বৃহস্পতিবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
লন্ডনে দ্বিতীয় জনপ্রিয় ভাষা বাংলা  » «   ঘুষের টাকাসহ হাতেনাতে সাব-রেজিস্ট্রার আটক  » «   আর কোনো হায়েনার দল বাংলার বুকে চেপে বসতে পারবে না  » «   সিলেটে মুক্তিযুদ্ধের পাণ্ডুলিপি সংগ্রহ করলেন প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী  » «   ফের জাতীয় পার্টির ঢাকা জেলা শাখার সভাপতি সালমা ইসলাম এমপি  » «   বিয়ানীবাজারে ৯৯০ পিস ইয়াবাসহ পেশাদার মাদক ব্যবসায়ী আটক  » «   আয়কর দিবস উপলক্ষে সিলেটে বর্ণাঢ্য র‌্যালি  » «   এবার শ্রীমঙ্গলে ট্রেনের ইঞ্জিনে আগুন  » «   বেলজিয়ামে মসজিদে তালা দেওয়ায় বাংলাদেশিদের প্রতিবাদ  » «   পায়রা উড়িয়ে জাতীয় পার্টির ঢাকা জেলা শাখার সম্মেলন উদ্বোধন  » «   ভারতের অর্থনীতির দুরবস্থা, জিডিপি কমে সাড়ে ৪ শতাংশ  » «   পায়রা উড়িয়ে সম্মেলন উদ্বোধন করলেন শেখ হাসিনা  » «   লন্ডন ব্রিজে আবারও সন্ত্রাসী হামলা, নিহত ২  » «   চীন থেকে মা-বাবার জন্য পেঁয়াজ নিয়ে এলেন মেয়ে  » «   রক্তে ভাসছে ইরাক, নিহত ৮২  » «  

পদত্যাগের ঘোষণা দিলেন ইরাকের প্রধানমন্ত্রী



আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: প্রায় দুই মাস ধরে চলমান গণবিক্ষোভে চার শতাধিক মানুষের প্রাণহানির পর অবশেষে পদত্যাগের ঘোষণা দিয়েছেন ইরাকের প্রধানমন্ত্রী আদেল আব্দুল-মাহদি। শুক্রবার (২৯ নভেম্বর) এক লিখিত বিবৃতিতে এ ঘোষণা দেন ইরাকি প্রধানমন্ত্রী। আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম থেকে এ তথ্য জানা যায়।

এর আগে এদিন জুমার নামাজকালে দেশটির জ্যেষ্ঠ শিয়া নেতা আয়াতোল্লাহ আলী আল সিস্তানি গণবিক্ষোভ নিরসনে সংসদ সদস্যদের ক্ষমতাসীন প্রধানমন্ত্রীর প্রতি অনাস্থা প্রস্তাব আনার কথা পুনর্বিবেচনার আহ্বান জানান। এর আগেও তিনি এ আহ্বান জানান। ধর্মীয় নেতার ওই ইচ্ছা প্রকাশের কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই আদেল আব্দুল-মাহদি পদত্যাগের ঘোষণা দেন।

বিবৃতিতে ইরাকি প্রধানমন্ত্রী বলেন, বর্তমান সরকারের প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে সরে যাওয়া তরান্বিত করতে যতো দ্রুত সম্ভব আমি সংসদকে আমার পদত্যাগপত্র গ্রহণের অনুরোধ জানাবো। কবে নাগাদ আদেল আব্দুল-মাহদি পদত্যাগ করবেন, বিবৃতিতে তার উল্লেখ নেই। তবে উদ্ভূত পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনার জন্য আগামী রোববার জরুরি ভিত্তিতে সংসদ বসবে বলে জানা গেছে।

এদিকে প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগের এ ঘোষণাকে নাচ-গান ও উল্লাসের মাধ্যমে স্বাগত জানিয়েছে বিক্ষোভকারীরা। তারা এটিকে বিক্ষোভকালে শহীদদের ও গণমানুষের বিজয় বলে অভিহিত করে।

চলতি বছরের ১ অক্টোবর কর্মসংস্থানের সুযোগ, দুর্নীতির অবসান ও উন্নত সেবার দাবিতে ইরাকে বিক্ষোভ শুরু হয়। বিক্ষোভে এ পর্যন্ত চার শতাধিক নিহত ও প্রায় ১৫ হাজার মানুষ আহত হয়েছেন। প্রথম দিকে শান্তিপূর্ণ থাকলেও পরবর্তীকালে ব্যাপক সহিংস হয়ে ওঠে এ বিক্ষোভ। এরই সূত্রে দেশের বিভিন্ন জায়গায় বিক্ষোভকারী ও সরকারি বাহিনীর মধ্যে একের পর এক সংঘর্ষ হতে থাকে।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: