সোমবার, ২৪ জুন ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ১০ আষাঢ় ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
প্রথমবার সিলেট-চট্টগ্রাম-কক্সবাজার রুটে উড়বে ইউএস-বাংলা  » «   ভূমিকম্পে কেঁপে উঠলো ইন্দোনেশিয়ায়-জাপান-অস্ট্রেলিয়া  » «   ভোটকেন্দ্রেই ঘুমিয়ে পড়লেন কর্মকর্তা  » «   ‘জয় শ্রীরাম’ না বলায় পিটিয়ে মুসলিম যুবককে হত্যা  » «   নয়াপল্টনে একের পর এক ককটেল বিস্ফোরণ  » «   অফিসে বসে বসে শুধু কি চা খাইলে হবে? দেশপ্রেম থাকতে হবে: হাইকোর্ট  » «   বিকেলের মধ্যে উদ্ধার কাজ শেষ হবে: রেলসচিব  » «   বাংলাদেশের নামে সড়কের নামকরন যুক্তরাষ্ট্রে  » «   সরকারি চাকরিজীবীদের বেতন বাড়লেও দুর্নীতি কমছে না : টিআইবি  » «   দেশসেরা প্রধান শিক্ষক হবিগঞ্জের শাহনাজ কবীর  » «   বাঘের খাবারও চুরি হয় ঢাকা চিড়িয়াখানায়, ফেসবুকে ভাইরাল  » «   দুই মাস ওমরাহ ভিসা স্থগিত করল সৌদি  » «   বীমার আওতায় যেসব সুবিধা পাচ্ছে সরকারি চাকরিজীবীরা  » «   কারাগারে সুনামগঞ্জের আ. লীগ নেতা শামীম আহমদ  » «   মুক্তি পেয়ে নতুন যে বাড়িতে থাকবেন খালেদা  » «  

পুত্রবধূকে মেনে না নেয়ায় শাশুড়িকে ডেকে নিয়ে হত্যা



নিউজ ডেস্ক:: বরিশালের মুলাদী উপজেলায় পুত্রবধূকে মেনে না নেয়ায় শাশুড়ি ফজিলা বেগমকে (৫০) খুন করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় পুত্রবধূ ফাতেমা বেগমসহ তার পরিবারের পাঁচজনকে আটক করেছে পুলিশ।

রোববার সকালে ফজিলা বেগমের মরদেহ বাড়ির সামনের খাল থেকে উদ্ধার করা হয়। নিহত ফজিলা বেগম উপজেলার সদর ইউনিয়নের দড়িচরলক্ষ্মীপুর গ্রামের প্রবাসী জাহাঙ্গীর হাওলাদারের স্ত্রী।

নিহতের ছোট ছেলে জুয়েল হাওলাদার জানান, তার বড়ভাই ওমান প্রবাসী আজাদ হাওলাদার প্রায় ৩ মাস আগে দেশে ফিরে গোপনে পাশের বাড়ির আয়নাল বেপারীর মেয়ে ফাতেমা বেগমকে বিয়ে করেন।

বিষয়টি জানাজানি হয়ে গেলে তার মা ফজিলা বেগমসহ পরিবারের সবাই বিয়ে মেনে নিতে অস্বীকৃতি জানায়। এ নিয়ে আয়নাল বেপারী ও তার পরিবারের সঙ্গে ফজিলা বেগমের পরিবারের মধ্যে বিরোধ সৃষ্টি হয়।

শনিবার রাত ৮টার দিকে আয়নাল বেপারীর ভাতিজি হালিম বেপারীর কন্যা শারমিন মোবাইলে ফজিলা বেগমকে ডেকে নেয়। রাতে বাড়ি ফিরে না আসায় তার ছেলে জুয়েল ও অন্যান্যরা বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুঁজি করে।

রোববার সকাল ৮টার দিকে স্থানীয় লোকজন কাজিরহাট সংলগ্ন খালে এক নারীর মরদেহ দেখতে পেয়ে জুয়েলকে সংবাদ দিলে তিনি ঘটনাস্থলে গিয়ে তার মায়ের মরদেহ শনাক্ত করেন।

মুলাদী থানা পুলিশের ওসি জিয়াউল আহসান জানান, মরদেহ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় আয়নাল বেপারী, তার মেয়ে ফাতেমা বেগমসহ একই পরিবারের পাঁচজনকে আটক করা হয়েছে। বিয়ের ঘটনাকে কেন্দ্র করে ফজিলা বেগম খুন হয়ে থাকতে পারেন বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছে পুলিশ। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলেও জানান ওসি।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: