মঙ্গলবার, ১৮ ডিসেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৪ পৌষ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
আমার কিছু হলে দায়ী আপনারা মামা-ভাগ্নে: সিইসিকে গোলাম মাওলা রনি  » «   ভুলভ্রান্তি হলে ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন: শেখ হাসিনা  » «   মাহবুব তালুকদারের বক্তব্য অসত্য: সিইসি  » «   ভোটের ফলাফল প্রকাশে বিশেষ সতর্কতা অবলম্বনের নির্দেশ  » «   ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় মইনুলের জামিন  » «   বাংলাদেশের বিজয় দিবসকে অবজ্ঞা শেহবাগের!  » «   সারাদেশে ১ হাজার ১৬ প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন  » «   প্রার্থিতা নিয়ে রিট খারিজ, নির্বাচন করতে পারবেন না খালেদা জিয়া  » «   জামায়াতের ২২ প্রার্থীর মনোনয়ন বাতিলে রুল  » «   সিলেটে প্রাধান্য উন্নয়ন ও গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার  » «   বিএনপির ইশতেহার ঘোষণা করছেন ফখরুল  » «   আপিলেও ভোটের পথ খুলল না ইলিয়াসপত্নী লুনার  » «   যেসব ‘বিশেষ’ অঙ্গীকার থাকছে আ. লীগের নির্বাচনি ইশতেহারে  » «   আ.লীগের নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষণা করছেন শেখ হাসিনা  » «   সিলেটে বিএনপি নেতাকর্মীদের মারধর ও ধরপাকড়ের অভিযোগ  » «  

দেশের প্রথম ওপেন জেল নির্মিত হবে কক্সবাজারে



দেশের প্রথম ওপেন জেল নির্মিত হবে কক্সবাজারে

উন্নত বিশ্বের আদলে দেশের প্রথম ওপেন জেল নির্মিত হবে কক্সবাজারে। প্রচলিত জেলখানার মতো ওপেন জেলে আসামিদের নির্দিষ্ট কোন লকআপে বন্দি রাখা হবে না। আসামিরা মুক্ত বিহঙ্গের মতো সুবিশাল এলাকায় ঘুরে বেড়াতে পারবেন। বিভিন্ন ধরনের কলকারখানা ও কৃষি জমিতে কাজের সুযোগ পাবেন। কাজের বিনিময়ে তাদেরকে পারিশ্রমিক দেয়া হবে। শুধু তাই নয়, পরিবার পরিজনের সাথে মাঝে মধ্যে সাক্ষাত ও মোবাইল ফোন ব্যবহারসহ সাধারণ মানুষের সাথে মেলামেশার সুযোগ পাবেন। কারা অধিদফতরের একাধিক দায়িত্বশীল কর্মকর্তা সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

সূত্র জানায়, সরকারের কাছ থেকে কারা অধিদফতর কক্সবাজারের উখিয়ায় ৩২১ একর জমি পেয়েছে। সম্প্রতি সরকারের পক্ষ থেকে জমি বুঝে নিতে কারা অধিদফতরকে চিঠিও পাঠানো হয়েছে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে কারা অধিদফতরের একাধিক শীর্ষ কর্মকর্তা জানান, বরাদ্দকৃত ওই জমিতেই ওপেন জেল নির্মাণের পরিকল্পনা গ্রহণ করা হচ্ছে। আধুনিক বিশ্বের ওপেন জেলের আদলে সেখানে প্রচলিত জেলখানার মতো বন্দিদের আসামি হিসেবে গণ্য না করে সাধারণ মানুষের মতো গণ্য করা হবে। সেখানে বিভিন্ন ধরনের কলকারখানা স্থাপন ও কৃষিজ জমিতে বিভিন্ন ধরনের ফসল ফলানোর কাজে জড়িত হওয়ার সুযোগ দেয়া হবে।

তারা বলেন, স্বল্প বা দীর্ঘমেয়াদি দুই ধরনের বন্দিদের ওপেন জেলে রাখা যেতে পারে। তবে দীর্ঘমেয়াদে সাজা খেটে যারা মুক্তি পাওয়ার অপেক্ষায় রয়েছেন তাদেরকে সমাজ ও পরিবারে পূনর্বাসিত করতে ওপেন জেলে রাখা হয়।

তবে কারা অধিদফতরের দায়িত্বশীল কর্মকর্তারা কেউ প্রকাশ্যে ওপেন জেল বিষয়টি নিয়ে কথা বলতে চাননি। একাধিক কর্মকর্তা এ প্রতিবেদককে বলেন, উখিয়ায় ৩২১ একর জমিতে ওপেন জেলসহ বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কার্যক্রম গ্রহণের পরিকল্পনা তাদের রয়েছে। তবে এখনও বিষয়টি পরিকল্পনাধীন থাকায় বিষয়টি নিয়ে প্রকাশ্যে কথা বলবেন না বলে জানান।

 

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: