শনিবার, ২৩ জুন ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৯ আষাঢ় ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
যমুনা নদীতে বিলীন হচ্ছে বসত বাড়ি, দেখার কেউ নেই!  » «   নতুন চলচ্চিত্রের জন্য ইরানে অনন্ত  » «   নেইমারের জার্সি গায়ে অপু ও জয়  » «   সিসিক নির্বাচন: আ.লীগ মেয়র প্রার্থী হলেন কামরান  » «   বাসায় ঢুকে অভিনেত্রীকে শ্লীলতাহানি!  » «   আর্জেন্টিনার হার, বেরিয়ে এলো বিস্ফোরক তথ্য!  » «   দুর্ঘটনা সড়কে মৃত্যুর মিছিল, নিহত ৩০, আহত ৪৭  » «   ‘নির্বাচনে জয়ী হতে গিয়ে যেন দলের বদনাম না হয়’  » «   হাসপাতালে পরীমনি  » «   আর্জেন্টিনার হার, ‘সুইসাইড নোট’ লিখে নিখোঁজ মেসি ভক্ত  » «   সাপাহারে ট্রাক ও ভ্যানের মুখো-মুখি সংঘর্ষে নিহত-২  » «   দুর্ঘটনার দিন ঢাকাতেই ছিলাম না’  » «   ভক্তদের হতাশ করেনি ব্রাজিল : অতিরিক্ত সময়ই বিশ্বকাপে টিকিয়ে রাখল নেইমারদের  » «   হাসপাতালের এক্সরে রুমে রোগীর মাকে ধর্ষণের চেষ্টা!  » «   গজারী বনে যুবতীর অর্ধগলিত লাশ  » «  

পরিবহন ধর্মঘটে অচল বেনাপোল বন্দর



পরিবহন ধর্মঘটের দ্বিতীয় দিনে বেনাপোল বন্দর কার্যত অচল হয়ে পড়েছে। বন্দরে ওষুধ, অক্সিজেন, পচনশীল পণ্যসহ খালাসের অপেক্ষায় প্রায় এক হাজার পণ্যবোঝাই ট্রাক আটকা পড়ে আছে।

ব্যবসায়ীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, বাংলাদেশ থেকে রপ্তানিযোগ্য কোনো পণ্যবোঝাই ট্রাক বেনাপোল বন্দরে আসতে না পারায় ভারতে পণ্য রপ্তানি সম্পূর্ণভাবে বন্ধ হয়ে গেছে। গতকাল রোববার বন্দরে আটকে পড়া এক কোটি টাকার মাছ নষ্ট হয়ে গেছে। একই সঙ্গে নষ্ট হয়ে গেছে লাখ লাখ টাকার পেঁয়াজ। অক্সিজেনবাহী ট্রাক বন্দরে আটকে পড়ায় বিভিন্ন হাসপাতালে অক্সিজেন সংকটের আশঙ্কা দেখা দিয়েছে।

এদিকে কাস্টমস কর্তৃপক্ষ জানায়, গত দুই দিনে বেনাপোল বন্দর থেকে প্রায় ৩০ কোটি টাকার রাজস্ব আয় থেকে বঞ্চিত হয়েছে সরকার। ধর্মঘট চললেও বেনাপোল বন্দর দিয়ে শুধু আমদানি বাণিজ্য সচল আছে। বন্দর থেকে পণ্য লোড না হওয়ার কারণে সড়কে শত শত ট্রাক আটকা পড়েছে।

ভারত-বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্সের বন্দর সাব-কমিটির চেয়ারম্যান মতিয়ার রহমান জানান, বন্দর শেডে কোনো জায়গা না থাকায় বন্দরে সৃষ্টি হয়েছে পণ্যজট। ফলে বেনাপোল বন্দরে প্রবেশের অপেক্ষায় ভারতের পেট্রাপালে বন্দরে পাঁচ হাজার পণ্যবোঝাই ট্রাক আটকা পড়ে আছে। বেনাপোলে আটকে পড়া ভারত থেকে আসা পাসপোর্ট যাত্রীরা রাতে বিভিন্ন উপায়ে নিজ নিজ গন্তব্যে চলে গেছেন।

মানিকগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় চলচ্চিত্রকার তারেক মাসুদ, সাংবাদিক মিশুক মুনীরসহ পাঁচজন নিহত হওয়ার মামলায় গত ২২ ফেব্রুয়ারি বাসচালক জামির হোসেনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ দেন আদালত।

এ ঘটনার প্রতিবাদে ওই দিন থেকে চুয়াডাঙ্গা জেলায় অনির্দিষ্টকালের জন্য পরিবহন ধর্মঘট শুরু করে জেলা বাস-ট্রাক সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়ন।

এর পর খুলনা বিভাগীয় আঞ্চলিক সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের সভাপতি আজিজুল হক মিন্টু পরিবহন ধর্মঘটের ঘোষণা দেন। গত রোববার ১০ জেলায় পরিবহন ধর্মঘট শুরু হয়।


 

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: