শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ১২ ফাল্গুন ১৪২৪ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
ইন্সটাগ্রাম ভিডিওতে মিউজিক অ্যাড করবেন যেভাবে!  » «   বিশিষ্ট আলেমে দ্বীন মাওলানা মোস্তফা আজাদের ইন্তেকাল  » «   ছুটির বিকেলে নাতি-নাতনিদের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর খুনসুটি  » «   নতুন স্ত্রীকে ঘরে তুললেন হৃদয় খান  » «   জামালগঞ্জে মসজিদের ইমামের বাড়ির রাস্তায় চলাচলে বাধার অভিযোগ  » «   সব কর্মসূচি পালন করতে অনুমতি নিতে হবে কেন?  » «   সংগ্রামের পথ ধরেই আমাদের সব অর্জন : প্রধানমন্ত্রী  » «   যে অসুস্থতার কথা উল্লেখ করা হয়েছে আপিল আবেদনে  » «   হবিগঞ্জে মাকে বেঁধে মেয়েকে ধর্ষণের অভিযোগ  » «   মাশরাফির ফেরার সম্ভাবনা নেই!  » «   কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা হতে পারে ভয়ানক  » «   শিশুকে ধর্ষণের পর মাথা থেঁতলে হত্যা  » «   শ্রীপুরে পৃথক দুর্ঘটনায় নিহত ২  » «   যেভাবে মিলবে কোষ্ঠকাঠিন্য থেকে মুক্তি!  » «   বিএনপি কার্যালয়ের সামনে পুলিশের লাঠিপেটা, আটক ১১  » «  

প্রেমিকের কথায় স্বামীকে ছেড়ে দ্বিতীয় স্বামীর কাছে প্রতারিত হলো নারী!



নিউজ ডেস্ক::সিতাইকুন্ড গ্রামের আকবর আলী শেখের ছেলে আরমান শেখের (২৫) সঙ্গে মান্দ্রা গ্রামের সিদ্দিক তালুকদারের মেয়ে কাকলী খানমের (১৯) দীর্ঘদিন ধরে প্রেমের সম্পর্ক ছিল। বিষয়টি জানাজানি হওয়ার পর চার মাস আগে সিদ্দিক তালুকদার কাকলীকে জোর করে পার্শ্ববর্তী আশুতিয়া গ্রামে বিয়ে দিয়ে দেন। বিয়ের দুদিন পর প্রেমিক আরমানের কথায় কাকলী স্বামীর ঘর ছেড়ে আরমানের হাত ধরে ঢাকায় পালিয়ে যায়। ঢাকা পালিয়ে থাকা অবস্থায় আরমানের কথায় কাকলী স্বামীকে তালাক দেয়।

এভাবে কিছু দিন যাওয়ার পর কাকলী বিয়ের জন্য আরমানকে চাপ দিলে ১৮ ডিসেম্বর আরমান কাকলীকে বিয়ে করে। বিয়ের কিছু দিন পর আরমান কাকলীকে তার ভাইয়ের বাসায় রেখে এসে কাকলীর সঙ্গে যোগাযোগ বন্ধ করে দেয়। এরপর কাকলী বিভিন্নভাবে আরমানের সঙ্গে যোগাযোগ করতে ব্যর্থ হয়ে আরমানদের বাড়িতে এসে ওঠে।

এবং বর্তমানে স্ত্রীর স্বীকৃতির দাবিতে আরমানের বাড়িতে দুদিন ধরে অনশন পালন করছে কাকলী। ঘটনাটি ঘটেছে গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া উপজেলার সিতাইকুন্ড গ্রামে।

মঙ্গলবার (১৬ জানুয়ারি) সরেজমিনে সিতাইকুন্ড গ্রামে গিয়ে আরমানের ঘরের সামনে কাকলীকে বসে থাকতে দেখা যায়। কাকলী বলেন, আমার এভাবে চলে আসা ছাড়া কোনো উপায় ছিল না। আমাকে এ বাড়িতে দেখে আরমান আমাকে কিছু না বলে পালিয়ে গেছে। ও যদি আমাকে স্ত্রীর স্বীকৃতি না দেয় তাহলে আমি আত্মহত্যা করব।

এ ব্যাপারে আরমানের বাবা আকবর আলী শেখ বলেন, ওদের বিয়ের বিষয়ে আমার কিছু জানা নেই। আমরা আরমানের সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্টা করছি। কিন্তু তার মোবাইল ফোন বন্ধ পাচ্ছি। আরমানের সঙ্গে যোগাযোগ না করা পর্যন্ত আমরা কাকলীর ব্যাপারে কোনো সিন্ধান্ত নিতে পারব না। আরমান কি বলে তা শুনার পর আমরা ব্যবস্থা নিব।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: