রবিবার, ২০ অক্টোবর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ কার্তিক ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
পাল্টাপাল্টি হামলায় ভারতের ৯, পাকিস্তানে ৭ জন নিহত  » «   মহানবী (স.) নিয়ে কটূক্তি: পুলিশ-জনতা সংঘর্ষে নিহত ৩  » «   ঢাবির ক ও চ ইউনিটের ফল প্রকাশ  » «   সিলেটে দুই ওলির মাজার জিয়ারত করলেন এরশাদপুত্র  » «   যে কারণে যুবলীগ বাসনা জবি ভিসির  » «   পাক সেনার গুলিতে ভারতীয় ২ সেনাসহ নিহত ৩  » «   ব্রিটিশ পার্লামেন্টে আবার আটকে গেল ব্রেক্সিট চুক্তি  » «   বিকেলে যুবলীগের সঙ্গে বসছেন শেখ হাসিনা  » «   সীমান্ত থেকে বাংলাদেশিকে ধরে নিয়ে গেছে বিএসএফ  » «   কাউন্সিলর রাজীব গ্রেপ্তার  » «   যুবলীগ সভাপতির দায়িত্ব পেলে ভিসি পদ ছাড়তে রাজি ড. মীজান  » «   সোমবার শহীদ মিনারে নেওয়া হবে চিত্রশিল্পী কালিদাসের মরদেহ  » «   উত্তাল লেবানন, বাংলাদেশিদের সতর্কভাবে চলাফেরার পরামর্শ  » «   সম্রাটের অনুষ্ঠানে যোগ দিতে জাপান যাচ্ছেন রাষ্ট্রপতি  » «   যুবলীগের সম্মেলন: চেয়ারম্যান পদে যাদের নাম আলোচনায়  » «  

নেইমারকে পতিতালয়ে বিক্রি করতে সমর্থকদের ব্যানার



স্পোর্টস ডেস্ক:: দলবদল বিষয়ক ঝামেলার কারণে প্রথম চার ম্যাচে মাঠে নামতে পারেননি নেইমার জুনিয়র। সে চার ম্যাচের মধ্যে তিনটিতে জিতলেও, একটিতে হেরে গিয়েছিল প্যারিস সেইন্ট জার্মেইন। ড্র করতে বসেছিল পঞ্চম ম্যাচে। তবে তাদের উদ্ধার করেছেন মৌসুমে প্রথমবারের মতো মাঠে নামা নেইমার। অতিরিক্ত যোগ করা সময়ে অসাধারণ এক বাইসাইকেল কিকে গোল করে দলকে ১-০ গোলের জয় পাইয়ে দিয়েছেন এ ব্রাজিলিয়ান তারকা। তবু সারা ম্যাচজুড়েই তাকে শুনতে হয়েছে দর্শকদের দুয়ো।

সামার ট্রান্সফারে দলবদল নিয়ে অনেক জলঘোলা হয়েছে। মেসির চাওয়ায় একের পর এক বিড করেও দলে ভেড়াতে পারেনি বার্সেলোনা। শেষ মুহুর্তে নেইমার নিজের পকেট থেকে ২০ মিলিয়ন ইউরো দিতে চেয়েছিলেন নেইমার। তবুও কাতালানে ফেরা হয়নি তার। এতেই চটেছে প্যারিসের সমর্থকেরা।

গত ম্যাচের প্যারিসের আল্ট্রাসদের দুইটা প্ল্যাকার্ড, প্রথমটায় লেখা ছিল, “মেসির কাছে ফিরে যেতে ২০ মিলিয়ন নিজের পকেট থেকে খরচ করতে চাওয়া বেশ্যার স্থান পিএসজিতে নেই।” সমর্থকেরা দ্বিতীয় প্ল্যাকার্ডে লেখে ,“নেইমারের বাবার উচিত তাকে ভিলা মিমোসায় (ব্রাজিলের সবচেয়ে বড় পতিতালয়) বিক্রি করা।”

এসব কিছু সহ্য করেই সারা ম্যাচ খেলেছেন নেইমার। তবে ম্যাচ শেষে এগুলোকে পাত্তা না দিয়ে বরং দলের জয়টাই বেশি উপভোগ করার কথা জানান তিনি। নেইমারের ভাষ্য, ‘এবারই প্রথম না যে সবাই আমাকে দুয়ো দিচ্ছে। তবে এটা ভেবে মন খারাপ হচ্ছে যে, সামনের সবগুলো ম্যাচই আমার এমন পরিস্থিতির মধ্য দিয়ে খেলতে হবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমি শুরুতেই পরিষ্কার জানিয়েছিলাম যে, আমি সমর্থক বা পিএসজি ক্লাবের বিপক্ষে নই। সবাই জানতো যে আমি ক্লাব ছাড়তে চাই। আমি স্ববিস্তরে ব্যাখ্যায় যাচ্ছি না। এখন সামনে তাকানোর সময়। আমি বর্তমানে পিএসজির খেলোয়াড় এবং এ দলের জন্য মাঠে আমি সবকিছু করতে রাজি।’

আগামী বুধবার উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের ম্যাচে রিয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে খেলতে নামবে পিএসজি। কিন্তু নিষেধাজ্ঞার কারণে সে ম্যাচটি খেলতে পারবেন না নেইমার। তিন ম্যাচের শাস্তি থাকায়, চ্যাম্পিয়নস লিগে পিএসজির পরের দুই ম্যাচেও খেলা হবে না নেইমারের।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: