শুক্রবার, ১৭ অগাস্ট ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ২ ভাদ্র ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
এবার আমির খসরুকে দুদকের তলব  » «   গুরুতর সমস্যা নেই নওশাবার, শনিবারে বোর্ড গঠন  » «   প্রচণ্ড গরমে আরামে ঘুমাবার ৭ টিপস  » «   কোটা আন্দোলন: ইডেন কলেজছাত্রী ৩ দিনের রিমান্ডে  » «   চুনারুঘাটে প্রতিপক্ষের আঘাতে আহত যুবকের মৃত‌্যু  » «   ভুটানকে ৫-০ গোলে বিধ্বস্ত করে ফাইনালে বাংলাদেশের মেয়েরা  » «   বাংলাদেশ থেকে কর্মী নিতে নতুন নিয়ম করছে মালয়েশিয়া  » «   শুভ জন্মদিন আইয়ুব বাচ্চু  » «   স্পেন আওয়ামীলীগের জাতীয় শোক দিবস ও বঙ্গবন্ধুর শাহাদতবার্ষিকী পালন  » «   রোনালদো ছাড়া রিয়ালকে পাত্তাই দিলো না অ্যাটলেটিকো  » «   আজ ভুটানকে হারালেই ফাইনালে বাংলাদেশ  » «   নিষেধাজ্ঞা আরোপের জন্য অজুহাত খোঁজে আমেরিকা: রাশিয়া  » «   প্রাথমিক ও ইবতেদায়ি পরীক্ষার রুটিন প্রকাশ  » «   সাইফ-কন্যা সারার রূপে ঘায়েল অনেকেই  » «   একনেকে ৩ হাজার ৮৮ কোটি টাকা ব্যয়ে ৯ প্রকল্প অনুমোদন  » «  

পুত্রবধূকে মেনে না নেয়ায় শাশুড়িকে ডেকে নিয়ে হত্যা



নিউজ ডেস্ক:: বরিশালের মুলাদী উপজেলায় পুত্রবধূকে মেনে না নেয়ায় শাশুড়ি ফজিলা বেগমকে (৫০) খুন করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় পুত্রবধূ ফাতেমা বেগমসহ তার পরিবারের পাঁচজনকে আটক করেছে পুলিশ।

রোববার সকালে ফজিলা বেগমের মরদেহ বাড়ির সামনের খাল থেকে উদ্ধার করা হয়। নিহত ফজিলা বেগম উপজেলার সদর ইউনিয়নের দড়িচরলক্ষ্মীপুর গ্রামের প্রবাসী জাহাঙ্গীর হাওলাদারের স্ত্রী।

নিহতের ছোট ছেলে জুয়েল হাওলাদার জানান, তার বড়ভাই ওমান প্রবাসী আজাদ হাওলাদার প্রায় ৩ মাস আগে দেশে ফিরে গোপনে পাশের বাড়ির আয়নাল বেপারীর মেয়ে ফাতেমা বেগমকে বিয়ে করেন।

বিষয়টি জানাজানি হয়ে গেলে তার মা ফজিলা বেগমসহ পরিবারের সবাই বিয়ে মেনে নিতে অস্বীকৃতি জানায়। এ নিয়ে আয়নাল বেপারী ও তার পরিবারের সঙ্গে ফজিলা বেগমের পরিবারের মধ্যে বিরোধ সৃষ্টি হয়।

শনিবার রাত ৮টার দিকে আয়নাল বেপারীর ভাতিজি হালিম বেপারীর কন্যা শারমিন মোবাইলে ফজিলা বেগমকে ডেকে নেয়। রাতে বাড়ি ফিরে না আসায় তার ছেলে জুয়েল ও অন্যান্যরা বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুঁজি করে।

রোববার সকাল ৮টার দিকে স্থানীয় লোকজন কাজিরহাট সংলগ্ন খালে এক নারীর মরদেহ দেখতে পেয়ে জুয়েলকে সংবাদ দিলে তিনি ঘটনাস্থলে গিয়ে তার মায়ের মরদেহ শনাক্ত করেন।

মুলাদী থানা পুলিশের ওসি জিয়াউল আহসান জানান, মরদেহ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় আয়নাল বেপারী, তার মেয়ে ফাতেমা বেগমসহ একই পরিবারের পাঁচজনকে আটক করা হয়েছে। বিয়ের ঘটনাকে কেন্দ্র করে ফজিলা বেগম খুন হয়ে থাকতে পারেন বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছে পুলিশ। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলেও জানান ওসি।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: