শনিবার, ১৮ জানুয়ারী ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ মাঘ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
লন্ডনে দ্বিতীয় জনপ্রিয় ভাষা বাংলা  » «   ঘুষের টাকাসহ হাতেনাতে সাব-রেজিস্ট্রার আটক  » «   আর কোনো হায়েনার দল বাংলার বুকে চেপে বসতে পারবে না  » «   সিলেটে মুক্তিযুদ্ধের পাণ্ডুলিপি সংগ্রহ করলেন প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী  » «   ফের জাতীয় পার্টির ঢাকা জেলা শাখার সভাপতি সালমা ইসলাম এমপি  » «   বিয়ানীবাজারে ৯৯০ পিস ইয়াবাসহ পেশাদার মাদক ব্যবসায়ী আটক  » «   আয়কর দিবস উপলক্ষে সিলেটে বর্ণাঢ্য র‌্যালি  » «   এবার শ্রীমঙ্গলে ট্রেনের ইঞ্জিনে আগুন  » «   বেলজিয়ামে মসজিদে তালা দেওয়ায় বাংলাদেশিদের প্রতিবাদ  » «   পায়রা উড়িয়ে জাতীয় পার্টির ঢাকা জেলা শাখার সম্মেলন উদ্বোধন  » «   ভারতের অর্থনীতির দুরবস্থা, জিডিপি কমে সাড়ে ৪ শতাংশ  » «   পায়রা উড়িয়ে সম্মেলন উদ্বোধন করলেন শেখ হাসিনা  » «   লন্ডন ব্রিজে আবারও সন্ত্রাসী হামলা, নিহত ২  » «   চীন থেকে মা-বাবার জন্য পেঁয়াজ নিয়ে এলেন মেয়ে  » «   রক্তে ভাসছে ইরাক, নিহত ৮২  » «  

ঢামেক হাসপাতালে স্বামীকে মৃত মানতে নারাজ স্ত্রী, কর্মচারীর সাথে ধ্বস্তাধস্তি (ভিডিও)



নিউজ ডেস্ক:: রাজধানীর মিরপুরে প্রাইভেটকারে ধাক্কায় আমিন (৩০) নামে এক যুবক নিহত হয়েছেন।রবিবার (১৯ মে) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। পরে পল্লবী থানার পুলিশ দ্রুত তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল (ঢামেক) হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

তবে নিহতের স্ত্রী দাবি করছেন, তার স্বামী জীবিত থাকার অবস্থায়-ই মর্গে রাখা হয়েছে। তিনি গিয়ে স্বামীর হাত-পা নড়াচড়া করতে দেখেছেন। এমনকি তার শ্বাস-প্রশ্বাসও চলছিলো। পরে তাকে নিয়ে আসতে চাইলে মর্গের কর্মচারির সঙ্গে স্বজনদের ধস্তাধস্তি হয়েছে।

জানা যায়, আজ রোববার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে এ দুর্ঘটনাটি ঘটে। পল্লবী থানার পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এএসআই) শাহিন দ্রুত উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল (ঢামেক) হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। তার স্ত্রী কল্পনা জানান, মিরপুরের বাউনিয়া বাঁধ এলাকায় থাকে আবদুল খালেকের সন্তান। তিনি পুলিশের গাড়ি চালাতেন। ঢামেক হাসপাতাল পুলিশ বক্সের পরিদর্শক বাচ্চু মিয়া জানান ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে।

তবে আমিনের স্ত্রীর দাবি তিনি মর্গে গিয়ে তার স্বামীকে জীবিত দেখতে পেয়েছেন। তিনি বলেন, ১১ টা ৩৬ মিনিটে ঢামেকের মর্গে আসছে। প্রথমে তাকে বলছে আইসিইউতে আছে। কিন্তু সেখানে নেয়নি। পরে দেখেন মর্গে।

তিনি বলেন, ২ টার দিকে মর্গে গিয়ে দেখেন তার হাত-পা নাড়ছে। কান পেতে দেখেন শ্বাস-প্রশ্বাস চলছে। তখন চিকিৎসা দিতে বলেন, কিন্তু তারা চিকিৎসা দিতে অস্বীকৃতি জানান। বলে, মারা গেছে। ওই নারী বলেন, সেরকম কোন ডাক্তারও নেই। পরে আমিনকে বের করে নিয়ে আসেন, কিন্তু মারধর করে আবার মর্গে নিয়ে গেছে।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: