শুক্রবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
ক্যালিফোর্নিয়া দাবানল: নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৫৯  » «   রোহিঙ্গারা স্লোগান দিচ্ছে ‘ন যাইয়ুম, ন যাইয়ুম’  » «   প্রাথমিকের সমাপনী পরীক্ষায় থাকছে না এমসিকিউ  » «   ঐক্যফ্রন্টের সব দলের প্রতীক ধানের শীষ  » «   চিকিৎসা নিয়ে খালেদার রিটের আদেশ রোববার  » «   বিএনপি জোট সরকারের প্রধানমন্ত্রী হবেন খালেদা জিয়া  » «   নয়াপল্টনে সংঘর্ষ: ৩ মামলায় গ্রেফতার ৫০  » «   ভোটের ২-৩ দিন আগে মাঠে সেনাবাহিনী থাকবে: ইসি সচিব  » «   ওমরাহ শেষে বিমানেই মারা গেল চার বছরের শিশু  » «   শরিকদের সর্বোচ্চ ৬০ আসন ছাড়ার কথা ভাবছে বিএনপি  » «   বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানই হাতিয়ে নিচ্ছে অতিরিক্ত টাকা  » «   আজ রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন শুরু: ফিরছেন ১৫০ রোহিঙ্গা  » «   সিলেট-২: বিএনপির মনোনয়ন ফরম নিলেন ইলিয়াসপত্নী লুনা  » «   তফসিল পেছানোর দাবিতে নির্বাচন কমিশনের সঙ্গে বৈঠকে ঐক্যফ্রন্ট  » «   সংসদ নির্বাচন: হেভিওয়েট প্রার্থীরা কে লড়বেন কার বিপরীতে  » «  

প্রশ্নপত্রসহ যুবক আটক



নিউজ ডেস্ক::এসএসসির ইংরেজী দ্বিতীয় পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ও উত্তরসহ ঢাকা থেকে বরগুনাগামী ঈগল পরিবহনের একটি বাস থেকে জোয়ায়দুল ইসলাম নামে এক যুবককে আটক করেছে মাদারীপুর জেলা প্রশাসক ও পুলিশ।

বুধবার (৭ ফেব্রুয়ারি) সকাল সাড়ে ৯টার দিকে তাকে আটক করা হয়।

জেলা প্রশাসন ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, সকালে ঈগল পরিবহনের একটি বাসে ঢাকা থেকে বরগুনায় যাচ্ছিলেন জোয়ায়দুল। পথে মাদারীপুরের মস্তফাপুর এলাকায় এসএসসির ইংরেজী দ্বিতীয়পত্র পরীক্ষার প্রশ্নপত্র মোবাইল থেকে শিক্ষার্থীদের সরবরাহ করছিলেন। এ সময় পাশের সিটে থাকা যাত্রী লিটন বৈরাগী বিষয়টি টের পেয়ে অন্যদের জানান।

তখন স্থানীয়রা বাসটি আটক করে জেলা প্রশাসক মো. ওয়াহিদুল ইসলাম ও সদর থানা পুলিশকে খবর দেয়। পরে জেলা প্রশাসক ও পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে প্রশ্নের কপিসহ তাকে আটক করে। সে ৫০০ টাকার বিনিময়ে শিক্ষার্থীদের প্রশ্ন সরবরাহ করতেন। আর মাধ্যম হিসেবে তিনি একটি ফেসবুক পেজ ব্যবহার করতেন।

জোয়ায়দুল ইসলাম বরগুনার আব্দুস ছাত্তার চোকদারের ছেলে। সে নিজেকে ঢাকার একটি প্রাইভেট ভার্সিটির ছাত্র বলে দাবি করেছেন।

এ ব্যাপারে জেলা প্রশাসক ওয়াহিদুল ইসলাম জানান, আটক যুবকের মোবাইল চেক করে প্রশ্নফাঁসের সত্যতা পাওয়া যায়। আজকের পরীক্ষার প্রশ্নের সঙ্গে ফাঁসকৃত প্রশ্নের হুবহু মিল পাওয়া যায়। তার কাছে প্রশ্নের উত্তরও পাওয়া যায়। তার বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলা করার প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে।

এ সময় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) সৈয়দ ফারুক আহম্মদ ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আল মামুন উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: