রবিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৭ খ্রীষ্টাব্দ | ৯ আশ্বিন ১৪২৪ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
চীনের পাতা ফাঁদে মিয়ানমার  » «   আইটেম গানে নাচবেন শাকিব-মিম  » «   মডেল থেকে জঙ্গি : ল্যাপটপে চাঞ্চল্যকর তথ্য!  » «   ‘উত্তর কোরিয়ার পাগলকে শিক্ষা দিতে যাচ্ছি’  » «   বাড্ডায় অগ্নিকাণ্ডে নিহত ১, দগ্ধ ২  » «   সাপাহারে দূর্গা পূজার প্রতিমা তৈরীর কাজ শেষ: বাঁকী প্রতিমার সাজ সজ্জা  » «   দিনাজপুরে বজ্রপাতে ৮ জনের মৃত্যু  » «   এবার ধর্ষণের অভিযোগে ফলপ্রিয় ‘ফলাহারি বাবা’ গ্রেফতার  » «   ‘হালে পানি না পেয়ে প্রধানমন্ত্রীর নিখুঁত প্রচেষ্টায় খুঁত ধরার অপচেষ্টা বিএনপির’  » «   মেক্সিকোয় ভূমিকম্পে ৮ বিদেশি নাগরিক নিহত  » «   আবেগ লুকিয়ে রাখা মোটেও বুদ্ধিমানের কাজ নয়  » «   খুলনায় ‘চিংড়িতে জেলি’ পুশের অভিযোগ  » «   আমেরিকায় একই ফ্রেমে বাংলাদেশের ৮ তারকা  » «   পাকিস্তানি ব্যাংকে দুর্নীতি: কয়েকজন বাংলাদেশি জড়িত  » «   তথ্য প্রযুক্তিতে বাংলাদেশ অনেক দূর এগিয়ে গেছে: ড. জাফর ইকবাল  » «  

নিজের বাজে পারফরমেন্স নিয়ে যা বললেন সৌম্য



স্পোর্টস ডেস্ক ::
সর্বশেষ অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ব্যাট হাতে সৌম্য সরকারের অবদান ৮, ১৫ ও ৩৩, ৯ । এরপরও তাকে দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে ১৫ সদস্যের দলে রাখতে একটুও দ্বিধা করেনি নির্বাচকরা। বিশেষ করে প্রধান কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহে তো সৌম্যকে ছাড়া দল ভাবতেই পারেন না। যে কারণে আলোচনা সমালোচনার শেষ নেই। কেন দলে রাখা হচ্ছে সৌম্যকে? তবে একটু পেছনে ফিরে তাকালে তার জবাবটাও পরিষ্কার। অস্ট্রেলিয়ার সিরিজের আগে ৮ ইনিংসে ৪ ফিফটি। তাও দেশের বাইরে। তাই দল ভরসা হারায়নি তার ওপর। সৌম্যও দলের আস্থার মান রাখতে চান। অবশ্য তার চেয়ে বেশি এখন সমালোচনারও জবাব দিতে চান। তবে সেটি ব্যাট হাতেই।

গতকাল মিরপুর শেরে বাংলা মাঠের একাডেমি ভবনে জিম করতে করতেই জানালেন সেই লক্ষ্যের কথা।। তিনি বলেন, ‘এই সময়টায় ফেসবুকে কম যাওয়ার চেষ্টা করি। যেহেতু আমাদের দেশে কেউ ভালো খেললে তাকে নিয়ে অনেক আলোচনা হয়, খারাপ খেললেও কথা হবেই। এটাকে ইতিবাচকভাবে দেখি। ভালো-মন্দ যাই হোক, সবাই আমাকে নিয়েই কথা বলছে। এসব ভেবে মানসিকভাবে শক্ত থাকার চেষ্টা করি। সমালোচকদের চুপ করানোর একটাই উপায় আছে, সেটা হলো রান করা। আমি কঠোর পরিশ্রম করছি রান করার জন্য।’

দক্ষিণ আফ্রিকাতে সবার ভয় গতি আর বাউন্সকে। সৌম্য অবশ্য এতে বেশ খুশি। কারণ নিজ দেশের মতো অন ইভেন উইকেট সেখানে নেই। বাউন্স হলে তা একটি ধারাতেই থাকবে। কোনটা বেশি বা কোনটা কম হবে তাও নয়। তিনি বলেন, ‘কঠিন সিরিজ হবে। তারপরও তো খেলতেই হবে! চেষ্টা করবো বাউন্সি উইকেটে যেভাবে রান করা যায়, সেখানে ওইভাবে খেলতে। মানসিকভাবেও সেভাবে প্রস্তুত হবো। তবে কঠিনের মধ্য দিয়েই ভালো করতে পারলে সেটা বেশি মর্যাদা পাবো। নিজেকেও আত্মবিশ্বাসী মনে হবে। ওদের মাটিতে, ওদের কন্ডিশনে গিয়ে ভালো কিছু করতে পারলে আলাদা মজা থাকবে। চেষ্টা করবো ভালো কিছু করার এবং পেছনের ম্যাচগুলো ভুলে যাওয়ার।’

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: