বুধবার, ২২ নভেম্বর ২০১৭ খ্রীষ্টাব্দ | ৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
১৪৪ ধারা ভঙ্গের অপরাধে ৩ জনকে জরিমানা, দায়িত্বে অবহেলায় ৪ জনকে অব্যাহতি  » «   মুক্তিযোদ্ধা হতে একাত্তরে ন্যূনতম বয়স নিয়ে রুল  » «   এবার নেচে গেয়ে দর্শক মাতাবেন শামীম ওসমান  » «   বাংলাদেশ সচেতন ছাত্র ফোরামের উদ্যেগে দুঃস্থ ও এতিমদের নিয়ে তারেক রহমানের ৫৩তম জন্মদিন পালন  » «   বিশ্ববিদ্যালয়ের বাস ভাংচুর মামলার আসামী যখন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তিচ্ছু পরীক্ষার্থী  » «   ভর্তি জালিয়াতি চক্রের দুইজন আটক  » «   পাবনায় আইডিবি’র ৪৭তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিক উপলক্ষে বর্ণাঢ্য র‌্যালী ও আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত  » «   তারেক রহমানের ৫৩তম জন্মদিন পালন করেছে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী মহিলা দল ফ্রান্স শাখা  » «   আরব সভ্যতা টিকবে না : আদোনিস  » «   জন্মদিনে তারেকের সুস্থতা কামনা করে খালেদার টুইট  » «   তনুর পরিবারকে ঢাকায় ডেকেছে সিআইডি  » «   যৌন হয়রানির শিকার উত্তর কোরিয়ার নারী সৈন্যরা  » «   মোদির বিরুদ্ধে আঙুল তুললে কেটে ফেলা হবে, হুমকি বিজেপি নেতার  » «   কমলগঞ্জে সংখ্যালঘুর বাড়িতে হামলা: পিইসি পরীক্ষার্থী সহ আহত ৩  » «   নাতির সঙ্গে পিএসপি পরীক্ষা দিচ্ছেন নানি  » «  

তারকাশূন্য টেনিসের আকাশ!



স্পোর্টস ডেস্ক:: টেনিসের দুনিয়ায় গত এক যুগেরও বেশি সময় ধরে যারা আলোচনার তুঙ্গে তাদের মধ্যে সেরেনা উইলিয়ামস, মারিয়া শারাপোভা, ভেনাস উইলিয়ামস, ভিক্টোরিয়া আজারেঙ্কা, আনা ইভানোভিচ কিংবা পেত্রা কেভিতোভা অন্যতম। তবে সময়ের পরিক্রমায় ধীরে ধীরে বয়সের ভারে তাদের সকলেই যেন অতীত হয়ে যাচ্ছেন! তাদের অনুপস্থিতিতে এ বছরই দেখা গেল সেই শুন্যতা!
নিষেধাজ্ঞার কারণে দীর্ঘ ১৫ মাস নির্বাসনে ছিলেন মারিয়া শারাপোভা। তার অনুপস্থিতি খুব ভালভাবেই উপলব্ধি করেছেন টেনিসপ্রেমীরা। তবে নির্বাসন থেকে কোর্টে ফিরেছেন রাশিয়ান টেনিসের এই গ্ল্যামারগার্ল। যদিও ফিরতে পারেননি স্বরুপে। এছাড়া ফ্রেঞ্চ ওপেনে খেলার অনুমতি মেলেনি তার। উইম্বলডনে সুযোগ পেলেও বাধা হয়ে দাঁড়ায় চোট। তার ভক্ত-অনুরাগীদের জন্য আশার কথা, মৌসুমের শেষ গ্র্যান্ডস্লাম ইউএস ওপেনে খেলেছেন পাঁচটি গ্র্যান্ডস্লামের মালিক। তবে বয়সে ইতিমধ্যেই ত্রিশকে অতিক্রম করে ফেলা মাশা পারবেন কি তৈরি হওয়া শূন্যতাকে পূরণ করতে?
টেনিস কোর্টে অসাধারণ পারফরম্যান্স করা ছাড়াও শারাপোভার ছিল রূপ-গুণ। যে সৌন্দর্য্যে মুগ্ধ হয়ে অনেকেই নতুন করে জড়িয়েছেন টেনিসের প্রেমে। কিন্তু মার্কি টেনিস কিংবদন্তি সেরেনা উইলিয়ামস ভক্ত-অনুরাগীদের হৃদয় জয় করেছেন শুধুই নজরকাড়া পারফরম্যান্সে। অন্তঃসত্ত্বার কারণে অস্ট্রেলিয়ান ওপেন জয়ের পর থেকেই কোর্টের বাইরে সেরেনা। এ মৌসুমে আর ফিরছেনও না। প্রথমবারের মতো কন্যা সন্তানের মা হওয়া ২৩ গ্র্যান্ডস্লামজয়ী সেরেনার চোখ অস্ট্রেলিয়ান ওপেন দিয়েই কোর্টে ফেরায়। তখন তার বয়স হবে ছত্রিশ। নতুন মৌসুমের প্রথম গ্র্যান্ডস্লামে ফেরার ব্যাপারে আমেরিকান কৃষ্ণকন্যা দারুণ আশাবাদী। কিন্তু এই ফেরার পর সেই ধার কি থাকবে সেরেনার? এমন সংশয় প্রকাশ করেছেন মা হওয়ার পর টেনিসে সাফল্য পাওয়া কিম ক্লাইস্টার্সও। বেলজিয়ামের সাবেক এই তারকার মতে, মা হওয়ার পর কোর্টে ফিরতে সেরেনার প্রধান অন্তরায় বয়স।
এই বয়সের ভারেই সেরেনার বড় বোন ভেনাস উইলিয়ামস বারবার ব্যর্থ হচ্ছেন গ্র্যান্ডস্লাম জয়ের স্বাদ পাওয়া থেকে। মৌসুমের প্রথম গ্র্যান্ডসাম অস্ট্রেলিয়ান এবং সর্বশেষ উইম্বলডনের ফাইনাল খেলেন তিনি। কিন্তু দুইবারই স্বপ্নভঙ্গের বেদনায় ডুবেছেন ৩৭ বছর বয়সী ভেনাস। এছাড়া সদ্য সমাপ্ত ইউএস ওপেনের সেমিফাইনাল খেলেছেন সাতটি গ্র্যান্ডস্লামজয়ী এই আমেরিকান।
এদিকে সন্তান হওয়ার কারণে গত বছর থেকে টেনিস থেকে ছুটি নিয়েছেন ভিক্টোরিয়া আজারেঙ্কা। আবার যখন টেনিসে ফিরতে উন্মুখ ঠিক তখনই তৈরি হয়েছে সন্তান নিয়ে পারিবারিক ঝামেলা। ইউএস ওপেনে খেলার কথা থাকলেও শেষ পর্যন্ত নাম প্রত্যাহার করে নিয়েছেন তিনি। বলেছেন, টেনিসের আগে তার সন্তান। আর সার্বিয়ার আনা ইভানোভিচ তো টেনিসকে বিদায় বলে পুরোদস্তর জার্মান প্লেমেকার বাস্তিয়ান শোয়েইনস্টাইগারের ঘর সামলাচ্ছেন।
শারাপোভা-সেরেনা-আজারেঙ্কার চেয়েও ভয়ংকর পরিস্থিতির সম্মুখীন হয়েছেন পেত্রা কেভিতোভা। গত বছরের শেষ দিকে তো নিজ বাড়িতেই দুবৃর্ত্তদের ছুরিকাঘাতে মারাত্মক আহত হয়েছিলেন এই চেক প্রজাতন্ত্রের টেনিস তারকা। টেনিসে ফেরার বিষয়ে শঙ্কা তৈরি হয়েছিল তারও। কিন্তু সব প্রতিবন্ধকতা দূর করে টেনিস কোর্টে স্বরুপে ফিরতে মরিয়া দুইবারের উইম্বলডনজয়ী কেভিতোভা।
শারাপোভা-আজারেঙ্কা-কেভিতোভারা যখন স্বরুপে ফিরতে মরিয়া তখন কোর্টে থেকেও নিজেদের নামের প্রতি সুবিচার করতে পারছেন না ক্যারোলিন ওজনিয়াকি কিংবা আগ্নিয়েস্কা রাদওয়ানস্কার মতো তারকারা। টেনিস টুর্নামেন্টগুলোতে শুধু শুধু অংশগ্রহণ করাটাই যেন তাদের রীতিতে পরিণত হয়ে গেছে।
বর্তমান টেনিস এতটাই তারকাশূন্য যে র‌্যাংকিংয়ের দিকে তাকালেও তা সুস্পষ্ট হয়ে উঠে। এই মুহূর্তে সবার উপরে অবস্থান গারবিন মুগুরুজার। দুই দিন আগেই চেক প্রজাতন্ত্রের ক্যারোলিনা পিসকোভার কাছ থেকে শীর্ষস্থান দখল করেন তিনি। গত মৌসুমটা দুর্দান্ত খেলে টেনিস বিশ্বে দারুণভাবে তারকা হয়ে উঠার বার্তা দিয়েছিলেন অ্যাঞ্জেলিক কারবার। কিন্তু ইউজেনি বুচার্ড, সিমোনা হালেপ কিংবা ডোমিনিকা সিবুলকোভার মতো তারকা হয়ে উঠার আগেই যেন হারিয়ে যাওয়ার পথ খুঁজছেন স্টেফি গ্রাফের এই উত্তরসূরী। চলতি মৌসুমে গ্র্যান্ডস্লামজয় তো দূরের কথা, কোন ডব্লিউটিএ শিরোপাই জিততে পারেননি তিনি। যে কারণেই গত জুলাইয়ে কারবারের কাছ থেকে শীর্ষস্থান দখল করে নেন চেক তারকা পিসকোভা।
তারকাবিহীন সময়ে চমক দেখিয়েছেন মনিকা পুইগ এবং জেলেনা ওস্টাপেঙ্কোর মতো খেলোয়াড়রা। অখ্যাত মনিকা পুইগ গত বছর তার দেশ পুয়ের্তো রিকোকে প্রথমবারের মতো অলিম্পিকের স্বর্ণপদক জেতান। আর এ মৌসুমে ফ্রেঞ্চ ওপেনে চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন লাটভিয়ার একেবারেই নতুন মুখ জেলেনা ওস্টাপেঙ্কো। আর সদ্য সমাপ্ত ইউএস ওপেনের দিকে তাকালে দেখা যাবে চোটের কারণে প্রায় এক বছর কোর্টের বাইরে থাকার পর হঠাৎ করেই জ্বলে উঠেন স্লোয়ান স্টিফেন্স। তারই স্বদেশী আরেক অখ্যাত মেডিসন কেইসকে হারিয়ে ক্যারিয়ারের প্রথম মেজর টুর্নামেন্ট জয়ের স্বাদ পান ২৪ বছর বয়সী এই টেনিস তারকা।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: