রবিবার, ২৪ মার্চ ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ১০ চৈত্র ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
লাগামহীনভাবে বাড়ছে দ্রব্যমূল্য: রমজানপূর্ব মজুদদারিতে কারসাজি  » «   সন্ত্রাস ও হিংসা মোকাবেলায় একসঙ্গে কাজ করতে পাকিস্তানকে আহ্বান মোদির  » «   সংসদে লুকিয়ে চকলেট খেয়ে ক্ষমা চাইলেন ট্রুডো!  » «   নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রীকে অন্যরকম সম্মান দেখালো আরব আমিরাত  » «   ‘ইসলাম গ্রহণ করবেন ভেনিজুয়েলার প্রেসিডেন্ট’  » «   শাহজালাল বিমানবন্দরে ময়লার ঝুড়ি থেকে ১৬ কেজি স্বর্ণ উদ্ধার  » «   ভারতে লোকসভা নির্বাচনে প্রার্থীদের প্রথম তালিকা ঘোষণা করলো বিজেপি  » «   সিলেটে ট্রাকের ধাক্কায় প্রাণ গেল সিলসিলার ম্যানেজারের  » «   নিজের চেয়ার ছেড়ে জহিরুলের পাশে এসে দাঁড়ালেন প্রধানমন্ত্রী  » «   সিলেটে নির্মাণ হতে যাচ্ছে স্মৃতিসৌধ,পররাষ্ট্রমন্ত্রীর ডিও লেটার  » «   সুখী দেশের তালিকায় বাংলাদেশের ১০ ধাপ অবনতি  » «   জাফর ইকবালকে হত্যাচেষ্টা মামলায় সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু  » «   আইডিয়া’র ২৫ বছর পূর্তি উৎসবে র‍্যালি, আলোচনাসভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান  » «   উন্নয়ন করতে গিয়ে জীবন ও জীবিকার যেন ক্ষতি না হয় : প্রধানমন্ত্রী  » «   আজ দিন রাত সমান, আকাশে থাকবে সুপারমুন  » «  

দুই স্ত্রীকে নিয়েই সংসার শুরু করছেন সানি



নিউজ ডেস্ক:: চলতি বছরের জানুয়ারিতে নাসরিন সুলতানা নামে এক নারীর করা মামলায় প্রথমে গ্রেফতার ও পরে রিমান্ডে নেয়া হয় জাতীয় দলের ক্রিকেটার আরাফাত সানিকে। পরবর্তীতে নাসরিন দাবি করেন, তিনি সানির বিবাহিত স্ত্রী। নাসরিনের করা মামলা চলাকালীন বের হয়ে এসেছিল সানির প্রথম বিয়ের খবরও। শেষ পর্যন্ত দ্বিতীয় স্ত্রীর সঙ্গে সমঝোতা করে দুই স্ত্রীকেই একসঙ্গে রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন সানি।
নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে দায়ের করা মামলায় সোমবার ঢাকা মহানগর দায়রা জজ কামরুল হোসেন মোল্লার আদালতে এই মর্মে একটি আপোষনামা দাখিল করে উভয়পক্ষ। এরপর বিচারক ওই মামলায় আরাফাত সানির জামিন স্থায়ী করেন।
আপোষনামায় বলা হয়, ‘২০১৪ সালের ৪ ডিসেম্বর চার লাখ টাকা দেনমোহর ধার্যে আমরা বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হই। যা এখন বেড়ে ১০ লাখ টাকা হবে এবং অদ্য সোমবার পুনরায় বিবাহ রেজিস্ট্রি করে নিব। এছাড়া আমাদের মধ্যে ভুল বোঝাবুঝিতে সৃষ্ট মামলা প্রত্যাহার করে নিব এবং এখন থেকে একসঙ্গে সুখে-শান্তিতে দাম্পত্য জীবন অতিবাহিত করবো।’
এর আগে চলতি বছরে জানুয়ারির ৫ তারিখে সানির বিরুদ্ধে তথ্য প্রযুক্তি আইনে প্রথম মামলা করেন নাসরিন। মামলায় বলা হয়, সানি তার ব্যক্তিগত ছবি প্রকাশের হুমকি দিয়েছে। ২২ জানুয়ারি সানিকে তার আমিন বাজারের বাসা থেকে গ্রেফতার করে পুলিশ। নিজেকে সানির স্ত্রী দাবি করে সানি ও সানির মাকে আসামি করে এরপর যৌতুক নিরোধ আইন এবং নারী নির্যাতন আইনে আরও দুটি মামলা করেন নাসরিন। পরে সানিকে অস্থায়ী জামিন দেওয়া হয়।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: