হচ্ছে: নাসিম  » «   জাতিসংঘের সাবেক মহাসচিব কফি আনান আর নেই  » «   ‘ভুলে ভরা’ ইমরানের শপথ  » «   বিএনপি নির্বাচনে গেলে আ.লীগের সঙ্গে থাকবে জাতীয় পার্টি : এরশাদ  » «   ৬ জিবি র‌্যামের নতুন ফোন আনলো স্যামসাং  » «   হবিগঞ্জে পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু  » «   নাট্যাচার্য সেলিম আল-দীনের ৬৯তম জন্মজয়ন্তী আজ  » «   হকারদের দখলে নগরীর প্রধান প্রধান সড়ক,যানজটে অতিষ্ঠ নগরবাসী  » «   আজ ফাইনালে ভারতের মুখোমুখি বাংলাদেশ  » «   বিক্রেতারা গরুর দাম সহনীয় বললেও ক্রেতারা বলছেন বেশি  » «   গ্যালাক্সি নোট ৯-এর পেছনে এক কেজি সোনা, দাম অর্ধকোটি টাকা!  » «   মাদকের বিরুদ্ধে যৌথ দল গঠন করবে যুক্তরাষ্ট্র-মেক্সিকো  » «   উট কিনলেন নায়িকা শিমলা  » «   আন্দোলনে নামার সময় জানাল বিএনপি  » «   সব জায়গায় জিয়া পরিবারের ভুল দেখেন প্রধানমন্ত্রী : ফখরুল  » «  

প্রেমিকের কথায় স্বামীকে ছেড়ে দ্বিতীয় স্বামীর কাছে প্রতারিত হলো নারী!



নিউজ ডেস্ক::সিতাইকুন্ড গ্রামের আকবর আলী শেখের ছেলে আরমান শেখের (২৫) সঙ্গে মান্দ্রা গ্রামের সিদ্দিক তালুকদারের মেয়ে কাকলী খানমের (১৯) দীর্ঘদিন ধরে প্রেমের সম্পর্ক ছিল। বিষয়টি জানাজানি হওয়ার পর চার মাস আগে সিদ্দিক তালুকদার কাকলীকে জোর করে পার্শ্ববর্তী আশুতিয়া গ্রামে বিয়ে দিয়ে দেন। বিয়ের দুদিন পর প্রেমিক আরমানের কথায় কাকলী স্বামীর ঘর ছেড়ে আরমানের হাত ধরে ঢাকায় পালিয়ে যায়। ঢাকা পালিয়ে থাকা অবস্থায় আরমানের কথায় কাকলী স্বামীকে তালাক দেয়।

এভাবে কিছু দিন যাওয়ার পর কাকলী বিয়ের জন্য আরমানকে চাপ দিলে ১৮ ডিসেম্বর আরমান কাকলীকে বিয়ে করে। বিয়ের কিছু দিন পর আরমান কাকলীকে তার ভাইয়ের বাসায় রেখে এসে কাকলীর সঙ্গে যোগাযোগ বন্ধ করে দেয়। এরপর কাকলী বিভিন্নভাবে আরমানের সঙ্গে যোগাযোগ করতে ব্যর্থ হয়ে আরমানদের বাড়িতে এসে ওঠে।

এবং বর্তমানে স্ত্রীর স্বীকৃতির দাবিতে আরমানের বাড়িতে দুদিন ধরে অনশন পালন করছে কাকলী। ঘটনাটি ঘটেছে গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া উপজেলার সিতাইকুন্ড গ্রামে।

মঙ্গলবার (১৬ জানুয়ারি) সরেজমিনে সিতাইকুন্ড গ্রামে গিয়ে আরমানের ঘরের সামনে কাকলীকে বসে থাকতে দেখা যায়। কাকলী বলেন, আমার এভাবে চলে আসা ছাড়া কোনো উপায় ছিল না। আমাকে এ বাড়িতে দেখে আরমান আমাকে কিছু না বলে পালিয়ে গেছে। ও যদি আমাকে স্ত্রীর স্বীকৃতি না দেয় তাহলে আমি আত্মহত্যা করব।

এ ব্যাপারে আরমানের বাবা আকবর আলী শেখ বলেন, ওদের বিয়ের বিষয়ে আমার কিছু জানা নেই। আমরা আরমানের সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্টা করছি। কিন্তু তার মোবাইল ফোন বন্ধ পাচ্ছি। আরমানের সঙ্গে যোগাযোগ না করা পর্যন্ত আমরা কাকলীর ব্যাপারে কোনো সিন্ধান্ত নিতে পারব না। আরমান কি বলে তা শুনার পর আমরা ব্যবস্থা নিব।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: