শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ১১ ফাল্গুন ১৪২৪ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
আগামীতে শহীদুজ্জামান সরকারকে নৌকা মার্কায় ভোট দিলে নজিপুর জেলাসহ সব উন্নয়ন হবে :নাসিম  » «   মাহিরাকে জোর করে চুমু খাওয়ার চেষ্টা, ভাইরাল ভিডিও  » «   বরের বয়স ৮৩ কনে ৩০  » «   ‘তারেকের নেতৃত্বে বিএনপি এখন অনেক শক্তিশালী’  » «   চলন্ত বাসে ডাকাতি ও চালক খুন, গ্রেপ্তার ১৩  » «   প্রধানমন্ত্রী ভোট চাচ্ছেন, খালেদা জিয়া অন্ধকার প্রকোষ্ঠে : ফখরুল  » «   কিশোরের মৃত্যু, লাশ রেখে সঙ্গীদের পলায়ন  » «   এক সঙ্গে তারা  » «   অশ্লীল কার্যকলাপে লিপ্ত, ১১ প্রেমিক যুগলের জরিমানা!  » «   দুই ঘণ্টার জন্য বিমান আটকে দিলো মশা  » «   বিয়ের নামে চীনে বিক্রি হচ্ছে পাহাড়ি মেয়েরা  » «   ডেকে নিয়ে যুবকের গলাকেটে হত্যা  » «   বড়লেখার মেধাবী তোফায়েলের চ্যান্সেলর স্বর্ণপদক লাভ  » «   পুলিশ পরিচয়ে কিশোরীকে যুবলীগ নেতার ধর্ষণ  » «   সিলেটে হবে ভারতীয় হাইকমিশন অফিস  » «  

‘প্রধানমন্ত্রী ও আমি একই এলাকার বউ’



নিউজ ডেস্ক:: ‘প্রধানমন্ত্রী এ এলাকার (রংপুর বিভাগ) বউ, আমিও এ এলাকার বউ। প্রধানমন্ত্রীও গোপালগঞ্জের মেয়ে, আমিও গোপালগঞ্জের মেয়ে। বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ দিয়েছেন, আর তার মেয়ে শেখ হাসিনা দিলেন ঘর ও জমি। শুধু এতেই শেষ নয়। প্রধানমন্ত্রী আমাদের সোলার বিদ্যুৎ দিয়েছেন। একটি বাড়ি একটি খামারের সদস্য হওয়ায় ছাগল পেয়েছি, মুরগি পেয়েছি। সব মিলে আমরা যারা ছিন্নমূল মানুষ ছিলাম তারা এখন ভালো আছি। আমরা দোয়া করি আপনি যেন সারাজীবন প্রধানমন্ত্রী থাকেন।’
কথাগুলো খুব আবেগের সঙ্গে বলেন লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলাধীন সানিয়াজং গুচ্ছগ্রামের নতুন বাসিন্দা আফরোজা বেগম।
প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশ্যে তিনি আরও বলেন, ছিন্নমূল মানুষ হিসেবে, গ্রামের একজন মানুষ হিসেবে আপনার মতো একজন প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে যে কথা বলতে পারব, এটা স্বপ্নেও ভাবিনি। এ সুযোগ আর জীবনে পাব কি না জানি না। তবে আপনি যে আমাদের মাথা গোঁজার ঠাঁই করে দিলেন তাতে আপনার কাছে আমরা কৃতজ্ঞ। দূর থেকে আমরা আপনার জন্য দোয়া করব, আপনার সঙ্গে থাকব।
আফরোজা খাতুনের কথা শুনে প্রধানমন্ত্রী তার জবাবে বলেন, আপনাদের সঙ্গে কথা বলতে পেরে আমারও খুব ভালো লাগল, আনন্দিত হলাম। আপনাদের মতো গৃহহারা মানুষের জন্য যে গৃহের ব্যবস্থা করে দিতে পেরেছি তাতেও আমি খুশি। আপনারা দোয়া করবেন, এ দেশের প্রতিটি মানুষের মৌলিক অধিকার যেন পূরণ করতে পারি। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু যে স্বপ্ন নিয়ে দেশ স্বাধীন করেছিলেন, সে স্বপ্ন যেন পূরণ করতে পারি।
বুধবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের সাত জেলায় ১১টি গুচ্ছগ্রাম উদ্বোধন করেন। গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে তিনি গুচ্ছগ্রামের উদ্বোধন করেন।
এসময় প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, আমাদের লক্ষ্য হচ্ছে- সবার জন্য মাথা গোঁজার ঠাঁই নিশ্চিত করা। অন্তত একটি করে টিনের ঘর হলেও আমরা তা করে দেব। গুচ্ছগ্রামের বাসিন্দাদের জন্য লোনের বিশেষ সুবিধা আছে। এছাড়া একটি বাড়ি একটি খামার প্রকল্পের সদস্য হিসেবে আপনারা হাঁস, মুরগি, গরু, ছাগল পাবেন। সেগুলো পালন এবং জমিতে শাক-সবজি চাষের মাধ্যমে নিজেদের ভাগ্য পরিবর্তন করে নেবেন।
ভূমিমন্ত্রী শামসুর রহমান শরীফ, ভূমি প্রতিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী এবং ভূমি মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি রেজাউল করিম হীরা এসময় গণভবনে উপস্থিত ছিলেন। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মহাপরিচালক (প্রশাসন) কবির বিন আনোয়ার ভিডিও কনফারেন্সটি সঞ্চালনা করেন।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: