মঙ্গলবার, ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ ফাল্গুন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
উপজেলা নির্বাচনের তৃতীয় ধাপ থেকে ইভিএম: ইসি সচিব  » «   হজ পালনে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের দাবি হিজড়াদের  » «   সব বাধা উপেক্ষা করে গণশুনানি করবে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট  » «   অভিজিৎ হত্যা: অব্যাহতি পাচ্ছেন সাতজন, আসামি ছয়  » «   অনুমোদিত ৩টি ব্যাংক সম্পর্কে তেমন কিছু জানেন না অর্থমন্ত্রী  » «   ডাস্টবিনে নেমে ১৫০০ শিক্ষার্থীকে বাঁচানোর আহ্বান  » «   একাদশ সংসদের এমপিদের বৈধতা নিয়ে রিট খারিজ  » «   শামীমাকে যা বুঝিয়ে সিরিয়ায় নিয়ে গিয়েছিল আইএস  » «   নিজেই গাড়ি চালিয়ে যুবরাজকে বাসভবনে নিয়ে গেলেন ইমরান খান  » «   আরব আমিরাত ও বাংলাদেশর মধ্যে ৪টি সমঝোতা স্মারক সই  » «   সংঘর্ষ চলছে, পুলওয়ামা হামলার মূল হোতা নিহত  » «   এক দিন বাড়ল দ্বিতীয় পর্বের ইজতেমা, আখেরি মোনাজাত মঙ্গলবার  » «   শুধুমাত্র আইন দিয়ে দুর্নীতি দমন করা যায় না: আইনমন্ত্রী  » «   জামায়াতের সবারই রাজ্জাকের মতো ভুল ভাঙা উচিত: ফরীদ উদ্দীন মাসঊদ  » «   সন্ত্রাসী হামলার নিন্দা জা‌নি‌য়ে মোদিকে শেখ হাসিনার বার্তা  » «  

প্রার্থী না থাকায় নৌকা সমর্থকের আত্মহত্যা!



নিউজ ডেস্ক:: নীলফামারী-৩ (জলঢাকা) আসনে নৌকার প্রার্থী না থাকায় আত্মহনন করেছেন দিনমজুর ঘুনুরাম রায় নামে এক সমর্থক। বুধবার দুপুরে নিজ বাড়িতে ঘরের চালের বাঁশের তীরে গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করেন তিনি।উপজেলার ধর্মপাল ইউনিয়নের পাইটকাপাড়া গ্রামের মৃত প্রহল্লাদ চন্দ্র রায়ের ছেলে ঘুনুরাম রায়। তিনি নৌকা এবং স্থানীয় আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য অধ্যাপক গোলাম মোস্তফার অন্ধ সমর্থক বলে পরিচিত ছিলেন।

জানা গেছে, স্থানীয় সংসদ সদস্য অধ্যাপক গোলাম মোস্তফা ও আওয়ামী লীগের একজন অন্ধভক্ত ছিলেন। তিনি পেশায় একজন দিনমজুর হলেও আওয়ামী লীগের সকল কার্যক্রমে তার সরব উপস্থিতি ছিল।পাইটকা পাড়া ৯ নং ওয়ার্ডে আওয়ামী লীগের সভাপতি লুৎফর রহমান জানান, ‌‘এবারের নির্বাচনে এই আসন থেকে নৌকা মার্কার প্রার্থীকে মনোনয়ন না দেয়ায় কয়েকদিন ধরেই তিনি মানসিকভাবে বিপর্যস্ত ছিলেন। তার এই মানসিক বিমর্ষতার কারণেই তিনি আত্মহত্যা করেছেন বলে মনে হয়’।

এদিকে মৃতের পরিবার ও স্থানীয়দের সাথে কথা বলে জানা গেছে, আওয়ামী লীগ এবং স্থানীয় সংসদ সদস্য অধ্যাপক গোলাম মোস্তফার একজন একনিষ্ঠ সমর্থক ঘুনুরাম আসন্ন নির্বাচনে নীলফামারী-৩ আসনে কোন আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী না থাকায় কয়েকদিন ধরেই অস্বাভাবিক আচরণ করছিলেন।

ঐ এলাকার কৃষক মশিউর রহমান বলেন, ‘এলাকার একটি দোকানের সামনে বলতে শুনেছি, ‘নৌকা নাই ভোট দেব কাকে? আমার এমপি যদি মনোনয়ন না পায় তাহলে, আমার মরা ছাড়া আর উপায় নাই’।এরপর দুপুরে তার আত্মহত্যার কথা জানতে পারি।’

উল্লেখ্য, এই আসনে বর্তমান সংসদ সদস্য উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি অধ্যাপক গোলাম মোস্তফা। এবারের নির্বাচনে ওই আসনে মহাজোটের কারণে আওয়ামী লীগের কোন প্রার্থীকে মনোনয়ন দেয়া হয়নি। সেখানে জাতীয় পাটির প্রার্থী সাবেক সংসদ সদস্য কাজী ফারুক কাদের ও মেজর (অব.) রাণা মোহাম্মদ সোহেলকে মনোনয়ন দেয়া হয়েছে। অপরদিকে, ২০ দলীয় জোটের পক্ষে ধানের শীষ মার্কা নিয়ে প্রার্থী হয়েছেন জামায়াতের কেন্দ্রীয় সুরা সদস্য আজিজুল ইসলাম।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: