রবিবার, ২৬ জানুয়ারী ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ১৩ মাঘ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
লন্ডনে দ্বিতীয় জনপ্রিয় ভাষা বাংলা  » «   ঘুষের টাকাসহ হাতেনাতে সাব-রেজিস্ট্রার আটক  » «   আর কোনো হায়েনার দল বাংলার বুকে চেপে বসতে পারবে না  » «   সিলেটে মুক্তিযুদ্ধের পাণ্ডুলিপি সংগ্রহ করলেন প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী  » «   ফের জাতীয় পার্টির ঢাকা জেলা শাখার সভাপতি সালমা ইসলাম এমপি  » «   বিয়ানীবাজারে ৯৯০ পিস ইয়াবাসহ পেশাদার মাদক ব্যবসায়ী আটক  » «   আয়কর দিবস উপলক্ষে সিলেটে বর্ণাঢ্য র‌্যালি  » «   এবার শ্রীমঙ্গলে ট্রেনের ইঞ্জিনে আগুন  » «   বেলজিয়ামে মসজিদে তালা দেওয়ায় বাংলাদেশিদের প্রতিবাদ  » «   পায়রা উড়িয়ে জাতীয় পার্টির ঢাকা জেলা শাখার সম্মেলন উদ্বোধন  » «   ভারতের অর্থনীতির দুরবস্থা, জিডিপি কমে সাড়ে ৪ শতাংশ  » «   পায়রা উড়িয়ে সম্মেলন উদ্বোধন করলেন শেখ হাসিনা  » «   লন্ডন ব্রিজে আবারও সন্ত্রাসী হামলা, নিহত ২  » «   চীন থেকে মা-বাবার জন্য পেঁয়াজ নিয়ে এলেন মেয়ে  » «   রক্তে ভাসছে ইরাক, নিহত ৮২  » «  

নানা দেশের ঐতিহ্যবাহী নাস্তা



opuroni_1347216677_1-breakfast2লাইফ স্টাইল ডেস্ক :: জাতীয় নাস্তা সপ্তাহ পালন হলে কেমন হতো বলুন তো? মজার সব খাবার খেয়ে সপ্তাহ পার! খাবার দাবারে যাদের অনীহা তাদের কথা ছেড়ে দিলাম, কিন্তু রসনা বিলাসী কেউ এমন কথা শুনলে লাফিয়ে ওঠবেন সহজেই। তারপরও, বিশ্বের বিভিন্ন দেশের সেরা খাবারটি দিয়ে নাস্তা সপ্তাহ সাজালে আর কথাই থাকে না। সুন্দরভাবে আপনার খাদ্য সপ্তাহ সাজাতে জেনে নেয়া যাক বিশ্বের নানা দেশের ঐতিহ্যবাহী নাস্তা সম্বন্ধে।

* জাপানিদের সকালের সবচেয়ে উত্তম নাস্তার মধ্যে বিশেষ ধরনের স্যুপ আর সাদা ভাতের প্রচলন বেশি। সঙ্গে থাকতে পারে সয়াবড়ি, সামুদ্রিক শৈবাল জাতীয় খাবার এবং একটি ডিম পোজ।

* দক্ষিণ ভারতের হাইদ্রাবাদের ঐতিহ্যবাহী খাবার হিসেবে একটি সুস্বাদু পিঠা প্রচলিত আছে। পিঠাটি মুলত আলু পুরে রোল আকারের। এটা পরিবেশন করা হয় চাটনি এবং সাম্বা (বিশেষ ধরনের সবজি রান্না) দিয়ে।

* ইসরাইলের খাবার স্টাইলে আপনি উদ্বুদ্ধ হবেন সহজেই। তাদের ঐতিহ্যবাহী এ খাবার দেশর সব হোটেল এবং রেস্টুরেন্ট একযোগে প্রচলিত। সাকসোকা নামের একটি খাবার (টমেটো সস দিয়ে বিশেষভাবে ডিম রান্না), আগুনে ঝলসানো মাছ, পনির এবং রান্না তাজা সবজি খেয়ে থাকেন।

* ইতালির একটি দিন কাটে না কফি ছাড়া। তাছাড়া হোটেল রেস্টুরেন্ট বা বারে বসে কেউ সকালের নাস্তাটা সেরে নিতে চাইলে পাস্তা, রুটি, পনির, এবং ফল খেতে হবে।

* যুক্তরাজ্যের সকালের নাস্তায় প্রধানত লবণযুক্ত মাংস, ডিম, সস, মাসরুম, বিন, টমেটো, ব্লাক পুডিং, টোস্ট এবং এককাপ গরম চা থাকতে পারে।

* সেনেগালের মানুষের সকালটা শুরু হয় এককাপ তবার (এক প্রকার কফি) সঙ্গে। কিছু ফল, পেস্ট্রি, পেডিস খেয়ে তারা সকালের নাস্তাটা সমৃদ্ধ করেন।

* ইউরোপীও কিছু দেশে সকালের নাস্তায় ফল, রুটি, পনির এবং মজার এককাপ কফি থাকা চায়-ই।

নাস্তার ভিন্নতা আনতে খেতে পারেন একেকদিন একেক খাবার। এখন আপনিই ঠিক করুন আপনার সকালের নাস্তায় কোন খাবারটি থাক

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: