শনিবার, ২০ জুলাই ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ শ্রাবণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
নিজেদের বিমান বাহিনী থেকে সুরক্ষা পেতেই এরদোগানের এস-৪০০ ক্রয়!  » «   জাপানে অ্যানিমেশন স্টুডিওতে অগ্নিসংযোগ, নিহত ১২  » «   খাদ্য ঘাটতি পূরণ করেছি, এখন লক্ষ্য পুষ্টি: প্রধানমন্ত্রী  » «   রিফাত হত্যায় জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে মিন্নি  » «   বাংলাদেশের পতাকার আদলে অন্তর্বাস বিক্রি করছে অ্যামাজন  » «   রিফাত হত্যাকাণ্ড: এবার রিশান ফরাজীও গ্রেফতার  » «   বড়পুকুরিয়া কয়লা খনি কেলেঙ্কারি: সিস্টেম লস নয় দুর্নীতি  » «   বন্যার কারণে জাতীয় ও উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন পরীক্ষা স্থগিত  » «   হঠাৎ কিশোর গ্যাং নিয়ন্ত্রণে শক্ত পদক্ষেপ, মাঠে নামছে র‌্যাব  » «   ধসে পড়া ভবনে মিললো বাবা-ছেলের মরদেহ  » «   ইসরাইলের বিরুদ্ধে বাংলাদেশের তীব্র নিন্দা  » «   ‘নয়ন বন্ডের বাড়িতে বসেই স্বামীকে হত্যার পরিকল্পনা করেন মিন্নি’  » «   সিলেটের ২ জনসহ দেশসেরা ১২ শিক্ষার্থীকে পুরস্কার দিলেন প্রধানমন্ত্রী  » «   বেনাপোল ও বনলতা এক্সপ্রেস ট্রেনের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী  » «   উপজেলা নির্বাচন: সিলেটে আ.লীগের বিদ্রোহী প্রার্থীদের বহিষ্কারের তালিকা  » «  

নবীগঞ্জে ইভটিজিংয়ের মামলা করে বিপাকে কলেজ ছাত্রীর পরিবার



নিউজ ডেস্ক:: নবীগঞ্জ উপজেলার ইনাতগঞ্জে বখাটের ইভটিজিংয়ের কারণে কলেজে আসা-যাওয়া বন্ধ করে দিয়েও শান্তিতে থাকতে পারছে না কলেজছাত্রীর পরিবার।এ ঘটনায় মামলা দায়ের করে পরিবারটি পড়েছে বিপাকে।

অভিযোগ উঠেছে মামলা তুলে নেয়ার জন্য বাড়িতে গিয়ে হামলা করে ভাংচুর আসবাবপত্র ভাংচুর করেছে মামলার আসামী জায়েদুল। এতে ইভটিজিংয়ের শিকার কলেজ ছাত্রীর পরিবারটি রয়েছে চরম নিরাপত্তাহীনতায়। তারা প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

সূত্রে জানা যায়, নবীগঞ্জ উপজেলার ইনাতগঞ্জ ইউনিয়নের মধ্যসমত গ্রামের মদব্বির হোসেনের কন্যা স্থানীয় ইনাতগঞ্জ ডিগ্রি কলেজে যাওয়া-আসার সময় রাস্তাঘাটে প্রতিনিয়ত বিভিন্ন অশ্লীল অঙ্গভঙ্গি প্রদর্শন ও উত্ত্যক্ত করতো একই ইউনিয়নের মধ্যসমত গ্রামের মৃত গফুর উল্লাহর পুত্র সিএনজি চালক জায়েদুল হক।

জানা যায়, গত ২৬ অক্টোবর ওই ছাত্রীর পিতা-মাতা বাড়িতে না থাকার সুযোগে একা পেয়ে ধর্ষণের চেষ্টা চালায় সে। এ সময় জায়েদুল অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে ওই ছাত্রীর আপত্তিকর বিভিন্ন ছবি মোবাইল ফোনে তুলে ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেয়ার হুমকি দেয়। এ সময় তার শোর চিৎকার শুনে পাশের ঘর থেকে বড় বোন এগিয়ে আসলে তাকেও আঘাত করা হয়। রক্তাক্ত অবস্থায় আহতদের উদ্ধার করে নবীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

এ ঘটনায় কলেজ ছাত্রীর পিতা মদব্বির হোসেন বাদী হয়ে জায়েদুল হককে আসামী করে হবিগঞ্জ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল আদালতে মামলা দায়ের করেছেন। আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে নবীগঞ্জ থানা পুলিশকে তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দিয়েছেন। মামলা দায়েরের পর থেকেই মামলাটি তুলে নেওয়ার জন্য বিভিন্ন হুমকি ধামকি প্রদর্শন করছে আসামী পক্ষ।

এ ব্যাপারে নবীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইকবাল হোসেন বলেন, এ বিষয়ে এখন পর্যন্ত কোনো নির্দেশনা আসেনি। নির্দেশনা পাওয়া মাত্রই ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: