সোমবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
নির্বাচনে রোহিঙ্গাদের সম্পৃক্ততা প্রতিরোধে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে ইসির নির্দেশনা  » «   চিকিৎসা বিষয়ে খালেদার রিটের আদেশ আজ  » «   তারেক রহমান মনোনয়ন প্রত্যাশীদের কাছে যা জানতে চাচ্ছেন  » «   চ্যারিটেবল মামলায় দণ্ডের বিরুদ্ধে খালেদার আপিল  » «   সিরিয়ায় মার্কিন বিমান হামলা; শিশু ও নারীসহ নিহত ৪৩  » «   থার্টি ফার্স্ট নাইট উদযাপনে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের নিষেধাজ্ঞা  » «   দু’দিনের মধ্যেই খাশোগি হত্যার পরিপূর্ণ তদন্ত রিপোর্ট : ট্রাম্প  » «   বিএনপির মনোনয়ন প্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার নিচ্ছেন তারেক  » «   বাড়িতে বাবার লাশ, পিএসসি পরীক্ষা দিতে গেল মেয়ে  » «   প্রবাসী স্ত্রীকে লাইভে রেখে সিলেটের স্বামীর আত্মহত্যা!  » «   খাশোগি হত্যা: যুক্তরাষ্ট্র-সৌদির নীল নকশা ও তুরস্কের উদ্দেশ্য  » «   দুই নম্বরি কেন ১০ নম্বরি হলেও ঐক্যফ্রন্ট নির্বাচনে থাকবে: ড. কামাল  » «   বোরকার বিরুদ্ধে সৌদি নারীদের অভিনব প্রতিবাদ  » «   আজ থেকে শুরু হচ্ছে প্রাথমিক ও ইবতেদায়ী সমাপনী পরীক্ষা  » «   সিডরে নিখোঁজ শহিদুল বাড়ি ফিরলেন ১১ বছর পর!  » «  

নিহতদের মধ্যে যাদের পরিচয় পাওয়া গেছে



নিউজ ডেস্ক::খাগড়াছড়ি জেলা সদরে স্বনির্ভর বাজার এলাকায় পাহাড়ি দুই আঞ্চলিক সংগঠনের দুই গ্রুপের গোলাগুলিতে ছয়জন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও বেশকয়েকজন। হতাহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলেও আশঙ্কা করা হচ্ছে। আধিপত্য বিস্তার নিয়ে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে বলে স্থানীয়রা জানিয়েছেন।

শনিবার সকাল ৯টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। নিহতরা সবাই ইউপিডিএফ-এর প্রসিত বিকাশ খীসা গ্রুপের সদস্য বলে জানা গেছে।

নিহত ছয়জনের মধ্যে চারজনের পরিচয় পাওয়া গেছে, তারা হলেন- পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের (পিসিপি) খাগড়াছড়ি জেলা শাখার ভারপ্রাপ্ত সভাপতি তপন কান্তি চাকমা, পিসিপির যুগ্ম সম্পাদক এলটন চাকমা (২৮), জীতায়ন চাকমা (মহালছড়ি স্বাস্থ্য সহকারী) ও বরুন চাকমা।

স্থানীয়রা জানান, দীর্ঘদিন থেকে ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট- ইউপিডিএফ (প্রসিত গ্রুপ) এবং ইউপিডিএফ (গণতান্ত্রিক) এই দুই গ্রুপের মধ্যে এলাকায় আধিপত্য নিয়ে বিরোধ চলছিল।

শনিবার উপজেলার স্বনির্ভর এলাকায় স্থানীয়দের নিয়ে সাধারণ জনসভার আয়োজন করে ইউপিডিএফ প্রসিত গ্রুপ। সকালে সভা শুরুর পর ইউপিডিএফ-গণতান্ত্রিক গ্রুপের লোকজন অতর্কিত হামলা চালায়।

এসময় গোলাগুলিতে অন্তত নয়জন গুলিবিদ্ধ হন। তাদের সদর হাসাপাতালে নেয়া হলে সেখানে দায়িত্বরত চিকিৎসক ছয়জনকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করে সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাহাদাৎ হোসেন টিটিু জানান, নিহতদের লাশ সদর হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে।

নিহতরা সবাই ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্টের (ইউপিডিএফ- প্রসিত খিসা) সদস্য বলে দাবি করেছেন দলটির কেন্দ্রীয় সংগঠক মাইকেল চাকমা। তিনি এ ঘটনার জন্য পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতি (জেএসএস-এম এন লারমা) গ্রুপকে দায়ী করেছেন।

তবে এ ব্যাপারে এখনো জেএসএস-এম এন লারমার পক্ষ থেকে কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

এদিকে ঘটনার পর থেকে ওই এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে ওই এলাকায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: