বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
খালেদা জিয়ার সুবিধার্থে কেরানীগঞ্জে আদালত স্থাপনের সিদ্ধান্ত: তথ্যমন্ত্রী  » «   বুথফেরত জরিপের ফলেই ‘বিজয়োৎসব’ শুরু বিজেপির  » «   হুতি বিদ্রোহীদের হামলা, সৌদির পাশে থাকবে পাকিস্তান  » «   ধানক্ষেতে আগুনের ঘটনা তদন্তে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ  » «   মুক্তিযোদ্ধাদের ভাতা বাড়ছে  » «   বালিশ দুর্নীতি: নির্বাহী প্রকৌশলী প্রত্যাহার  » «   এফআর টাওয়ার নির্মাণে ত্রুটি, তদন্ত প্রতিবেদনে দোষী ৬৭ জন  » «   ক্ষতিপূরণ দিতে গ্রিনলাইনকে আদালতের আল্টিমেটাম  » «   প্রখ্যাত তিন ইসলামি স্কলারের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করছে সৌদি  » «   মৌলভীবাজারে কে এই ‘পীর’ আজাদ?  » «   ৮০ বছরের মধ্যে সাগরে ডুবে যাবে বাংলাদেশ!  » «   অনলাইনে ট্রেনের টিকিট: বিক্রি শুরুর আগেই টিকিট শেষ!  » «   আজ সিলেটের যে নয়টি এলাকায় গ্যাস সংযোগ বন্ধ থাকবে  » «   অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাবার বিক্রির দায়ে ইষ্টিকুটুম-মধুবনকে জরিমানা  » «   বুধবারীবাজার ইউনিয়ন আ.লীগ সভাপতি রফিক উদ্দিনের জানাযায় মানুষের ঢল  » «  

পুতিন-কিম বৈঠক শুরু, সম্পর্ক দৃঢ় করার আশাবাদ



আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: রাশিয়ার সুদূর পূর্বাঞ্চল ভ্লাদিভস্তকে প্রথমবারের মতো দেশটির প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ও উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং-উনের বৈঠক শুরু হয়েছে। বৈঠকে দুদেশের সম্পর্ক সুদৃঢ় করার ব্যাপারে আশাবাদ ব্যক্ত করেন নেতারা। আজ বৃহস্পতিবার বিবিসির এক প্রতিবেদনে এ কথা জানানো হয়।

ভ্লাদিভস্তকের রাস্কি দ্বীপে শুরু হওয়া বৈঠককালে দুই দেশের নেতা আন্তরিকভাবে করমর্দন করেন। এ বৈঠকে মূলত কোরীয় উপদ্বীপে পরমাণু নিরস্ত্রীকরণ প্রসঙ্গে কথা হবে বলে ক্রেমলিন জানিয়েছে। একই বিষয়ে আগে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে ব্যর্থ বৈঠকের পর উদ্ভূত পরিস্থিতিতে পুতিনের সাহায্য কিম চাইবেন বলে মনে করা হচ্ছে।

চলতি বছরে পরমাণু নিরস্ত্রীকরণের ব্যাপারে ভিয়েতনামের হ্যানয়ে এক বৈঠক বসেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও কিম। ওই বৈঠকে নিরস্ত্রীকরণ কার্যক্রম এগিয়ে নিতে কোনো চুক্তিতে পৌঁছাতে ব্যর্থ হন তাঁরা।

আজকের বৈঠকের শুরুতে পুতিন ও কিম দুই দেশের দীর্ঘ বন্ধনের ইতিহাসকে স্মরণ করেন। কোরীয় উপদ্বীপে বিরাজমান উত্তেজনা নিরসনে কিমকে সহায়তার আশ্বাসও দেন পুতিন।

কিমের উদ্দেশে পুতিন বলেন, ‘আমি নিশ্চিত, আপনার আজকের এ সফর কোরীয় উপদ্বীপের সমস্যা সমাধানে আমরা কী করতে পারি, তা বুঝতে আমাদের সাহায্য করবে এবং এ অবস্থা নিরসনে চলমান ইতিবাচক বাস্তবতায় রাশিয়া কীভাবে সাহায্য করতে পারে।’

অন্যদিকে কিম বলেন, ‘দুই দেশের সম্পর্ক উন্নয়নে তিনি খুব ইতিবাচক একটি বৈঠক প্রত্যাশা করছেন।’ এ দুই দেশের রয়েছে দীর্ঘ বন্ধুত্বের ইতিহাস। তা আরো সংহত হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।

এর আগে গতকাল বুধবার সবুজ রঙের এক ট্রেনে করে বন্দরনগরী ভ্লাদিভস্তকে পৌঁছান কিম জং-উন। সে সময় দুই দেশের নেতৃবৃন্দ একে অপরকে উষ্ণ অভ্যর্থনা জানান।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: