শুক্রবার, ২২ জুন ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৮ আষাঢ় ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
সাপাহারে ট্রাক ও ভ্যানের মুখো-মুখি সংঘর্ষে নিহত-২  » «   দুর্ঘটনার দিন ঢাকাতেই ছিলাম না’  » «   ভক্তদের হতাশ করেনি ব্রাজিল : অতিরিক্ত সময়ই বিশ্বকাপে টিকিয়ে রাখল নেইমারদের  » «   হাসপাতালের এক্সরে রুমে রোগীর মাকে ধর্ষণের চেষ্টা!  » «   গজারী বনে যুবতীর অর্ধগলিত লাশ  » «   ‘খালেদা চেয়েছিলেন আমি কারাগারেই মরি’: এরশাদ  » «   রাজনীতিতে ভালবাসার কোনো স্থান নেই : কাদের  » «   ফতুল্লার ব্রাজিল বাড়িতে নিজ দেশের খেলা দেখবেন রাষ্ট্রদূত  » «   সাংবাদিকদের প্রশিক্ষণ দিতে উদ্যোগ নিচ্ছে গুগল  » «   জামিনের ৭ দিন পরে ফের ইয়াবাসহ আটক  » «   প্রিয়জনের রাগ ভাঙাবেন যেভাবে!  » «   নদী ভাঙনে বড়লেখার ৫ গ্রামের মানুষের দুর্ভোগ চরমে  » «   আইসিআরসি প্রেসিডেন্ট আসছেন ৩০ জুন  » «   মা হলেন নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী!  » «   যাত্রীবাহী বাস খাদে পড়ে নিহত ২  » «  

‘দুর্নীতি করে ভাগ্য গড়তে আসিনি’



full_753836765_1462006531নিউজ ডেস্ক: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আওয়ামী লীগের লক্ষ্য দেশের সুষম উন্নয়ন। দেশের সাধারণ মানুষের ভাগ্যোন্নয়নেই আজীবন কাজ করে যাওয়ার আকাঙ্ক্ষা ব্যক্ত করে তিনি বলেন, ‘দুর্নীতি করে ভাগ্য গড়তে আসিনি। আমি জাতির পিতার কন্যা। রাজনীতি করছি মানুষের কল্যাণে। সরা জীবন সেটাই করে যাব।’

শনিবার দুপুর পৌনে ১২টায় গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার ঘোনাপাড়ায় শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব চক্ষু হাসপাতাল ও প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের উদ্বোধনকালে আয়োজিত সমাবেশে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।

এসময় প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আশা করি, এই চিকিৎসাকেন্দ্র মানবসেবায় অবদান রাখবে।’ তিনি আরেক দিন এখানে চোখের চিকিৎসার জন্য আসবেন বলেও জানান।

শেখ হাসিনা বলেন, বিএনপি-জামায়াত পদ্মা সেতু নিয়ে ষড়যন্ত্র না করলে এত দিনে এই সেতুর নির্মাণকাজ আরও এগিয়ে যেত।

তিনি বলেন, তার সরকার দেশের প্রতিটি জেলায় সাধারণ বিশ্ববিদ্যালয় করে দিচ্ছে। উচ্চশিক্ষা খাতসহ দেশের ১ কোটি ৭০ লাখ ছাত্রছাত্রীকে মেধাবৃত্তি প্রদান করা হচ্ছে। তিনি আরও বলেন, ‘শিক্ষার্থীদের আজকে আর বই-খাতা কিনতে হয় না। আমরা সবই দিচ্ছি। দেশে এখন খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত হয়েছে। মানুষের চাহিদা বদলে গেছে, কারণ পেটে খাবার আছে। এখন মানুষ বিদ্যুৎ চায়, স্কুল চায়। আমরা তা করছি।’

বিএনপির উদ্দেশে শেখ হাসিনা বলেন, তারা দেশে উন্নয়ন চায় না, এটাই বাস্তবতা। তারা পারে শুধু মানুষ পোড়াতে, গুপ্তহত্যা করতে। তারা হত্যা আর ধ্বংস ছাড়া আর কিছুই করে না।

বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারের সদস্যদের মহান আত্মত্যাগের কথা স্মরণ করে শেখ হাসিনা বলেন, ‘এই দেশের মানুষের জন্য আমার বাবা-মা, ভাইবোন সবাই জীবন দিয়ে গেছেন। আমি সব হারিয়েছি। আমার তো আর হারাবার কিছু নেই। চাওয়া-পাওয়ার কিছু নেই। এখন এ দেশের মানুষের জন্য কিছু করতে চাই।’ তিনি আরও বলেন, ‘বাংলাদেশের উন্নয়নকে অনেকে বিস্ময় বলেন। আমি বলি এটি বিস্ময় নয়, বিশ্বাস। জনগণের প্রতি বিশ্বাস। এই বিশ্বাস আছে বলেই দেশের উন্নতি করতে পারছি। নিয়ত ভালো বলে যেখানেই হাত দিচ্ছি, সেখানেই সাফল্য অর্জন করছি।’

 

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: