শনিবার, ১৯ জানুয়ারী ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৬ মাঘ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
সৌদি নারীদের বিয়ে করতে পারবে বাংলাদেশিরা, মিলবে ভাতা  » «   এমপি কয়েসের হাত ধরে বিএনপির হাবিব এখন আওয়ামী লীগে  » «   জিয়াউর রহমানের ৮৩তম জন্মবার্ষিকী আজ  » «   রোহিঙ্গাদের দেখতে আজ বাংলাদেশে আসছেন জাতিসংঘের দূত  » «   ‘দম বন্ধ হয়ে আসছে, আমাকে ছেড়ে দিন’  » «   দুই যুগে কতটা সফল ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা?  » «   কলম্বিয়ায় পুলিশ একাডেমিতে গাড়িবোমা বিস্ফোরণ, নিহত ১০  » «   সোহরাওয়ার্দীতে আজ আওয়ামী লীগের বিজয় সমাবেশ  » «   জিয়াউর রহমানের জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে কর্মসূচি ঘোষণা  » «   সীমান্তের খালে মিয়ানমারের সেতু, বন্যার আশঙ্কা বাংলাদেশে  » «   দ্বিতীয় কৃত্রিম উপগ্রহ পাঠাবে বাংলাদেশ: শাবিতে পরিকল্পনামন্ত্রী  » «   আতিয়া মহল মামলা: ৫ দিনের রিমান্ডে ৩ আসামি  » «   শেখ হাসিনা হত্যাচেষ্টা মামলা: হাইকোর্টে আপিল শুনানি শুরু  » «   টিআইবির রিপোর্টে সরকার ও ইসির আঁতে ঘা লেগেছে: বিএনপি  » «   মাফিয়াদের স্বর্গরাজ্যে দশ বাংলাদেশির অনন্য সাহসিকতার নজির  » «  

প্রতিদিন আত্মহত্যা করতে চাইতেন এ আর রহমান!



বিনোদন ডেস্ক:: ভারতের অস্কারজয়ী সুরকার এ আর রহমান ২৫ বছর বয়স পর্যন্ত এতটাই অবসাদগ্রস্ত থাকতেন যে প্রতিদিন আত্মহত্যা করতে চাইতেন। নিজেকে সেসময় এতোটাই ব্যর্থ মনে করতেন যে প্রতিটি মূহুর্তে নিজেকে শেষ করে দিতে চাইতেন। সম্প্রতি ভারতীয় গণমাধ্যমকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে এমনটাই জানিয়েছেন ৫১ বছর বয়সী বিশ্বখ্যাত এই সঙ্গীত তারকা।

রহমান বলেন,‘একটা সময় ছিল যখন জীবনে সবটাই খারাপ ছিল।হাতে কাজ ছিল না।কাজের কেউ কদর করত না। তার উপর বাবার মৃত্যু শোক অবসাদ আরও বাড়িয়ে দিয়েছিল।যারা সেসময় আমাকে দেখেছেন,তারা এখন আমাকে দেখে বিশ্বাসই করতে পারেন না।তখন আমার বয়স ছিল ২৫।কেউ ভাবতেই পারেন না সেই অবসাদ কাটিয়ে এতটা সাফল্য আমি কিভাবে পেয়েছি।’‌

মাত্র নয় বছর বয়সে বাবাকে হারিয়েছিলেন এআর রহমান। তিনিও ফিল্ম কম্পোজার ছিলেন। সেসময় এতটাই আর্থিক সংকটের মধ্য দিয়ে যাচ্ছিল পরিবার যে বাবার বাদ্যযন্ত্র ভাড়া দিয়ে রোজগার করত। ১২ বছর বয়সেই জীবনযুদ্ধের অর্থটা পরিষ্কার হয়ে গিয়েছিল তার কাছে। সেজন্য বাবার সব বাদ্যযন্ত্র বাজানো শিখে ফেলেছিলেন ওই বয়সে। মণিরত্নমের ফিল্ম রোজাতেই প্রথম সাফল্য পেয়েছিলেন রহমান।

তামিল বংশোদ্ভূত রহমান ২০ বছর বয়সেই সপরিবারে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেন।মুসলমান হিসেবে ধর্মান্তরিত হবার আগে এ আর রহমানের নাম ছিল এ এস দিলীপ কুমার। তার কাজগুলো ভারতীয় শাস্ত্রীয় সঙ্গীতের সাথে ইলেক্ট্রনিক মিউজিক এবং ওয়ার্ল্ড মিউজিক এবং পশ্চিমা অর্কেস্ট্রাল মিউজিকের সম্মিলনের জন্যে বিখ্যাত। তার কাজের জন্যে তাঁকে ‘মাদ্রাজের মোজার্ট’ বলা হয়, এবং তাঁর তামিল ভক্তরা তাঁকে ‘মিউজিকের ঝড়’ উপাধিতে ভূষিত করেছেন।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: