বুধবার, ২২ অগাস্ট ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ ভাদ্র ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
অনুমতি ছাড়া সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীকে গ্রেপ্তার নয়  » «   দেশের উন্নতির জন্য বিলাসীতা ত্যাগের ঘোষণা ইমরানের  » «   ঈদে ৮ দিন ২৪ ঘণ্টা সিএনজি ফিলিং স্টেশন খোলা  » «   আজ আরাফার দিন, কিছু আমল যা আপনিও করতে পারবেন  » «   সিলেটে স্বাভাবিকের চেয়ে বেশী তাপমাত্রা, সতর্ক থাকার পরামর্শ  » «   সুনামগঞ্জে বাস চাপায় কলেজ ছাত্রী নিহত,দুই শিশুসহ আহত ৪  » «   ইরানে অভ্যুত্থান ঘটানোর সকল মার্কিন চেষ্টা ব্যর্থ হবে: জারিফ  » «   নাইজেরিয়ায় বোমা হামলায় নিহত ১৯  » «   মেঘনা তেল ডিপোতে অগ্নিকাণ্ড, নিহত ২  » «   ভোটার হওয়ার সুযোগ পাচ্ছেন কুয়েত, সিঙ্গাপুর ও যুক্তরাজ্যের প্রবাসীরা  » «   ঘন্টায় ১৮০ কিমি বেগে টোকিওর দিকে ঘূর্ণিঝড় ‘শানশান’  » «   মক্কায় ভারী বৃষ্টিপাতে বন্যার আশঙ্কা  » «   ক্যারিয়ার গড়তে রাজনীতিতে আসিনি: ইমরান খান  » «   সীমান্তে ভারী অস্ত্র-সেনা বাড়াচ্ছে মিয়ানমার, সতর্ক বিজিবি  » «   সন্তান জন্ম দিতে সাইকেল চালিয়ে হাসপাতালে গেলেন মন্ত্রী  » «  

তারাবি শেষে ফিরছিলেন লন্ডনে হামলায় আহতরা



আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: সেভেন সিস্টার্স রোডের ফিন্সবারি পার্কের কাছে গাড়ি চালিয়ে ওই হামলার ঘটনায় ৪৮ বছর বয়সী একজনকে আটক করেছে পুলিশ। হামলার পরপরই রোববার স্থানীয় সময় রাত ১২টা ১৫ মিনিটে লন্ডনের অ্যাম্বুলেন্স সার্ভিসকে খবর দেয়া হয়।
মুসলিম কাউন্সিল অব ব্রিটেন (এমসিবি) জানিয়েছে, প্রার্থনা শেষে বাড়ি ফেরার পথে মুসল্লিদের ওপর চালানো ওই হামলা ইচ্ছাকৃত।

সংগঠনটির তরফ থেকে বলা হয়েছে, এই ঘটনার মাধ্যমে হিংসাত্মক ইসলামভীতির বহিঃপ্রকাশ ঘটেছে। তারা মসজিদের চারপাশে অতিরিক্ত নিরাপত্তা নিশ্চিতের আহ্বান জানিয়েছেন।
এই হামলার ঘটনাকে ভয়ানক ঘটনা বলে উল্লেখ করেছেন প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে। তিনি বলেন, হামলায় যারা হতাহত হয়েছেন তাদের জন্য আমরা ব্যথিত। ঘটনাস্থলে জরুরি বিভাগের কর্মকর্তারা রয়েছে বলে উল্লেখ করেছেন তিনি।

রায়ান নামের এক নারী জানিয়েছেন, তিনি দুর্ঘটনার আগে ওই মসজিদের কাছেই ছিলেন। নামাজ শেষে সবাই ফিরছিল। তিনি পেছনে দাঁড়িয়ে একজনের সঙ্গে কথা বলছিলেন।
তিনি সিএনএনকে জানিয়েছেন, আমি কথা বলছিলাম। কিছুক্ষণ পরেই লোকজনের চিৎকার শুনতে পেলাম। আমি একটু সামনে এগিয়ে গেলাম কি হয়েছে সেটা দেখার জন্য।

রিয়ান জানান, তাকে ভেতরে যাওয়ার জন্য বলা হয়েছিল। তাকে বলা হয়েছিল এটা নিরাপদ জায়গা নয়। কিন্তু তিনি কারো কথা শোনেননি।
তিনি বলেন, ‘আমি হাঁটতে হাঁটতে ঘটনাস্থলে পৌঁছাই। আমি দেখতে পেলাম কিছু মানুষ রাস্তায় পড়ে আছে, কেউ কেউ মারাত্মক আহত হয়েছে। এদের মধ্যে একজন সম্ভবত মারা গেছেন। পুলিশ আমাদের সেখান থেকে সরিয়ে দিচ্ছিলেন।’

এই হামলার ঘটনা সম্পর্কে বিস্তারিত কিছু জানায়নি পুলিশ। এছাড়া কোনো সন্দেহভাজন সম্পর্কেও কোনো তথ্য প্রকাশ করা হয়নি।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: