রবিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৭ খ্রীষ্টাব্দ | ৯ আশ্বিন ১৪২৪ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
মাথায় পিস্তল ঠেকিয়ে শিক্ষককে হত্যার হুমকি  » «   স্কুলের ঘন্টা বাজালেন রুহানি!  » «   উল্টো পথে প্রতিমন্ত্রীর গাড়ি: অর্ধশত যানবাহনকে জরিমানা  » «   বিএনপি কর্মীকে কুপিয়ে হত্যা  » «   সপ্তম শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণ: চেয়ারম্যানসহ আসামি ৭  » «   ‘আলোচনার মাধ্যমে রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধান সম্ভব’  » «   রোহিঙ্গাদের গণধর্ষণের প্রমাণ পেয়েছে জাতিসংঘ  » «   অবশেষে রিয়ালের স্বস্তির জয়  » «   সিরিজ বাঁচিয়ে রাখতে চায় অস্ট্রেলিয়া  » «   বালাগঞ্জে গ্রাম আদালত বিষয়ক প্রশিক্ষন সম্পন্ন  » «   তখনও প্রসবকালীন রক্ত ঝরছে তার শরীর থেকে  » «   টাঙ্গাইলে চলছে ভোটগ্রহণ  » «   কিশোরী স্কুলছাত্রীদের যৌনদাসী বানিয়ে রাখেন কিম!  » «   বুদ্ধি কমিয়ে দিচ্ছে যে খাবার  » «   আইফোনের তুলনায় পাঁচ গুণ সস্তা টাইগাফোন  » «  

প্রধানমন্ত্রীর কড়া সমালোচনা করলেন মির্জা ফখরুল



নিউজ ডেস্ক::রোহিঙ্গাদের নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর অবস্থান লোক দেখানো বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। ত্রাণবাহী ট্রাক বাধা দিয়ে মানবিক সহযোগিতা থেকে রোহিঙ্গাদের বঞ্চিত করেছে সরকার উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, গত কাল আপনি সেখানে গিয়ে কাঁদলেন। আজ আমাদের নেতারা সেখানে ৪ থেকে ৫ হাজার লোকের খাবার দিতে পারতা, কিন্তু আপনি সেই ত্রাণ দিতে বাধা দিয়ে ওই সব লোকেদের মুখের খাবার কেড়ে নিয়েছেন। আর এই ঘটনাই প্রমাণ করে আপনি সেখানে লোক দেখানোর জন্যেই গিয়েছিলেন। এই ঘটনার প্রতি ধিক্কার জানিয়ে অবিলম্বে ত্রাণ দেয়ার ব্যবস্থা করতে সরকারের প্রতি জোড় আহ্বান জানান তিনি।

বুধবার রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ারিং ইনিস্টিটিউশনে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন। বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের ১০ম কারামুক্তি দিবস উপলক্ষে এ আলোচনা সভার আয়োজন করে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল-বিএনপি। নির্বাচন প্রসঙ্গ টেনে মির্জা ফখরুল বলেন, আমরা করতে নির্বাচন চাই। তবে সেই নির্বাচনের পূর্বে বেগম জিয়া, তারেক রহমান সহ বিএনপির প্রতিটি নেতাকর্মীর সব মামলা প্রত্যাহার করে নিতে হবে। সহায়ক সরকারের অধীনে সুষ্ঠু নির্বাচনের পরিবেশ তৈরি করতে হবে।

একই আলোচনা সভায় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মাশাররফ হোসেন বলেন, বিএনপির পক্ষ থেকে রোহিঙ্গাদের জন্য ত্রাণ নিয়ে যাওয়া হলেও সরকার যেতে দিচ্ছে না এটা প্রথম নয়। রাঙ্গা মাটিতেও যখন পাহাড়ি ঢলে ক্ষতিগ্রস্থ মানুষদের পাশে যখন বিএনপি যেতে চেয়ে ছিলো তখনও এই সরকার বাধা দিয়েছিল। তিনি আরো বলেন, সামনে নির্বাচন, আর এই নির্বাচনে সরকার আবারো ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির মত একটি নির্বাচন দিয়ে আবারো ক্ষমতায় আসার জন্য ষড়যন্ত্র করছে। কিন্তু আগামী দিনে নির্বাচন হবে সহায়ক সরকারে অধীনে। আর সেই সহায়ক সরকার আমাদেরকেই প্রতিষ্ঠা করতে হবে।

দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন, আমানুল্লাহ আমান, নিতাই রায় চৌধুরী, আসাদুজ্জামান রিপন, হাবিব উন নবী খান সোহেল, শহিদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যাণি, হেলেন জেরিন খান প্রমুখ।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: