মঙ্গলবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ২ আশ্বিন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
চতুর্থ ড্রিমলাইনার ‘রাজহংস’ উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী  » «   সুনামগঞ্জে অজ্ঞাতনামা যুবকের মরদেহ উদ্ধার  » «   বন্দরবাজার থেকে ইয়াবাসহ দুই মাদক ব্যবসায়ী আটক  » «   আফগান প্রেসিডেন্টকে লক্ষ্য করে বোমা হামলা, নিহত ২৪  » «   বিভাগীয় শহরে হচ্ছে পূর্ণাঙ্গ ক্যান্সার চিকিৎসাকেন্দ্র  » «   মৌলভীবাজার থেকে হত্যা মামলার দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি গ্রেপ্তার  » «   হবিগঞ্জে বিজিবির অভিযানে ১৯ কেজি গাঁজা উদ্ধার  » «   উপজেলা নির্বাচন: হবিগঞ্জ আ.লীগের ১০ বিদ্রোহী প্রার্থীকে শোকজের চিঠি  » «   রোমে যে কারণে আলোচিত প্রবাসী বাংলাদেশি তরুণ  » «   বিকেলে ‘রাজহংস’ উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী  » «   বিতর্কিত আইনে কাশ্মিরের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী গ্রেপ্তার  » «   অপমানজনক বিতাড়ণের আগে সিনেট ও ডাকসু ছাড়ুন: শোভন-রাব্বানীকে ভিপি নুর  » «   পেঁয়াজ নেই, তবুও বিক্রির ঘোষণা টিসিবির!  » «   শর্ত ভেঙে ‘অযোগ্য’ প্রতিষ্ঠানকে কাজ দিচ্ছে গণপূর্ত  » «   মেট্রোরেলের জন্য আলাদা পুলিশ ইউনিট গঠনের নির্দেশ  » «  

নির্বাচনে পুতিন কী চান



আন্তর্জাতিক ডেস্ক :: ডেমোক্র্যাট ন্যাশনাল কমিটি এক ই-মেইলে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ভোটগ্রহণ ব্যবস্থায় রাশিয়ার সমর্থনে সাইবার হামলার আশঙ্কা করছে। এ সংক্রান্ত খবর ইতিমধ্যেই বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছে। এ অবস্থায় রাশিয়া তথা প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমার পুতিনস্বার্থ কী এবং যুক্তরাষ্ট্রে করণীয় নিয়ে গত ৬ নভেম্বর মার্কিন প্রভাবশালী ম্যাগাজিন দ্যা আটলান্টিক এক যৌথ আলাপধর্মী প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। প্রতিবেদনে রাশিয়ার দৃষ্টিভঙ্গীকে গুরুত্ব দেয়া হয়েছে। পত্রিকাটি যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডেমোক্র্যাট প্রার্থী হিলারি ক্লিনটনকে অনুমোদন দিয়েছে। ১৮৫৭ সাল থেকে প্রকাশিত পত্রিকাটি এ নিয়ে তৃতীয়বারের মতো কোনো প্রেসিডেন্ট প্রার্থীকে অনুমোদন দিল। দ্যা আটলান্টিকে প্রকাশিত আধুনিক রাশিয়া বিষয়ক অনুসন্ধানী সাংবাদিক ও লেখক পিটার পোমেরাসাটসেভ এবং আরকেডে ওস্তারভস্কির যৌথ আলাপে তারা বলেছেন— পুতিনের লক্ষ্য সম্পর্কে তারা কী জানেন এবং জানেন না। তবে তারা মনে করেন, যাই কিছু হোক— রক্তপাতহীনভাবেই হোক।

আলাপের এক পর্যায়ে ওস্তারভস্কি বলেন, বর্তমান রাশিয়া সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়ন থেকেও খুব ভয়ঙ্কর। তিনি আরো বলেছেন, রাশিয়া আসলে সাইবার হামলার পরিকল্পনা করছে কিনা সে বিষয়ে আমার সন্দেহ আছে। রাশিয়ার সঙ্গে পশ্চিমের যে আদর্শিক বিরোধ সে বিষয়ে আমাদের ভুল ধারণা রয়েছে। আসলে পুতিন দেখানোর চেষ্টা করছেন রাশিয়ার সঙ্গে পশ্চিমের আদতে কোনো পার্থক্য নেই। যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচন প্রসঙ্গে পুতিনের দৃষ্টিকোণ বিচার করে ওস্তারভস্কি বলেন, আমি মনে করি না পুতিন সত্যিই মনে করেন ট্রাম্প নির্বাচনে জয়ী হতে পারবেন। আবার তিনি এটাও মনে করেন না কোনো কোনো বিচারে হিলারিও যথেষ্ট যোগ্য। প্রতিনিয়ত পুতিনের বিরোধ অন্য কারো সঙ্গে। যদিও অল্প ব্যবধানেও হিলারী জয়ী হন এবং তার রণকৌশল যদি সীমাবদ্ধ হয়ে যায়— তাহলে পুতিন হয়তো খুশিই হবেন। তাই এই মুহূর্তে বলা যায়, তিনি আসলে গোটা যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনের পদ্ধতির বিরুদ্ধে লড়ছেন।

হিলারি জয়ী হলে পুতিনকে প্রত্যাখ্যান করবেন কিনা— পিটারের এমন জিজ্ঞাসার জবাবে ওস্তারভস্কি বলেন, ইউএস মডেলকে কম আকর্ষণীয় করে তুলতে চান পুতিন। এ নির্বাচনটি তাকে এ ক্ষেত্রে চমত্কার উপায় হিসেবে সাহায্য করছে। তিনি আরো বলেন, পশ্চিমের পারমাণবিক যুদ্ধে রাশিয়ার আত্মরক্ষার বিষয়ে তিনি অনেক মনোযোগী। বরং পশ্চিমের যে কোনো বিষয়ে প্রথম পদক্ষেপ নেয়ার প্রবণতাটির অবসান চান পুতিন।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: