রবিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৭ খ্রীষ্টাব্দ | ৯ আশ্বিন ১৪২৪ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
চীনের পাতা ফাঁদে মিয়ানমার  » «   আইটেম গানে নাচবেন শাকিব-মিম  » «   মডেল থেকে জঙ্গি : ল্যাপটপে চাঞ্চল্যকর তথ্য!  » «   ‘উত্তর কোরিয়ার পাগলকে শিক্ষা দিতে যাচ্ছি’  » «   বাড্ডায় অগ্নিকাণ্ডে নিহত ১, দগ্ধ ২  » «   সাপাহারে দূর্গা পূজার প্রতিমা তৈরীর কাজ শেষ: বাঁকী প্রতিমার সাজ সজ্জা  » «   দিনাজপুরে বজ্রপাতে ৮ জনের মৃত্যু  » «   এবার ধর্ষণের অভিযোগে ফলপ্রিয় ‘ফলাহারি বাবা’ গ্রেফতার  » «   ‘হালে পানি না পেয়ে প্রধানমন্ত্রীর নিখুঁত প্রচেষ্টায় খুঁত ধরার অপচেষ্টা বিএনপির’  » «   মেক্সিকোয় ভূমিকম্পে ৮ বিদেশি নাগরিক নিহত  » «   আবেগ লুকিয়ে রাখা মোটেও বুদ্ধিমানের কাজ নয়  » «   খুলনায় ‘চিংড়িতে জেলি’ পুশের অভিযোগ  » «   আমেরিকায় একই ফ্রেমে বাংলাদেশের ৮ তারকা  » «   পাকিস্তানি ব্যাংকে দুর্নীতি: কয়েকজন বাংলাদেশি জড়িত  » «   তথ্য প্রযুক্তিতে বাংলাদেশ অনেক দূর এগিয়ে গেছে: ড. জাফর ইকবাল  » «  

নামাজের মধ্যে অজু ভাঙলে কী করব?



ইসলাম ডেস্ক::নামাজ, রোজা, হজ, জাকাত, পরিবার, সমাজসহ জীবনঘনিষ্ঠ ইসলামবিষয়ক প্রশ্নোত্তর অনুষ্ঠান ‘আপনার জিজ্ঞাসা’। জয়নুল আবেদীন আজাদের উপস্থাপনায় বেসরকারি একটি টেলিভিশনের জনপ্রিয় এ অনুষ্ঠানে দর্শকদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন বিশিষ্ট আলেম ড. মুহাম্মদ সাইফুল্লাহ।

প্রশ্ন : নামাজের ভেতর অনেক সময় অজু ভেঙে যায়। তখন কি আবার অজু করে প্রথম থেকে নামাজ পড়ব, নাকি যেখানে এসে অজু ভেঙেছে সেখান থেকে পড়ব?

উত্তর : সালাতের মধ্যে কোনো কারণে যদি আপনার অজু নষ্ট হয়ে যায়, তাহলে যেখানে আপনার সালাতে অজু নষ্ট হয়ে গেছে, অজু করে এসে সেখান থেকে সালাত আদায় করবেন। আবার নতুন করে সালাত আদায় করার দরকার নেই। কারণ, আপনি তো সালাতের একটা অংশ আদায় করেছেনই এবং সালাতের ওই অংশটুকু, যেটা আপনি আদায় করেছেন, সেটা কিন্তু বৈধ বা গ্রহণযোগ্য। যেহেতু ফরজ ইবাদত যেভাবে আদায় করা দরকার, আপনি সেভাবেই আদায় করেছেন। তাহরাতের সঙ্গে পালন করেছেন। সুতরাং আপনার সেই বৈধ ইবাদতটুকু কীভাবে নষ্ট করবেন, ‘তোমরা তোমাদের আমলসমূহ বাতিল করো না।’

স্বেচ্ছায় কোনো আমল বাতিল করা জায়েজ নেই, নাজায়েজ কাজ। তাই কোনোভাবেই আপনি আপনার আমল বাতিল করতে পারবেন না। সালাতে দুই রাকাত আপনি আদায় করেছেন, দুই রাকাতের পরে আপনি সালাতে এসে আবার বাকিটুকু শেষ করবেন। অজু যদি আপনার নষ্ট হয়ে যায়, তাহলে অজু করে এসে দ্বিতীয় রাকাত থেকে আপনি সালাত শেষ করবেন। এ ক্ষেত্রে প্রথম থেকে আদায় করাটি সালাতের সুন্নাহ পরিপন্থী কাজ, এটা জায়েজ নয়।

অনেকে মনে করেন, প্রথম থেকে শুরু করলে অসুবিধা নেই। এটি সুবিধা-অসুবিধার বিষয় না, বিধান যেটা সেটা অনুসরণ করাটার নামই হচ্ছে দ্বীন। ইসলাম যে বিধান দিয়েছে, সেই বিধান অনুসরণ করাটাই হচ্ছে বিধান। এখানে অসুবিধা হচ্ছে, আগের ইবাদতটা আপনি বাতিল করলেন কিসের ভিত্তিতে? যেহেতু বাতিল করার কোনো বৈধতা নেই, সেটি দেওয়া হয়নি। এই বৈধতাটুকু আপনি পাননি, বাতিল করাটা অন্যায়। এই অন্যায় কাজের বৈধতা আপনাকে দেওয়া হয়নি। তাই সেভাবে আপনি সালাত আদায় করতে পারেন না। যেখানে সালাত নষ্ট হয়েছে, সেখান থেকেই আপনি সালাত শেষ করবেন।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: