শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৬ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
রোহিঙ্গাদের পাশে দাঁড়িয়ে দুই পুরস্কার পাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী  » «   ডিজিটাল পাঠ্যবই শিক্ষার্থী ও শিক্ষক উভয়ের জন্য সহায়ক হবে: শিক্ষামন্ত্রী  » «   কাল পবিত্র আশুরা, তাজিয়া মিছিলে ছুরি-তলোয়ার নিষিদ্ধ  » «   জেল থেকে বাসায় ফিরলেন নওয়াজ-মরিয়ম  » «   রোহিঙ্গাদের জন্য বিশ্বব্যাংকের ৫ কোটি ডলার সহায়তা  » «   রান্নাঘরের গ্রিল কেটে শাবির ছাত্রী হলে চুরি,নিরাপত্তাহীনতায় ছাত্রীরা  » «   এখনও জঙ্গি হামলার ঝুঁকিতে বাংলাদেশ : যুক্তরাষ্ট্র  » «   মোদিকে ইমরানের চিঠি: পুনরায় শান্তি আলোচনা শুরুর তাগিদ  » «   খালেদা জিয়ার অনুপস্থিতেই বিচার চলবে: আদালত  » «   ফুটপাতের খাবার বিক্রেতা থেকে সিঙ্গাপুরের রাষ্ট্রপতি!  » «   বিএনপি নেতাদের ওপর ক্ষুব্ধ তারেক রহমান!  » «   পায়রা বন্দরের নিরাপত্তায় পুলিশের বিশেষ আয়োজন  » «   সরকারের চাপের মুখে দেশত্যাগ করতে হয়েছে: এসকে সিনহা  » «   পুতিন আমাকে হত্যার চেষ্টা করেছে : রাশিয়ান মডেল  » «   বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপ: ৩ নম্বর সতর্ক সংকেত  » «  

পীরের আস্তানায় পতিতাবৃত্তি



নিউজ ডেস্ক::সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলার পল্লী অঞ্চল ডায়া গ্রামে টনক খুলু ওরফে কাদের নামের এক ভন্ড পীরের আস্তানা থেকে আপত্তিকর অবস্থায় এলাকাবাসী পতিতা তিতা রুপা বেগম (৩০) এবং খদ্দের এরশাদ আলীকে (৪৫) আটক করে।

এ সময় টনক খুলু ওরফে আব্দুল কাদের কৌশলে পালিয়ে যায়। কথিত পীরের আড়ালে দীর্ঘদিন ধরে নিজ বাড়িতে বহিরাগত পতিতা এনে দেহ ব্যবসা চালিয়ে আসছিল বলে অভিযোগ রয়েছে।

শুক্রবার (২৯ জুন) রাত ১১ টায় ভন্ড পীরের ছেলে ফারুকের বিল্ডিংয়ের একটি কক্ষে গোপন সংবাদের প্রেক্ষিতে এলাকাবাসী হানা দিলে উত্তেজিত জনতা তাদেরকে আটক করে।

আটককৃত পতিতা রুপার বাড়ী পাবনা ও এরশাদ আলীর বাড়ী উল্লাপাড়া উপজেলার বালসাবাড়ী এলাকায় বলে জানা গেছে।

সরেজমিনে ঘুরে জানা যায়, আরও কয়েকজন খদ্দের ও পতিতা জনতার উপস্থিতি টের পেয়ে বাড়ির মহিলাদের সহায়তায় পালিয়ে যায়। অন্যান্য দিনের মত ওই দিন বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার পর একটি অটো রিকশাযোগে দুইজন খদ্দের আর দুইজন পতিতা টনক খুলুর বাড়িতে প্রবেশ করে। তারপর থেকেই স্থানীয়রা তাঁদের আটকের জন্য সমবেত হতে থাকে। পরে সংঘবদ্ধ জনতা কথিত পীরের বাড়িতে প্রবেশ করলে আপত্তিকর অবস্থায় ওই দুইজনকে ধরে ফেলে। আর পীর টনক খুলু ওরফে কাদের অপর এক পতিতাকে নিয়ে পালিয়ে যায় । অপর কক্ষে অবস্থানরত অন্যান্যরাও পালিয়ে যায়।

শাহজাদপুর থানার ওসি অপারেশন আসলাম হোসেন জানান, ওই পীরের বাড়িতে দীর্ঘদিন ধরে সুন্দরী পতিতাদের এনে পীরের আস্তনায় অসামাজিক কার্যকলাপ চালাচ্ছিল। রাতে এদের গ্রেফতার করা হয় গতকাল শনিবার এদের বিরুদ্ধে মামলা করে কোর্টে চালান দেওয়া হয়।

উল্লেখ্য এক যুগের বেশি সময় ধরে ওই পীর ডায়াতে এসে বাড়ি ঘর করে বসবাস শুরু করে। আব্দুল কাদের ওরফে টনক খুলু হঠাৎ পীর বনে গেলে বিভিন্ন অঞ্চল থেকে বহিরাগত নারী-পুরুষ ওই বাড়িতে আসা যাওয়া শুরু করে। বছরে দু একবার বড় ধরনের ওরশের নামে বাউল গানের আসর বসিয়ে দেহ ব্যবসা চালায়। এ ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: