মঙ্গলবার, ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ ফাল্গুন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
উপজেলা নির্বাচনের তৃতীয় ধাপ থেকে ইভিএম: ইসি সচিব  » «   হজ পালনে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের দাবি হিজড়াদের  » «   সব বাধা উপেক্ষা করে গণশুনানি করবে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট  » «   অভিজিৎ হত্যা: অব্যাহতি পাচ্ছেন সাতজন, আসামি ছয়  » «   অনুমোদিত ৩টি ব্যাংক সম্পর্কে তেমন কিছু জানেন না অর্থমন্ত্রী  » «   ডাস্টবিনে নেমে ১৫০০ শিক্ষার্থীকে বাঁচানোর আহ্বান  » «   একাদশ সংসদের এমপিদের বৈধতা নিয়ে রিট খারিজ  » «   শামীমাকে যা বুঝিয়ে সিরিয়ায় নিয়ে গিয়েছিল আইএস  » «   নিজেই গাড়ি চালিয়ে যুবরাজকে বাসভবনে নিয়ে গেলেন ইমরান খান  » «   আরব আমিরাত ও বাংলাদেশর মধ্যে ৪টি সমঝোতা স্মারক সই  » «   সংঘর্ষ চলছে, পুলওয়ামা হামলার মূল হোতা নিহত  » «   এক দিন বাড়ল দ্বিতীয় পর্বের ইজতেমা, আখেরি মোনাজাত মঙ্গলবার  » «   শুধুমাত্র আইন দিয়ে দুর্নীতি দমন করা যায় না: আইনমন্ত্রী  » «   জামায়াতের সবারই রাজ্জাকের মতো ভুল ভাঙা উচিত: ফরীদ উদ্দীন মাসঊদ  » «   সন্ত্রাসী হামলার নিন্দা জা‌নি‌য়ে মোদিকে শেখ হাসিনার বার্তা  » «  

তেজপাতার ঔষধ



tejpataলাইফ স্টাইল ডেস্ক :: তেজপাতা শুধু রান্নার স্বাদ কিংবা ঘ্রাণ বাড়ায় না, একইসঙ্গে এর রয়েছে দারুণ ঔষধি গুণ। তেজপাতায় ভিটামিন, মিনারেল, ম্যাগনেসিয়াম, পটাসিয়াম, জিংক, আয়রন ও সোডিয়ামের উত্তম উৎস।

তেজপাতা রক্তের খারাপ কোলেস্টরেল কমায়। স্মৃতিশক্তি নষ্ট করার জন্য যে এনজাইমটি দায়ী। তেজপাতা তাকে প্রতিরোধ করে। তেজপাতা হজমে সহয়তা করে। তেজপাতা গাছের ছাল কিংবা পাতা বেটে রস করে খেলে পেটের পীড়া ভালো হয়। ডায়রিয়া, হাম ও দীর্ঘস্থায়ী জ্বর হলে তেজপাতা সেদ্ধ পানি খেলে উপকার পাওয়া যায়।

তেজপাতা শরীরের রক্ত সংবহনতন্ত্রকে সজীব করে ফলে ত্বক ও চুলের স্বাস্থ্য অটুট থাকে। তেজপাতা হৃদযন্ত্রের পেশির কার্যক্ষমতা বৃদ্ধি করে। হৃদরোগীদের সুস্থ থাকতে সহয়তা করে।

তবে গর্ভবতী মায়েদের জন্যে তেজপাতার অধিক ব্যবহার বর্জনীয়। অতিমাত্রায় কোন কিছুই স্বাভাবিক মানব দেহের জন্য মঙ্গল নয়, মেনে চলা যথোপযুক্ত যুক্তি।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: