সোমবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
খালেদাকে যথাযথ চিকিৎসা দিতে হাইকোর্টের নির্দেশ  » «   খালেদা জিয়া নির্বাচনে প্রার্থী হতে পারবেন: মির্জা ফখরুল  » «   সিরিয়ায় তুর্কিপন্থী বিদ্রোহীদের সংঘর্ষে নিহত ২৫  » «   ফাঁস হলো খাশোগির লাশ টুকরো করার ছবি!  » «   ওবায়দুল কাদেরের বক্তব্য অশনি সংকেত: রিজভী  » «   সংসদ নির্বাচন: তথ্য সংগ্রহে পুলিশ ও ইসির লুকোচুরি  » «   কামাল আউট, তারেক ইন!  » «   তেলের দাম বৃদ্ধির প্রতিবাদে ফ্রান্সে বিক্ষোভ: নিহত ১, আহত ৪০৯  » «   দ্বিতীয় দিনের সাক্ষাৎকার চলছে: ভিডিও কনফারেন্সে আছেন তারেক রহমান  » «   নির্বাচনে রোহিঙ্গাদের সম্পৃক্ততা প্রতিরোধে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে ইসির নির্দেশনা  » «   চিকিৎসা বিষয়ে খালেদার রিটের আদেশ আজ  » «   তারেক রহমান মনোনয়ন প্রত্যাশীদের কাছে যা জানতে চাচ্ছেন  » «   চ্যারিটেবল মামলায় দণ্ডের বিরুদ্ধে খালেদার আপিল  » «   সিরিয়ায় মার্কিন বিমান হামলা; শিশু ও নারীসহ নিহত ৪৩  » «   থার্টি ফার্স্ট নাইট উদযাপনে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের নিষেধাজ্ঞা  » «  

প্রাথমিকেই শিশুরা আত্মহত্যার দিকে ঝুঁকছে!



নিউজ ডেস্ক:: কমবেশি সব দেশের মানুষই আত্মহত্যা করে থাকে। বিভিন্ন অর্থনৈতিক, সামাজিক বা মানসিক সঙ্কট থেকেই প্রাপ্ত বয়স্কদের মধ্যে আত্মহত্যা করতে দেখা যায়। তাই বলে শিশুদের আত্মহত্যা কথা খুব বেশি শোনা যায় না। কিন্তু বিশ্বে এমন এক দেশ আছে যেখানে ব্যাপক সংখ্যক শিশুদের মধ্যেও আত্মহত্যার প্রবণতা দেখা যায়। আর স্বাভাবিক ভাবেই এই দেশটি হচ্ছে জাপান।

জাপানের শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের দেয়া তথ্য অনুযায়ী, গত তিন দশকের মধ্যে গত বছরই সবচেয়ে বেশি সংখ্যক শিশু আত্মহত্যা করেছে২০১৬-১৭ অর্থবছরের মার্চ মাস পর্যন্ত প্রাথমিক ও হাইস্কুলের ২৫০ জন শিশু আত্মহত্যা করেছে। ১৯৮৬ সালের পর থেকে জাপানে এত বিপুল সংখ্যক শিশু আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেনি।

আত্মহত্যার আগে ঐসব শিশুরা যেসব সমস্যার কথা জানিয়েছিল সেগুলো হলো: পারিবারিক সমস্যা, ভবিষ্যৎ নিয়ে দুশ্চিন্তা এবং বন্ধুদের কাছ থেকে অবজ্ঞা বা তাচ্ছিল্য পূর্ণ ব্যবহার।

তবে স্কুলগুলোর পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে এসব ঘটনার ১৪০টিরই সঠিক কারণ তারা জানে না। কারণ সেসব ক্ষেত্রে শিশুরা আত্মহত্যার আগে কোনো নোট রেখে যায়নি। আত্মহত্যাকারী অধিকাংশ শিশুর বয়সই ১৮ বছর বা তার চেয়ে কম।

২০১৫ সালে বিশ্বের সবচেয়ে বেশি আত্মহত্যা প্রবণ দেশগুলোর একটি ছিল জাপান। তবে এই প্রবণতা বন্ধ করতে জাপান সরকার বিভিন্ন ধরণের পদক্ষেপ নেয়ার পর অবস্থার কিছুটা উন্নতি হয়েছে বলে জানাচ্ছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

২০০৩ সালে জাপানে মোট আত্মহত্যার ঘটনা ছিল ৩৪ হাজার ৫০০। ২০১৭ সালে তা কমে ২১ হাজারে নেমে আসে। কিন্তু প্রাপ্ত বয়স্কদের আত্মহত্যার হার কমলেও বেড়েছে শিশু আত্মহত্যার ঘটনা। এখন এ নিয়ে উদ্বিঘ্ন জাপান সরকার।

সূত্র: বিবিসি বাংলা

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: