বুধবার, ২১ নভেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
‘বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট নিখোঁজ’ সংবাদটি গুজব  » «   আবারও সমুদ্রে ভাসতে চলেছে টাইটানিক  » «   সশস্ত্র বাহিনী দিবসে শিখা অনির্বাণে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা  » «   নির্বাচনের আগে ওয়াজ মাহফিল নয়: ইসি  » «   আসন বন্টনের বিষয়ে সমঝোতা হয়ে গেছে: ওবায়দুল কাদের  » «   আজ পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.)  » «   ড. কামালের কাছে ক্ষমা চাইলেন ফখরুল  » «   জঙ্গিবিরোধী অভিযান: খেলনা বন্দুক-জিহাদি বইসহ যুবক আটক  » «   কাবুলে আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণে নিহত ৪৩  » «   তারেককে ঠেকাতে আদালতে যাবে আওয়ামী লীগ  » «   ইসি সচিব, ডিএমপি কমিশনারসহ ৪ জনের শাস্তি দাবি  » «   ভারতে অস্ত্র গুদামে বিস্ফোরণ : নিহত ৬, আহত ১৮  » «   ‘ছোলপোলের খোঁজ লেয় না, আবার এমপির ভোট করিচ্চে’  » «   হিরো আলমকে নিয়ে মুখ খুললেন তসলিমা নাসরিন  » «   এইডসের ঝুঁকিতে সিলেট, মৌলভীবাজার  » «  

প্রেমিককে গাছে বেঁধে রেখে প্রেমিকাকে তিন ঘণ্টা গণধর্ষণ



নিউজ ডেস্ক::নড়াইল সদরের সুবুদ্ধিডাঙ্গা গ্রামে প্রেমিককে গাছে বেঁধে রেখে প্রেমিকাকে গণধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় বুধবার (২০ জুন) দুপুরে তিনজনের নামে সদর থানায় মামলা হয়েছে।

মামলার বিবরণ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার রাতে প্রেমিককে সঙ্গে নিয়ে যশোর থেকে নড়াইলে আসছিলো অষ্টম শ্রেণির ওই শিক্ষার্থী। পথিমধ্যে নড়াইলের হবখালী আদর্শ কলেজ এলাকায় অটোবাইক থেকে নেমে যায় তারা। রাত নয়টার দিকে স্থানীয় মাসুমের দোকানের কাছে পৌঁছালে ৮-৯ জন লোক তাদের পথরোধ করে।

আসামিরা হলেন- হবখালী ইউনিয়নের সুবুদ্ধিডাঙ্গা গ্রামের আজাদ মিনার ছেলে রফিকুল মিনা (৩০), হালিম মিনার ছেলে শাহজালাল মিনা (২৩) এবং আজগর মিনার ছেলে মাসুম মিনা (২৫)। এর আগে মঙ্গলবার রাতে এ গণধর্ষণের ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানের কাছে নেয়ার কথা বলে তাদের হবখালী বাজারের দিকে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে এলাকার কয়েকজন যুবক। একপর্যায়ে অভিযুক্ত রফিকুল মিনা, শাহজালাল মিনা ও মাসুম মিনা হবখালী কলেজ এলাকায় প্রেমিককে গাছে বেঁধে রেখে পাটক্ষেতে নিয়ে প্রেমিকাকে গণধর্ষণ করে। প্রায় তিন ঘণ্টা ধরে গণধর্ষণের পর মেয়েটি অসুস্থ হলে পড়লে অভিযুক্ত যুবকেরা তাকে ক্ষেতের মধ্যে ফেলে রেখে চলে যায়। রাত ১২টার দিকে প্রেমিকসহ স্থানীয় তিনজন ভুক্তভোগী মেয়েটিকে উদ্ধার করে সুবুদ্ধিডাঙ্গা গ্রামে শাকিলের বাড়িতে নিয়ে যান।

পরে পুলিশ এসে প্রেমিক-প্রেমিকাকে উদ্ধার করে নড়াইল সদর থানায় নিয়ে আসে। ভুক্তভোগী মেয়েটি নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার ব্রাহ্মণীনগর গ্রামে নানাবাড়িতে থেকে অষ্টম শ্রেণিতে পড়ালেখা করছে।

এ ব্যাপারে নড়াইল সদর থানার ওসি আনোয়ার হোসেন জানান, বুধবার দুপুরে নড়াইল সদর হাসপাতালে মেয়েটির ডাক্তারি পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে। আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: