সোমবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
নির্বাচনে রোহিঙ্গাদের সম্পৃক্ততা প্রতিরোধে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে ইসির নির্দেশনা  » «   চিকিৎসা বিষয়ে খালেদার রিটের আদেশ আজ  » «   তারেক রহমান মনোনয়ন প্রত্যাশীদের কাছে যা জানতে চাচ্ছেন  » «   চ্যারিটেবল মামলায় দণ্ডের বিরুদ্ধে খালেদার আপিল  » «   সিরিয়ায় মার্কিন বিমান হামলা; শিশু ও নারীসহ নিহত ৪৩  » «   থার্টি ফার্স্ট নাইট উদযাপনে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের নিষেধাজ্ঞা  » «   দু’দিনের মধ্যেই খাশোগি হত্যার পরিপূর্ণ তদন্ত রিপোর্ট : ট্রাম্প  » «   বিএনপির মনোনয়ন প্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার নিচ্ছেন তারেক  » «   বাড়িতে বাবার লাশ, পিএসসি পরীক্ষা দিতে গেল মেয়ে  » «   প্রবাসী স্ত্রীকে লাইভে রেখে সিলেটের স্বামীর আত্মহত্যা!  » «   খাশোগি হত্যা: যুক্তরাষ্ট্র-সৌদির নীল নকশা ও তুরস্কের উদ্দেশ্য  » «   দুই নম্বরি কেন ১০ নম্বরি হলেও ঐক্যফ্রন্ট নির্বাচনে থাকবে: ড. কামাল  » «   বোরকার বিরুদ্ধে সৌদি নারীদের অভিনব প্রতিবাদ  » «   আজ থেকে শুরু হচ্ছে প্রাথমিক ও ইবতেদায়ী সমাপনী পরীক্ষা  » «   সিডরে নিখোঁজ শহিদুল বাড়ি ফিরলেন ১১ বছর পর!  » «  

পরিবারের উদ্বেগ,রাবি শিক্ষার্থীকে গ্রেপ্তারের পর পুলিশের অস্বীকার



নিউজ ডেস্ক::রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের মেধাবী ছাত্র রমজান আলীকে গ্রেপ্তারের পর অস্বীকার ও আদালতে হাজির না করায় উদ্বেগ প্রকাশ এবং অবিলম্বে তার সন্ধান দাবী করে বিবৃতি প্রদান করেছে তার পরিবার।

বিবৃতিতে গ্রেপ্তারকৃত রমজান আলীর পিতা ইয়াজউদ্দিন শেখ বলেন, বুধবার (১৪ ফেব্রুয়ারি)রাত ৯টায় মির্জাপুর পুলিশ ফাঁড়ি থেকে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী তাকে গ্রেপ্তার করে মতিহার থানায় নিয়ে যায় এবং বৃহস্পতিবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) বিকাল ৩টা পর্যন্ত মতিহার থানায় ছিল।

একই দিন সকাল ৭টায় তার সাথে আমার পরিবারের সাক্ষাৎ হয় এবং সকালের খাবারও দেয়া হয়। পরে তাকে মতিহার থানা থেকে ডিবি অফিসে নিয়ে যাওয়া হয়। কিন্তু ডিবি অফিসে নেয়ার পর তাকে গ্রেপ্তারের কথা অস্বীকার করছে পুলিশ এবং পরিবারের সদস্যদের দেখা করতে দিচ্ছেনা।

আইন অনুযায়ী তাকে আদালতেও হাজির করা হয়নি। তাকে গ্রেপ্তারের পর অস্বীকার, দেখা করতে না দেয়া এবং আদালতে হাজির না করা প্রচলিত আইনে বেআইনি। এমনকি উচ্চ আদালতের নির্দেশেরও সুষ্পষ্ট লঙ্ঘন। যা অস্বাভাবিক বিষয়। আমার ছেলের সাথে রবিউল ও রকি নামে দুইজনকে গ্রেফতার করলেও তাদেরকে কোর্টে হাজির করা হয়। কিন্তু আমার সন্তানকে তুলেনি। আমি এখন সন্তানের জীবন নিয়ে শঙ্কিত।

আমরা এদেশের নাগরিক। আমরা আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল এবং সকল আইনি সুবিধা গ্রহণ করার অধিকার আমাদের আছে। কিন্তু এখানে আইনি অধিকার থেকে আমরা বঞ্চিত হচ্ছি।

আমি আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের কাছে আমার সন্তানের নিরাপত্তা দাবি করছি। একই সাথে তিনি সন্তানর সন্ধানের জন্য সাংবাদিকসহ সংশ্লিষ্ট সকলের সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেন।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: