শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ বৈশাখ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
নুসরাত হত্যা : পুলিশের ভূমিকার বিচার বিভাগীয় তদন্ত চায় টিআইবি  » «   রাজীবের মৃত্যুর এক বছরেও মেলেনি ক্ষতিপূরণের কানাকড়ি  » «   দুর্যোগ সম্পর্কে সচেতনতামূলক প্রচারণা জরুরি : প্রধানমন্ত্রী  » «   বিএনপির ১৪ শীর্ষ নেতাদের জামিন বহাল  » «   একসঙ্গে পুড়ল তিন ভাইয়ের ‘স্বপ্ন’  » «   সিগারেট খেলে ফ্রিজ ফ্রি!  » «   রমজানে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম বাড়বে না : বাণিজ্যমন্ত্রী  » «   পাকিস্তানে নির্মিত হচ্ছে বিশ্বের তৃতীয় বৃহত্তম মসজিদ  » «   জাতিসংঘে বাংলাদেশ স্থায়ী মিশনে ‘মুজিবনগর দিবস’ উদযাপন  » «   ব্রুনাই সফরে ৬ সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর করবেন প্রধানমন্ত্রী  » «   বিশ্বের প্রভাবশালী ১০০ ব্যক্তির তালিকা প্রকাশ  » «   প্যারোলে মুক্তি ও এমপিদের শপথ গ্রহণ : যা ভাবছেন খালেদা জিয়া ও বিএনপি  » «   আপিলে হারলো যুক্তরাজ্য সরকার, কাটতে পারে বহু বাংলাদেশির ভিসা জটিলতা  » «   বিয়ের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় কলেজছাত্রীকে ছুরিকাঘাত  » «   লিবিয়ায় গৃহযুদ্ধ: নিরাপদ স্থানে সরানো হলো ৩০০ বাংলাদেশিকে  » «  

নির্বাচনে মোদির বিরুদ্ধে লড়বেন ১১১ কৃষক



আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: রাজধানী দিল্লিতে প্রতিবাদ করার পর তামিল নাডুর কৃষকরা এবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বিরুদ্ধে নির্বাচনী লড়াইয়ে নামার পরিকল্পনা করেছেন। তামিল নাডুর ১১১ জন কৃষক লোকসভা নির্বাচনে উত্তর প্রদেশের বারানসি থেকে মোদির বিরুদ্ধে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন বলে গত শনিবার জানিয়েছেন রাজ্যটির কৃষক নেতা পি আইয়াকান্নু।

আইয়াকান্নু সাউথ ইন্ডিয়ান রিভার্স ইন্টারলিংকিং ফার্মার্স অ্যাসোসিয়েশনেরও সভাপতি। এর আগে ২০১৭ সালে দিল্লিতে কৃষকদের ১০০ দিনের আন্দোলনের নেতৃত্ব দিয়েছিলেন তিনি। তিনি বলেন, ‘কৃষিপণ্যের লাভজনক দাম’সহ তাদের দাবিগুলো পূরণ করা হবে, বিজেপির নির্বাচনী ইশতাহারে এমন ঘোষণা সংযুক্তের ক্ষেত্রে চাপ সৃষ্টি করতেই উত্তর প্রদেশের এ আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

বার্তা সংস্থা পিটিআইকে তিনি বলেছেন, ‘যে মুহূর্তে তারা তাদের ইশতাহারে এটা নিশ্চিত করবে যে আমাদের দাবি পূরণ করা হবে, আমরা মোদির বিরুদ্ধে প্রতিদ্বন্দ্বিতার সিদ্ধান্ত বাদ দিবো।’ যদি এটা না করা হয় তাহলে তারা প্রধানমন্ত্রী মোদির বিরুদ্ধে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতার এই সিদ্ধান্তের প্রতি সব এলাকার কৃষকদের ও অল ইন্ডিয়া কৃষাণ সাংঘার্ষ কো-অর্ডিনেট কমিটির সমর্থন আছে বলে জানিয়েছেন তিনি। কেন তারা শুধু বিজেপির নির্বাচনী ইশতাহারে তাদের দাবি পূরণের আশ্বাস চাইছেন, কংগ্রেস বা অন্য দলের ইশতাহারে এ দাবি পূরণের আশ্বাস কেন চাইছেন না, এমন প্রশ্নে আইয়াকান্নু জানান, এখনো বিজেপিই ক্ষমতাসীন দল এবং মোদিই দেশের প্রধানমন্ত্রী।৩০০ কৃষককে নিয়ে বারানসি যাওয়ার জন্য তারা ট্রেনের টিকিট কেটে রেখেছেন বলেও জানিয়েছেন তিনি।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: