রবিবার, ১৮ নভেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
প্রবাসী স্ত্রীকে লাইভে রেখে সিলেটের স্বামীর আত্মহত্যা!  » «   খাশোগি হত্যা: যুক্তরাষ্ট্র-সৌদির নীল নকশা ও তুরস্কের উদ্দেশ্য  » «   দুই নম্বরি কেন ১০ নম্বরি হলেও ঐক্যফ্রন্ট নির্বাচনে থাকবে: ড. কামাল  » «   বোরকার বিরুদ্ধে সৌদি নারীদের অভিনব প্রতিবাদ  » «   আজ থেকে শুরু হচ্ছে প্রাথমিক ও ইবতেদায়ী সমাপনী পরীক্ষা  » «   সিডরে নিখোঁজ শহিদুল বাড়ি ফিরলেন ১১ বছর পর!  » «   ভাওতাবাজির জন্য সরকারকে গোল্ড মেডেল দেওয়া উচিৎ: ড. কামাল  » «   দিল্লির লাল কেল্লা দখলের হুমকি পাকিস্তানের!  » «   সত্য বলায় এসকে সিনহাকে জোর করে বিদেশ পাঠানো হয়েছে: মির্জা ফখরুল  » «   নির্বাচনী কর্মকর্তারা পক্ষপাতিত্ব করলে শাস্তি হবে: নির্বাচন কমিশনার  » «   গোলান মালভূমিতে সিরিয়ান মালিকানা জাতিসংঘে অনুমোদন  » «   শ্রীলংকার পার্লামেন্টে স্পিকারের চেয়ার দখল, সংঘর্ষে আহত একাধিক এমপি  » «   আজ মওলানা ভাসানীর ৪২তম মৃত্যুবার্ষিকী  » «   কে হবেন প্রধানমন্ত্রী: উত্তরে যা বললেন ড. কামাল  » «   ক্যালিফোর্নিয়া দাবানল: নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৫৯  » «  

নবীগঞ্জে রাতের আধারে ১১০টি গাছ কর্তন



নিউজ ডেস্ক::নবীগঞ্জ উপজেলার আউশকান্দি ইউনিয়নের আলমপুর দূর্লভ ঠাকুরের আখড়ার শতাধিক গাছ কর্তন করে ফেলেছে দূর্বৃত্তরা। এই ঘটনায় সনাতন ধর্মালম্বী ও আখড়া কমিটির লোকজনের মধ্যে তীব্র ক্ষোভ ও নিন্দার ঝড় বইছে।

জানা যায়, উপজেলার আউশকান্দি ইউনিয়নের আলমপুর গ্রামের দূর্লভ ঠাকুরের আখড়ার সীমানা প্রাচীর বাশের বেড়া ও ১১০টি আকাশি গাছের চাড়া রাতের আধারে কর্তন করেছে একদল দূর্বৃত্ত।

এ ঘটনায় আখড়ার সেবায়িত কৃষ্ণদাশ বৈষ্ণব এ প্রতিবেদককে জানান, আখড়ার সীমানা প্রাচীর বাশের বেড়া দিয়ে প্রায় বছর খানেক পূর্বে আখড়ার নিজস্ব ভূমিতে গাছ রোপন করেন সেবায়িত। এই গাছ রোপন এর পরে ও বাশের বেড়া তুলে মন্দীরের নিকটবর্তী স্থান দিয়ে আসা যাওয়ার সুযোগ করে দেওয়ার জন্য গ্রামের পঞ্চায়েত পক্ষে বিশিষ্ট মুরুব্বী হাজী মছদ্দর আলী ও সিতার মিয়া গংদের নিকট আকুল আবেদন জানায় একই গ্রামের মৃত হরমন নমসূত্রের পূত্র হরি নমসূত্র।

এরই প্রেক্ষিতে পঞ্চায়েত পক্ষের পক্ষ থেকে সেবায়িতের সাথে আলাপ আলোচনা করে মোঃ সিতার মিয়া, হরি নমসূত্রের সুবিধার্থে কিছু অংশের বাশের বেড়া তুলে আসা যাওয়ার সুযোগ করে দেন গত বৃহস্পতিবারে, তবে আখড়ার সেবায়িত আরো বলেন, পঞ্চায়েত পক্ষের মিমাংশায় হরি নমসূত্রের মন ভরেনি, সে ও তার পরিবার প্রায় ৪০ বৎসর যাবত ঐ আখড়ার ভূমিতেই বসবাস করছে।

আবার সীমানা প্রাচীর বেড়া দেওয়ার জেড় ধরে হরি নমসূত্র রাতের আধারে ১১০টি গাছ নির্বিচারে কর্তন করে ফেলে। তাকে এই বিষয়ে আখড়া কমিটির পক্ষ থেকে কয়েক দফা সামাজিক বিচারের আওতার আনার জন্য চেষ্টা করলেও সে সবাইকে বৃদ্ধাঙ্গুলি প্রদর্শন করে। এ ব্যাপরে অভিযুক্ত হরি নমসূত্রের সাথে একাধিকবার যোগাযোগ করার চেষ্টা করলেও তার বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: