মঙ্গলবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ২ আশ্বিন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
চতুর্থ ড্রিমলাইনার ‘রাজহংস’ উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী  » «   সুনামগঞ্জে অজ্ঞাতনামা যুবকের মরদেহ উদ্ধার  » «   বন্দরবাজার থেকে ইয়াবাসহ দুই মাদক ব্যবসায়ী আটক  » «   আফগান প্রেসিডেন্টকে লক্ষ্য করে বোমা হামলা, নিহত ২৪  » «   বিভাগীয় শহরে হচ্ছে পূর্ণাঙ্গ ক্যান্সার চিকিৎসাকেন্দ্র  » «   মৌলভীবাজার থেকে হত্যা মামলার দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি গ্রেপ্তার  » «   হবিগঞ্জে বিজিবির অভিযানে ১৯ কেজি গাঁজা উদ্ধার  » «   উপজেলা নির্বাচন: হবিগঞ্জ আ.লীগের ১০ বিদ্রোহী প্রার্থীকে শোকজের চিঠি  » «   রোমে যে কারণে আলোচিত প্রবাসী বাংলাদেশি তরুণ  » «   বিকেলে ‘রাজহংস’ উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী  » «   বিতর্কিত আইনে কাশ্মিরের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী গ্রেপ্তার  » «   অপমানজনক বিতাড়ণের আগে সিনেট ও ডাকসু ছাড়ুন: শোভন-রাব্বানীকে ভিপি নুর  » «   পেঁয়াজ নেই, তবুও বিক্রির ঘোষণা টিসিবির!  » «   শর্ত ভেঙে ‘অযোগ্য’ প্রতিষ্ঠানকে কাজ দিচ্ছে গণপূর্ত  » «   মেট্রোরেলের জন্য আলাদা পুলিশ ইউনিট গঠনের নির্দেশ  » «  

পাকিস্তানে রাজনৈতিক উত্তেজনা



pakistan_111477214757আন্তর্জাতিক ডেস্ক : প্রাক্তন ক্রিকেটার ও বর্তমানে জনপ্রিয় রাজনীতিক ইমরান খানের দলের ২ নভেম্বরের কর্মসূচি নিয়ে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে পাকিস্তানে।

ইমরান খানের রাজনৈতিক দল পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই) ২ নভেম্বর গণজমায়েত করে রাজধানী ইসলামাবাদ অচল করে দিতে চায়। তাদের দাবি, হয় প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ পদত্যাগ করবেন, না হয় দুর্নীতির অভিযোগের জবাবদিহি নিশ্চিত করতে হবে।

অফশোর কোম্পানির মাধ্যমে নওয়াজ শরিফের পরিবার কোটি কোটি রুপি বিদেশে পাচার করেছে বলে অভিযোগ উঠে আসে সাড়া জাগানো পানামা পেপারসে। এরপর এ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী শরিফের পরিবারের অভিযুক্ত সদস্যদের বিরুদ্ধে তদন্ত দাবি করেন ইমরান খান ও তার দল। কিন্তু অভিযোগ থেকে তাদের অব্যাহতি দেওয়া হয় এবং পিটিআই তা প্রত্যাখ্যান করে নিরপেক্ষ তদন্ত ও বিচার দাবি করে।

২ নভেম্বরের কর্মসূচি নিয়ে পাকিস্তানে উত্তেজনা বিরাজ করছে। এ দিন অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। এ বিষয়ে ইমরান খান রোববার বলেছেন, ২ নভেম্বরের কর্মসূচির ফলে যদি তৃতীয় কোনো পক্ষ হস্তক্ষেপ করে, তাহলে এর জন্য দায়ী থাকবে নওয়াজ শরিফ।

তিনি আরো বলেন, ‘যদি গণতন্ত্র পথ হারায়, তবে তার জন্য শুধু একজনই (শরিফ) দায়ী থাকবে।’ তবে সেই তৃতীয় শক্তি বা প্রতিষ্ঠান কারা, যারা গণতন্ত্র হরণ করতে পারে, তা বলেননি ইমরান খান। তবে তিনি পরিষ্কার করেছেন, ‘আমরা তৃতীয় কোনো শক্তিকে ক্ষমতায় আনতে চাই না।’

তথ্যসূত্র : ডন অনলাইন।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: